ক্রিকেটারদের সাহস দিতে বিসিবি সভাপতির বিশেষ সভা

ক্রিকেটারদের সাহস দিতে বিসিবি সভাপতির বিশেষ সভা

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ভরাডুবির পর খুব বেশি সময় পাননি ক্রিকেটাররা। এমনকি কোন অনুশীলন ক্যাম্প ছাড়াই আগামীকাল (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে টাইগাররা। সফরে সমান তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। তার আগে আজ ক্রিকেটারদের সাহস জুগাতে বৈঠক করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

একদিকে নিউজিল্যান্ডের মত বিরুদ্ধ কন্ডিশন, অন্যদিকে দেশে ছিলনা কোন প্রস্তুতি ক্যাম্প। ফলে ক্রিকেটারদের জন্য ব্যাপারটা কঠিন হবে জানেন বিসিবি সভাপতিও। স্কোয়াডের সবাইকে না পেলেও বেশ কয়েকজন সদস্যকে নিয়ে আজ বিসিবি কার্যালয়ে বসেন নাজমুল হাসান পাপন। ক্রিকেটার ছাড়াও এদিন বোর্ড কর্তা ও কোচদের সাথেও আলোচনা হয় বিসিবি বসের।

বিকেলে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ক্রিকেটারদেরসাহস জুগানো প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘এখানে বেসিক্যালি যে জিনিসটা হয়েছে যে, টিম যেহেতু নিউজিল্যান্ডে যাচ্ছে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে যেহেতু আমাদের লাস্ট দুটো টেস্ট ম্যাচ ভালো হয়নি, খারাপ হয়েছে, কাজেই ওদের সাথে একবার দেখা করা দরকার যাওয়ার আগে, আমি ইন্ডিভিজুয়ালি সিনিয়র প্লেয়ারদের সাথে বসেছিলাম, বাট পুরো টিমের সাথে তো বসা হয়নি। ফুল স্কোয়াড যারা যাচ্ছে, তাদের সাথে বসা, তাদেরকে একটু সাহস দেওয়া এবং তাদেরকে শুভকামনা করা। এই ছিল বেসিক অবজেকটিভ আজকে, ওদের সাথে বসার জন্য।’

২০২৩ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশক থাকতে হবে ব্যস্ত সূচির মধ্যে। নিউজিল্যান্ড সফর থেকে এসেই যেতে হবে শ্রীলঙ্কায়। এর পরপরই শ্রীলঙ্কা আসবে বাংলাদেশে। এভাবে দেশে বিদেশে একের পর এক থাকবে সিরিজ। আর এই ব্যস্ত সূচিতে সুষ্ঠ একটি পরিকল্পনা চেয়ে বোর্ড পরিচালকদের সাথে আলোচনা করেছেন বিসিবি সভাপতি।

এ প্রসঙ্গে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমরা বোর্ডের সাথেও বসেছিলাম। সামনে খুব শিগগিরই তারা আমাকে একটা প্ল্যান তৈরি করে দিবে, আগামীতে এই দুটো সিরিজের পরেও তো আমাদের কন্টিনিউয়াস খেলা, কবে কী করছি-না করছি, এগুলা নিয়ে। প্রথমে বসেছিলাম প্লেয়ারদের সাথে, পরে বোর্ডের যারা এসেছে, তাদের সাথে বসেছিলাম। তারপরে কিছুক্ষণের জন্য একটু কোচদের সাথেও বসেছিলাম।’

কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর আমলে দলের সাথে বোর্ড পরিচালকদের সরাসরি কাজ করার ব্যাপারে বেড়েছে দূরত্ব। তার আগে কখনো খালেদ মাহমুদ সুজনকে দেখা যেত সবচেয়ে বেশি। এবার সেই ধারাতে আবারও পা দিচ্ছে বিসিবি। নিউজিল্যান্ড সফরে দলের সাথে যাচ্ছেন পরিচালক জালাল ইউনুস। ভবিষ্যতেও এটি চলমান থাকবে। একজন বোর্ড পরিচালক দলের সঙ্গে থাকবেন বলে জানান পাপন।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আগে একটা সমস্যা ছিল যে, যোগাযোগে ফারাকটা অনেক বড় হয়ে দাঁড়িয়েছিল সম্প্রতি। সেটাকে দূর করার জন্য যেমন এবারের নিউজিল্যান্ড সিরিজে আমাদের জালাল (জালাল ইউনুস) ভাই যাচ্ছে, বোর্ড থেকে, টিমের সাথে এবং এখন থেকে, এটা আজকে আবার সবাইকে বলে দেওয়া হয়েছে যে, এটা বাধ্যতামূলক যে, কেউ না কেউ, হয় খালেদ মাহমুদ সুজন অথবা দুর্জয় কেউ না কেউ যাবে। এখন থেকে থাকবে, টিমের সাথে থাকবে। সেই সুবিধাটা হবে যাতে করে আর কমিউনিকেশন গ্যাপ না হয়।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

৩ দিনের মাথায় ভাসের পদত্যাগ, ক্ষিপ্ত লঙ্কান বোর্ড

Read Next

‘ব্রিবত ঠিক না, মন খারাপ’

Total
9
Share