আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ: মনোনীত হলেন যারা

আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ: মনোনীত হলেন যারা
Vinkmag ad

দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সম্প্রতি চালু করেছে প্লেয়ার অব দ্য মান্থ প্রথা। পুরুষ ও নারীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পারফরম্যান্সের বিচারে আইসিসি বেছে নেয় মাসের সেরা ক্রিকেটার। তিন ফরম্যাটই আসে বিবেচনায়।

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের জন্য মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করেছে আইসিসি।

পুরুষদের মধ্যে মনোনীত হয়েছেন- ভারতের রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ইংল্যান্ডের জো রুট ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইল মায়ের্স।

নারীদের মধ্যে মনোনীত হয়েছেন- ইংল্যান্ডের ট্যামি বিউমন্ট ও ন্যাট শিভার এবং নিউজিল্যান্ডের ব্রুক হ্যালিডে।

ICC Player of the Month - Men
Photo: ICC

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ৩ টেস্টে দাপুটে পারফরম্যান্স ভারতীয় অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। ব্যাট হাতে করেছেন সেঞ্চুরি, স্পর্শ করেছেন ৪০০ উইকেটের মাইলফলক। ১৭৬ রান করে ও ২৪ উইকেট নিয়ে আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ (ফেব্রুয়ারি, ২০২১) এ মনোনীত হয়েছেন অশ্বিন।

এই ৩ টেস্টে অশ্বিনদের (ভারত) বিপক্ষে খেলা ইংলিশ দলপতি জো রুট করেছেন ৩৩৩ রান, নিয়েছেন ৬ উইকেটও। প্রথম টেস্টে তার ২১৮ রানে ভর করেই ম্যাচ জিতেছিল ইংল্যান্ড। এমন পারফরম্যান্স দিয়ে মনোনীত হয়েছেন রুট।

মনোনীত হয়েছেন টেস্ট অভিষেকেই ইতিহাস গড়া কাইল মায়ের্সও। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে ২য় ইনিংসে ম্যাচ জেতানো ডাবল সেঞ্চুরি করে উইন্ডিজদের জিতিয়েছিলেন মায়ের্স।

February Player of the Month - Women
Photo: ICC

নারীদের মধ্যে মনোনীত ট্যামি বিউমন্ট নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংস খেলে জিতিয়েছেন ইংল্যান্ডকে। ৩ ওয়ানডে খেলে ৩ টিতেই ৫০ এর গন্ডি পার করা বিউমন্ট করেছেন ২৩১ রান।

নিউজিল্যান্ডের ব্রুক হ্যালিডে ৩ ওয়ানডেতে (ইংল্যান্ডের বিপক্ষে) ১১০ রান করার পাশাপাশি নিয়েছেন ২ উইকেট। চতুর্থ নারী ক্রিকেটার হিসাবে ব্রুক হ্যালিডে নিজের প্রথম দুই ওয়ানডেতে ফিফটি করেছেন।

ইংল্যান্ডের ন্যাট শিভার বল হাতে ৫ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি করেছেন ৯৬ রান (নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা ৩ ওয়ানডেতে)। এই সিরিজে শিভার ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ এর ভোটিং প্রসেসঃ

দুই ক্যাটাগরিতে (নারী ও পুরুষ) মনোনীতরা শর্টলিস্টেড হন এক মাসে অন ফিল্ডে তাদের পারফরম্যান্স ও মাসে তাদের অর্জন দিয়ে।

মনোনীতরা আইসিসির স্বাধীন ভোটিং অ্যাকাডেমি ও বিশ্বজুড়ে সমর্থকদের ভোট পান। সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া ক্রিকেটার হন আইসিসি ক্রিকেটার অব দ্য মান্থ। ভোটিং অ্যাকাডেমি তাদের ভোট দেন ই-মেইলের মাধ্যমে, ভোতের ৯০ শতাংশ নির্ধারিত হয় তাদের ভোটের মাধ্যমে। বাকি ১০ শতাংশ থাকে সমর্থকদের আওতায়।

আইসিসি প্রতি মাসের দ্বিতীয় সোমবার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে তাদের ডিজিটাল চ্যানেলে।

আইসিসি ভোটিং অ্যাকাডেমিঃ

আফগানিস্তান- হামিদ কাইয়ুমি ও জাভেদ হাকিম, অস্ট্রেলিয়া- অ্যাডাম কলিন্স ও লিসা স্থালেকার, বাংলাদেশ- তারেক মাহমুদ ও মোহাম্মদ ইসাম, ইংল্যান্ড- কালিকা মেহতা ও ক্লেয়ার টেইলর, ভারত- মনা পার্থস্বারথী ও ভিভিএস লক্ষণ, নিউজিল্যান্ড- মার্ক গিন্টি ও জন রাইট, পাকিস্তান- সোহেল ইমরান ও রমিজ রাজা, দক্ষিণ আফ্রিকা- ফিরদোস মুন্ডা ও মাখায়া এনটিনি, শ্রীলঙ্কা- চাম্পিকা ফার্নান্দো ও রাসেল আরনল্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ইয়ান বিশপ ও অ্যান্ডি রবার্টস, জিম্বাবুয়ে- ট্রিস্টান হোম ও পুমেলেলো এম্বাঙ্গুয়া, অন্যান্য- একেএস সাতিশ ও প্রিস্টন মমসেন।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আক্ষেপ নেই সোহানের, দুষলেন টিম কম্বিনেশনকে

Read Next

সিলেটে বাঘিনীদের তিন দলীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

Total
2
Share