আহমেদাবাদের উইকেট নিয়ে ইনজামামের অসন্তোষ, চান আইসিসির হস্তক্ষেপ

ইনজামাম উল হক
Vinkmag ad

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার ৩য় টেস্টের পিচ নিয়ে সর্বত্র চলছে আলোচনা-সমালোচনার। সাবেক ক্রিকেটার, ধারাভাষ্যকার এবং বিজ্ঞজনেরা পিচের কড়া সমালোচনা করেছেন। তবে ভারতীয় ক্রিকেটাররা পিচের পক্ষে রায় দিয়েছেন।

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল-হক সম্প্রতি এই আলোচনায় যোগ দেন। তিনি বলেন পিচ নিয়ে ভারতের বিপক্ষে আইসিসির কিছু ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

‘কেউই ভাবতে পারেনি কিংবা আমারও মনে নাই সর্বশেষ কবে কোন টেস্ট ২ দিনে শেষ হয়েছিল। ভারত কি আসলেই ভালো খেলছে, নাকি উইকেটের আচরণ এমন ছিল?’ নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বলেন ইনজামাম।

‘আমি জানতাম ভারত বেশ ভালো ক্রিকেট খেলছিল। তারা অস্ট্রেলিয়াকে তাদের মাটিতে হারিয়েছে। অজিদের বিপক্ষে ২য় টেস্ট থেকে চমৎকারভাবে কামব্যাক করেছিল। কিন্তু এমন উইকেট প্রস্তুত করা ক্রিকেটের জন্য মঙ্গলজনক হয়।’

‘এমনকি আহমেদাবাদের টেস্টের স্কোরের থেকেও টি-টোয়েন্টিতে বেশি রান হয়। এ ব্যাপারে আইসিসির ব্যবস্থা নিতে হবে। এটা কি ধরণের উইকেট যে একটা টেস্ট ম্যাচ মাত্র ২ দিনে শেষ হয়ে যায়?’

‘একদিনে ১৭ উইকেটের পতন হয়েছে। আমরা কি এখানে খেলতে এসেছি? অবশ্যই আপনি নিজের কন্ডিশনের সুবিধা নিবেন, স্পিন ট্র‍্যাক বানানো যাবে। কিন্তু এ ধরণের পিচের অস্তিত্বই থাকার দরকার নেই।’

ইনজামাম জানান স্পিন সহায়ক উইকেট তৈরি করাটা ঠিক আছে, কিন্তু এমন ধরণের পিচ করা উচিত না, যেখানে ২ দিনে একটা টেস্ট শেষ হয়ে যায়।

‘একজন সাবেক ক্রিকেটার হিসেবে আমি মনে করি এমন পিচ তৈরি করা উচিত না। আমাদের উপমহাদেশে যারা খেলতে আসে, স্পিন সহায়ক উইকেটে খেলা হবে, এটাই মনে করে প্রস্তুতি নিয়ে আসে। তবে এমন উইকেট তৈরি করা কখনও কাম্য না।’

‘সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজে একটা টেস্টের কথা মনে আছে, যেখানে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১২০ রান, হাতে ছিল ১০ উইকেট। ভারত সেখানে মাত্র ৮১ রানে অলআউট হয়ে যায়।’

‘রুট যদি মাত্র ৬ ওভার বল করে ৫ উইকেট পায়, তাহলে বুঝুন পিচের অবস্থা কেমন ছিল। আমি কীভাবে রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং আক্সার প্যাটেলের প্রশংসা করবো, যেখানে রুট মাত্র ৮ রানে ৫ উইকেট পায়?’

‘টেস্ট ম্যাচে ভেন্যু, আম্পায়ার, গ্রাউন্ড, রেফারির মত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে। পিচেরও কার্যকরী প্রভাব রয়েছে।’

‘টেস্ট ম্যাচ অবশ্যই টেস্ট ম্যাচের মতই হতে হবে। অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ভারত যে সন্তুষ্টি পেয়েছিল, ইংল্যান্ডকে হারিয়ে একই ধরণের অনুভূতি তারা পায়নি,’ ইনজামাম জানান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আবুধাবি টেস্টে ২ দিনেই আফগানদের হারিয়ে দিল জিম্বাবুয়ে

Read Next

বোর্ড সভাপতির নামে ভুয়া আইডি, আইনী পথে বিসিবি

Total
2
Share