ক্রাইস্টচার্চে টাইগারদের আরো এক শুক্রবার

ক্রাইস্টচার্চে টাইগারদের আরো এক শুক্রবার
Vinkmag ad

২০১৯ সালে ১৫ মার্চঃ

সেদিন ছিল শুক্রবার। শুক্রবার এমনিতে মুসলিমদের জন্য মর্যাদার, পবিত্র জুম্মা এদিন। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে অবস্থানরত তামিম-মাহমুদউল্লাহদের সেদিন জুম্মা’র নামাজ পড়ার কথা ছিল টিম হোটেলের পাশে এক মসজিদে।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সংবাদ সম্মেলন শেষ হতে একটু দেরি, দল বেঁধে জুম্মা পড়তে যাওয়া টাইগারদের যাওয়ার সময়েও। সেই একটু দেরিই বাংলাদেশকে ভয়াবহ এক বিপদ থেকে বাঁচিয়ে দেয়।

ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে স*ন্ত্রা*সী হামলা হয়, ঘটনাচক্রে বেঁচে যান তামিম-মুশফিকরা।

২০২১ সালের ৫ মার্চঃ

এদিনও শুক্রবার। বাংলাদেশ সময় ভোর ৬ টা ৫৪ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপে বিসিবির মিডিয়া গ্রুপে বার্তা এল। দলের সঙ্গে থাকা বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জনাব জালাল ইউনুসের বার্তা দিলেন বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার।

বার্তাটা ছিল এমন- ‘নিউজিল্যান্ড সময় ভোর ২ টা ২৭ (এএম) এর সময় নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের পূর্ব দিকের কাছে ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। নর্থ আইল্যান্ডের কোস্টাল এরিয়াতে সুনামির সতর্কবার্তা ছিল।

ক্রাইস্টচার্চ (যেখানে বাংলাদেশ দল আছে) সাউথ আইল্যান্ডে, যা ভূমিকম্পের এপিসেন্টার থেকে বেশ দূরে। যাহোক, বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট স্থানীয় দায়িত্বশীলদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে, যারা নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ডের এই প্রান্তে (ক্রাইস্টচার্চে) সতর্কবার্তা দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

দলের সবাই ভালো আছে। আজকের দিনের কার্যক্রম বজায় ছিল। লিঙ্কন গ্রিনে ছেলেরা নিজ নিজ গ্রুপে থেকে ট্রেনিং করেছে।’

পরে জালাল ইউনুস এক ভিডিও বার্তাও দেন।

শুক্রবার সকালে (বাংলাদেশ সময়) সেই আল নূর মসজিদের সামনে দিয়ে যাবার সময় ২০১৯ সালের স্মৃতি মনে পড়ে মুশফিকুর রহিমের। মসজিদকে পেছনে রেখে এক সেলফি তুলে পোস্ট করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ক্যাপশনে লেখে, ‘এটাই সেই মসজিদ, সেদিনও শুক্রবার ছিল।’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Mushfiqur Rahim (@mushfiqurofficial)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

চট্টগ্রামে আগে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল

Read Next

ম্যাচের মাঝেই করোনা পজিটিভ ক্রিকেটার, খেলা স্থগিত

Total
1
Share