আইপিএল থেকে শিক্ষা নিবেন বলছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১

করোনার কারণে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএলের) স্থগিতাদেশ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১ আয়োজনে শিক্ষণীয় হয়ে থাকবে বলে জানিয়েছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী মানু সোহনি। মূলত বিশ্বকাপে জৈব সুরক্ষা বলয়ের (বায়ো বাবল) বিষয়টি চূড়ান্ত করতে এ মন্তব্য করেন তিনি।

কয়েকজন খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ হওয়ার কারণে বৃহস্পতিবার অনির্দিষ্টকালের জন্য পিএসএল স্থগিত ঘোষণা করা হয়। পিসিবি জানায় তাদের কাছে খেলোয়াড়দের নিরাপদ সুরক্ষা আগে এবং এ বছরের অন্য কোন মৌসুমে পিএসএলের বাকি ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে সোহনি বলেন, ‘সকলের বোঝা উচিত করোনা থেকে সুরক্ষার ব্যাপারটি সবক্ষেত্রে সমান্তরাল নয়। উদাহরণস্বরূপ, কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজ শুধুমাত্র দুইটি দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। যদি আমরা বিশ্বকাপের কথা বিবেচনা করি, তাহলে সেখানে ১৬টি ভিন্ন দেশের দল ১টি দেশে খেলতে আসবে। তখন করোনার ঝুঁকি আরও বাড়ার সম্ভাবনা থাকবে। আমাদের ভিন্নভাবে তখন ভাবতে হবে। এসব জটিলতায় আমরা সম্মুখীন হচ্ছি। সকল দিন সমান যায় না, ধীরে ধীরে আমাদের উন্নতি করতে হবে।’

‘বিভিন্ন ধরণের টি-টোয়েন্টি লিগ থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। বিসিসিআই (দ্য বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া) দারুণ কাজ করছে এবং বিশ্বকাপের আগে আইপিএল (আইপিএল) আমাদের কাছে গুরত্বপূর্ণ বিষয়। আইপিএল দেখে আমরা পরবর্তীতে বিশ্বকাপের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবো।’

এ বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্টের ভেন্যুর ব্যাপারটি দ্রুতই প্রকাশিত হবে।

‘১৬টি ভিন্ন দেশের দলের কোয়ারেন্টাইন বিধি মানার সাথে সাথে করোনা ঝুঁকির পরিমাণও বাড়তে পারে। খেলোয়াড়রা নিজ নিজ দেশ থেকে আসবে এবং টুর্নামেন্ট শেষে নিজেদের দেশে ফিরে যাবে। টুর্নামেন্ট চলাকালে সবকিছু মেনে চলাটাও একটা চ্যালেঞ্জ হবে তাদের কাছে। আমাদের একসাথে এ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। যদিও সবকিছু পরিকল্পনা মোতাবেক সবসময় হয় না। তবে বিশ্বাস রাখতে সবাই যেন নিজ নিজ থেকে তাদের সেরাটা চেষ্টা করে,’ সোহনি জানান।

এ বছরই ভারতে আইপিএলে অনুষ্ঠিত হবে। বিসিসিআই দ্রুতই ভেন্যুর ব্যাপারে চূড়ান্ত করবে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

তৃষ্ণার দাপুটে বোলিং, উড়ে গেল বাংলাদেশ রেড দল

Read Next

গিলক্রিস্টের কমপ্লিমেন্ট, আপ্লুত রিশাব পান্ট

Total
11
Share