যেকারণে সাকিবের আইপিএল অগ্রাধিকার ইতিবাচক ফারুকের চোখে

যেকারণে সাকিবের আইপিএল অগ্রাধিকার ইতিবাচক ফারুকের চোখে

সন্তান সম্ভাবা স্ত্রীর পাশে থাকতে নিউজিল্যান্ড সফরের দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু এরপরের সিরিজেও তাকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। এবার আইপিএল খেলতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে খেলবেন না বলেও ছুটি নিয়ে নেন টাইগার অলরাউন্ডার। দেশের হয়ে খেলার চাইতে আইপিএলকে বেশি গুরুত্ব দেওয়াতে বেশ সমালোচিতও হচ্ছেন তিনি। তবে জাতীয় দলের সাবেক নির্বাচক ফারুক আহমেদ বলছেন এটা উৎসাহ দেওয়ার মত কোন বিষয় না হলেও নতুন কোন ঘটনা নয়।

আইপিএল তথা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের আবির্ভাবের পর টেস্ট ক্রিকেট খেলার আগ্রহ হারায় অনেকেই। অনেক তারকা ক্রিকেটারও সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ক্রিকেটে ক্যারিয়ার লম্বা করতে বিদায় বলে সাদা পোশাকের ক্রিকেটকে। তবে বাংলাদেশের সংস্কৃতিতে এমন কিছুর নজির এবারই প্রথম। এর আগে ক্রিকেটাররা ছুটি নিলেও সেটি বিশ্রাম কিংবা পারিবারিক কারণে। জাতীয় দলের খেলা ছেড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলার ছুটির ঘটনা এবারই প্রথম।

বোর্ডের অনুমতি দেওয়ার ব্যাপারটিকেও অনেকে নেতিবাচকভাবে দেখছেন। কিন্তু জাতীয় দলের সাবেক নির্বাচক ফারুক আহমেদ জানালেন ছুটি না দিয়ে সাকিবের মন খারাপ করানোটা হীতে বিপরীত হতে পারতো। পুরো মনযোগী সাকিবকে পাওয়া যেত না বাংলাদেশের ম্যাচে। এদিকে সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বলে সাকিবের আইপিএল খেলাটা কাজে দিবে বলেও মত ফারুক আহমেদের।

কক্সবাজারে চলমান লিজেন্ড চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নারায়ণগঞ্জ ওয়ারিয়র্সের মেন্টর ফারুক আহমেদ উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আজ (১৯ ফেব্রুয়ারি) কথা বলেন।

আইপিএলের কারণে সাকিবের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ থেকে সরে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সাকিবকে আমরা নিউজিল্যান্ডে পাচ্ছিনা, আবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও পাচ্ছিনা। এ ক্ষেত্রে আমি যেটা বলি এম্পয়ই এম্পলয়ারের ব্যাপার। সাকিব আমাদের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার, বোর্ড তার অথোরিটি। সে ছুটি চেয়েছে, বোর্ড সেটা অনুমোদন দিয়েছে।’

‘দুইটা ব্যাপার আছে, এক বছরের বেশি সময়ের একটা বিরতি ছিল তার এবং প্রথম টেস্টেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চোটে পড়ে টেস্ট সিরিজটি শেষ করতে পারেনি। আমার মনে হয় এখান থেকে ও ফিটনেসে আরেকটু কাজ করে…’

‘আর টি-টোয়েন্টিতে ব্যাপারটা অন্যরকম, শুধু ম্যাচ খেলে আসা যায়। সারা পৃথিবীতেই যদি দেখেন অনেক প্লেয়ার আছে যারা আইপিএল আসার পর অবসরে চলে গেছে। মানে তাদের দেশের হয়ে খেলার থেকে। এটাকে আমি উৎসাহী করছি না। কিন্তু এটা কিন্তু হয়েছে নতুন না।’

ব্যক্তিগতভাবে সাকিবকে টেস্টের চেয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই বেশি মিস করবেন সাবেক এই নির্বাচক, ‘আমার মনে হয় নিউজিল্যান্ডে ওকে আমাদের বেশি দরকার ছিল। যেটা আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি। কোনভাবে যদি সে নিউজিল্যান্ড সফরটা করতে পারতো আমাদের দলের জন্য শক্তিমত্তা বৃদ্ধির দিক থেকে অনেক অনেক শক্ত হত। ফরম্যাটটা তাকে স্যুট করে। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি। যা তাকেও হেল্প করতো আইপিএলে।’

‘আপনি বলতে পারেন দেশের স্বার্থে খেলছেনা, বাইরে খেলছে। এটা অন্য একটা বিতর্ক। কিন্তু বোর্ড হয়তো অনেক কিছু চিন্তা করেছে। কেউ যদি মনযোগ দিয়ে খেলতে না চায়। দেখেন ও যদি আইপিএল চুক্তি মিস করে মন খারাপ করে তখন কিন্তু পুরো খেলোয়াড় হিসেবে ওকে পাবে না। এটা হয়তো বোর্ড ভারসাম্য করার চেষ্টা করেছে। হয়তো ভেবেছে টেস্ট দুইটা না খেললেও চলবে। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে আমি ওকে ব্যক্তিগতভাবে বেশি মিস করবো।’

এদিকে চলতি বছরেই মাঠে গড়াতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে আইপিএল খেলাটা সাকিবের জন্য কাজে দিবে বলেও বিশ্বাস করেন ফারুক আহমেদ, ‘সাকিব আমাদের জন্য একটা ব্র্যান্ড। দেখেন সে এক বছর খেলার বাইরে ছিল তাও ব্যাটিংয়ে কিছুটা অস্বস্তি দেখা গেলেও বোলিংয়ে কিন্তু সে সেরাটাই করেছে। লাস্ট আইপিএলে যখন সে ভালো খেলছিল না, অনেক ম্যাচে সুযোগও পাচ্ছিলনা এরপরও এসে বিশ্বাকাপে কি পারফর্মটা করলো।’

‘সেঞ্চুরি, উইকেট মানে সেরা পারফর্মার। সে অনেক কিছু করতে পারে। সে ক্ষেত্রে আমি মনে করি আইপিএলটা ওকে বিশ্বকাপের জন্য ভালো সাহায্য করতে পারে। একটা বা দুইটা প্লেয়ার কিন্তু দলকে অনেক দূর টেনে নিতে পারে। তাই আমি আশা করি আইপিএল তাকে বিশ্বকাপের জন্য ভালোভাবে সাহায্য করতে পারে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের দল ঘোষণা

Read Next

শ্রীলঙ্কার ফাস্ট বোলিং কোচ হলেন চামিন্দা ভাস

Total
8
Share