আইপিএল ইস্যুতে বাটলারের সহজ স্বীকারোক্তি

আইপিএল ইস্যুতে বাটলারের সহজ স্বীকারোক্তি
Vinkmag ad

আইপিএলে (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে) টাকার ঝনঝনানি উপেক্ষা করা যায় না, স্বীকার করে নিলেন ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জস বাটলার। জনপ্রিয় এই টি-টোয়েন্টি লিগ বাদ দিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য তাকে জোর দিচ্ছে না খোদ ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও (ইসিবি)।

ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট শেষে দেশে ফিরে যাওয়ায় চক্ষুশূল হয়ে আছেন বাটলার। এখন তিনি ভারতে ফিরে এসেছেন তিন মাসের জন্য। উদ্দেশ্য ভারতের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজ এবং রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আইপিএলে পুরো মৌসুম খেলা।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ বাদ দিয়ে আইপিএল খেলাকে কড়া চোখে দেখছে ব্রিটিশ মিডিয়া। ২ জুন থেকে টেস্ট সিরিজ শুরু হবে। অন্যদিকে রয়্যালস প্লে অফে উঠলে বাটলার থেকে যাবেন। প্লে অফ শুরু হবে মে মাসের শেষ সপ্তাহে।

বাটলার এক সংবাদ সম্মেলনে বলে ‘এ বিষয়ে আমার সাথে কোন আলোচনা হয়নি এবং অন্য খেলোয়াড়রা কি ভাবছে, তাও জানিনা। আমার মনে হয় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দল ঘোষণার আগে আইপিএলে অংশগ্রহণ নিয়ে একটি চুক্তিপত্রে আসা দরকার।’

যদিও স্যাম কারেনের মত বাটলারও বলেন, যদি প্লে অফে তাদের দল যায়, তবে তাদের মত অন্যান্য খেলোয়াড়দেরও উচিত টেস্ট সিরিজ বাদ দিয়ে আইপিএলে দলের সাথে থাকতে।

‘নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ পরে যুক্ত হয়েছে। আমাদের মধ্যে কয়েকজন এ সিরিজ মিস করতে পারে। আইপিএলে আমাদের খেলোয়াড়দের দলগুলো কতদূর যেতে পারে, তার উপর নির্ভর করছে।’

ক্লাব ও দেশের মধ্যে টাকা যে একটি বড় ইস্যু, তা নিয়ে কোন রাখঢাক করলেন না বাটলার।

‘আমরা আইপিএলের সুবিধা সম্পর্কে অবগত আছি। এটি বড় টুর্নামেন্ট এবং অনেক পুরস্কার পাওয়া যায়। এখানকার অভিজ্ঞতাও নিজেদের ক্রিকেট ক্যারিয়ার আরো সমৃদ্ধ করা যায়। একইসাথে ইংল্যান্ডের হয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেটও গুরুত্বপূর্ণ। অনেক খেলোয়াড় অংশ নেয় এবং আমরা সবাই সুবিধাপ্রাপ্ত হই।’

‘যদিও সসময়সূচি মেলানোটা বেশ কঠিন এবং এক্ষেত্রে সঠিক ভারসাম্য নেই। ইসিবি ও খেলোয়াড়রা এ বিষয়ে সামাল দেওয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা করছে।’

১২ জন ইংলিশ খেলোয়াড় আইপিএলে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। কেউ কেউ মিলিয়ন ডলারে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন দলগুলোতে। স্বয়ং বাটলার ছাড়াও বেন স্টোকস, জফরা আর্চার রাজস্থান রয়্যালসে, মঈন আলী ও স্যাম কারেন চেন্নাই সুপার কিংসে, টম কারেন দিল্লি ক্যাপিটালসে এবং ডেভিড মালান কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবে।

‘টাকার বিষয় ভাবলে অনেক মানুষের কাছে আইপিএল অনেক সুবিধা দেয়। টাকার বিবেচনায় আইপিএল সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট। আমরা জানি ইংল্যান্ডের হয়ে খেলাটা আমাদের জন্য বড় প্রাপ্তি এবং দেশের হয়ে আমরা সবচেয়ে খেলা উপহার দিয়ে আসছি,’ বাটলার বলেন।

‘ইংল্যান্ডের এটাও বড় প্রাপ্তি যে তাদের দলের হয়ে ১২ জন খেলোয়াড় বিশ্বের সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্টের আকর্ষণ।’

‘অবশ্যই আইপিএলে খেলে আমাদের স্কিলের উন্নতি ঘটাতে পারি। বিশেষ করে এই বছরে আইপিএল আমাদের জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কেননা এ বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও এখানে হতে যাচ্ছে,’ বাটলার জানান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এশিয়া কাপে যেমন হতে পারে ভারতের একাদশ

Read Next

বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের ওয়ানডে স্কোয়াড ঘোষণা

Total
3
Share