টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ফাফ ডু প্লেসিস

টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ফাফ ডু প্লেসিস

টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ ডু প্লেসিস। নিজের ইনস্টাগ্রাম আইডিতে এক বিবৃতি দিয়ে সাদা পোশাক তুলে রাখার ঘোষণা দেন তিনি।

বিবৃতির এক অংশে তিনি লেখেন, ‘আমার দেশের হয়ে সব ফরম্যাটে খেলা গর্বের ব্যাপার। তবে সময় এসেছে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেবার।’

‘আমাকে যদি ১৫ বছর আগে কেউ বলত যে আমি দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৬৯ টেস্ট ম্যাচ খেলব, দলকে নেতৃত্ব দিবো, তবে আমি তাদের সেকথা বিশ্বাস করতাম না।’

টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলার পেছনে ফাফ কারণ হিসাবে দেখিয়েছেন দুই টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে নিজের ফোকাস এই ফরম্যাটে দেওয়াকে।

‘আগামী দুই বছরে দুইটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যেকারণে আমার ফোকাস এই ফরম্যাটের দিকে সরে গেছে। আমি বিশ্বজুড়ে এই ফরম্যাটের ম্যাচ যত বেশি সম্ভব খেলতে চাই যাতে করে আমি সেরা একজন ক্রিকেটার হয়ে উঠতে পারি। আমি বিশ্বাস করি এই ফরম্যাটে আমার প্রোটিয়া দলে অনেক কিছু দেবার আছে। এর মানে এই না যে ওয়ানডে ক্রিকেট নিয়ে আমার আর ভাবনা নেই। আমি স্বল্পমেয়াদে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে প্রাধান্য দিচ্ছি।’

অবসর ইস্যু ও দলের সঙ্গে ভবিষ্যত নিয়ে ফাফ ডু প্লেসিস বোর্ডের সঙ্গে বসবেন। টেস্ট ক্যারিয়ারের পেছনে যাদের ভূমিকা তাদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Faf du plessis (@fafdup)

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৬৯ টি টেস্ট খেলেছেন ফাফ ডু প্লেসিস। ১১৮ ইনিংসে ব্যাট করে রান করেছেন ৪১৬৩। ব্যাটিং গড়টা ৪০.০২, সেঞ্চুরি করেছেন ১০ টি, ফিফটি আছে ২১ টি। সেঞ্চুরিয়ানে গেলবছরের ডিসেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছিলেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। ২৭৬ বলে ১৯৯ রান করে আউট হয়েছিলেন তিনি।

২০১২ সালের ২২ নভেম্বর অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয় ফাফ ডু প্লেসিসের। ১ম ইনিংসে ৭৮ রান করা ফাফ দ্বিতীয় ইনিংসে ১১০ রান করে অপরাজিত থাকেন। ড্র হওয়া ম্যাচে ম্যাচসেরা হন তিনি।

ফেব্রুয়ারিতে রাওয়ালপিন্ডিতে খেলেছেন সর্বশেষ টেস্ট। সেখানে অবশ্য কথা বলেনি ফাফের ব্যাট। ১ম ইনিংসে ১৭ রান করেছেন, দ্বিতীয় ইনিংসে করেছেন ৫ রান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

এখন অব্দি দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট ইতিহাসের ১০ম সর্বোচ্চ টেস্ট রানের মালিক ফাফ ডু প্লেসিস। দক্ষিণ আফ্রিকায় তার চেয়ে বেশি টেস্ট শতক আছে কেবল ৯ জনের।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে টেস্ট ফরম্যাটে মোট ৩৬ টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। তার চেয়ে বেশি ম্যাচে প্রোটিয়াদের নেতৃত্ব দেওয়া অধিনায়ক কেবল দুইজন- হ্যান্সি ক্রোনিয়ে (৫৩) ও গ্রায়েম স্মিথ (১০৮)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

একাধিক তারকা ছাড়া জিম্বাবুয়ের টেস্ট দল ঘোষণা

Read Next

যেকারণে মুলতান সুলতান্সের অধিনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান

Total
5
Share