রাশিদ বীরত্বে মহাকাব্য লেখা হলনা উইলিয়ামস-টিরিপানোদের

রাশিদ বীরত্বে মহাকাব্য লেখা হলনা উইলিয়ামস-টিরিপানোদের
Vinkmag ad

মহাকাব্য লেখা হলো না শন উইলিয়ামস ও ডোনাল্ড টিরিপানোর। চার সেশন লড়াই করেও হার মানতে হলো আফগানিস্তানের কাছে। ৫ম দিনের অন্তিম মুহুর্তে এসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৬ উইকেটের জয় পায় আফগানিস্তান। একইসাথে প্রথম টেস্ট হারের বদলাও নেয় তারা। বিফলে যায় ৮ম উইকেটে উইলিয়ামস ও টিরিপানোর ১৮৭ রানের অনবদ্য জুটি।

একপেশে টেস্টে প্রাণ নিয়ে এসেছিলেন উইলিয়ামস এবং টিরিপানো। ইনিংস পরাজয়ের সম্ভাবনা জাগ্রত হয়েছিল জিম্বাবুয়ের। ফলোঅনে পড়ে যখন ২য় ইনিংসেও ধুঁকছিল তারা, তখন দলের বিপর্যয়ে এগিয়ে আসেন অধিনায়ক শন উইলিয়ামস। তাকে যোগ্য সহায়তা দেন ডোনাল্ড টিরিপানো। ৮ম উইকেট জুটিতে প্রায় ৭০.৫ ওভার ব্যাটিং করে ১৮৭ রানের জুটি গড়েন তারা।

মাত্র ৫ রানের জন্য টিরিপানো সেঞ্চুরি মিস করলেও অধিনায়ক ঠিকই শতক তুলে নেন। ৩০৯ বলে ১৩টি চার ও ১ ছয়ে ১৫১ রানে অপরাজিত থাকেন উইলিয়ামস। অন্যদিকে ৯ নম্বরে নেমে ২৬৮ বল মোকাবেলা করে ১৬টি চারে ৯৫ রান করেন টিরিপানো।

আফগানদের বোলিং আক্রমণে পুরোপুরি দায়িত্বটা নিজের কাঁধে নিয়েছিলেন রাশিদ খান। প্রথম ইনিংসে ৩৬.৩ ওভার করে ৪ উইকেট নিলেও ২য় ইনিংসে নেন ৭ উইকেট নিতে তাকে করতে হয়েছে ৬২.৫ ওভার।

মাত্র ১০৮ রানের টার্গেটে ২য় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আফগানরা।

এর আগে প্রথম ইনিংসে প্রথম আফগান ব্যাটসম্যান হিসেবে দ্বিশতক করা হাশমাতুল্লাহ শহীদির অসাধারণ ব্যাটিং এবং অধিনায়ক আজগর আফগানের ১৬৪ রানের উপর ভর করে ৫৪৫ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল আফগানিস্তান।

এ জয়ের ফলে ১-১ ব্যবধানে সিরিজ ড্র করে দুই দল। প্রথম টেস্টে ১০ উইকেটের জয় পেয়েছিল জিম্বাবুয়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

আফগানিস্তানের ১ম ইনিংসঃ ৫৪৫/৪ ইনিংস ঘোষণা (১৬০.৪), শহীদি ২০০*, আজগর ১৬৪, ইব্রাহিম ৭২, নাসির ৫৫; বার্ল ২০-১-৬৯-১, রাজা ৩১-৪-৭৯-১

জিম্বাবুয়ের ১ম ইনিংসঃ ২৮৭/১০ (৯১.৩), রাজা ৮৫, ম্যাসভাউরে ৬৫, কাসুজা ৪১, মুসাকান্দা ৪১; রাশিদ ৩৬.৩-৩-১৩৮-৪, আমির ৩২-৬-৭৩-৩, শিরজাদ ১৫-৩-৪৮-২

(ফলোঅন) জিম্বাবুয়ের ২য় ইনিংসঃ ৩৬৫/১০ (১৪৮.৫), উইলিয়ামস ১৫১*, টিরিপানো ৯৫, কাসুজা ৩০; রাশিদ ৬২.৫-১৭-১৩৭-৭, আহমাদি ১৬-৫-৪০-১

আফগানিস্তানের ২য় ইনিংসঃ ১০৮/৪ (২৬.১ ) রহমত শাহ ৫৮, ইব্রাহিম ২৯; মুজারাবানি ৯.১-১-২৫-২, বার্ল ৪-১-১৬-২

ফলাফলঃ আফগানিস্তান ৬ উইকেটে ম্যাচে জয়ী, সিরিজ ১-১ এ সমতা

ম্যাচ সেরাঃ হাশমতউল্লাহ শহীদি (আফগানিস্তান)

সিরিজ সেরাঃ শন উইলিয়ামস (জিম্বাবুয়ে)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ডিপিএল শুরু ৬ মে, এক দিনে হবে ছয় ম্যাচ

Read Next

রুবেলের প্রশ্ন, শরিফুলের উত্তর

Total
7
Share