লিটন-মিরাজ জুটিতে বাংলাদেশময় এক সেশন

লিটন-মিরাজ জুটিতে বাংলাদেশময় এক সেশন

৩য় দিন বাংলাদেশ দল যখন মধ্যাহ্ন ভোজের বিরতিতে যায় তখন দল স্বস্তিতে ছিল না মোটেও। ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলা টাইগাররা যে তখনো ফলো অনে পড়ার শঙ্কায়। মেহেদী হাসান মিরাজের সঙ্গে ২৫ রানের জুটি গড়ে দলের অবস্থান ভদ্রস্থ করার দায়িত্বে ছিলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাস।

মধ্যাহ্ন ভোজের বিরতির পর ৯ম ওভারে যেয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তির নিঃশ্বাস। রাখিম কর্নওয়ালের বলে মিড উইকেটে ফ্লিক করে মেহেদী হাসান মিরাজের সিঙ্গেলে বাংলাদেশ এড়ায় ফলো অন।

এর আগে ব্যক্তিগত মাইলফলক স্পর্শ করেন লিটন দাস। ৬৬ তম ওভারের শেষ বলে কর্নওয়ালকে ডিপ মিডউইকেট দিয়ে হাকানো বাউন্ডারিতে পূর্ণ করেন টেস্ট ক্রিকেটে ১০০০ রান। লিটন অবশ্য থামেননি এটুকুতেই।

৭৬ তম ওভারের শুরুর দুই বলে এনক্রুমাহ বোনারকে ব্যাক টু ব্যাক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে পূর্ণ করেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ৭ম ফিফটি।

লিটন-মিরাজ জুটি ১০০ রানের গন্ডি পার করে ৮১ তম ওভারে। দ্বিতীয় নতুন বল হাতে নেওয়া শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের লেগ সাইডে করা শর্ট বল ফাকি দেয় মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাট, গ্লাভস হাতে উইকেটের পেছনে তা ধরার সুযোগ ছিল না জশুয়া ডা সিলভার। বাই সূত্রে আসা সেই চার রানে জুটিতে পূর্ণ হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ১০০ রান।

নতুন বল পেয়ে শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ও কাইল মায়ের্স সুযোগ তৈরি করছিলেন বেশ। স্লেজিংয়ে মিরাজকে তাতিয়ে দেবার চেষ্টা একাধিকবার করেছেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। মাঝে অন ফিল্ড আম্পায়ারের কাছে নালিশও দেন মিরাজ।

চট্টগ্রামে ১ম ম্যাচে সেঞ্চুরি করা মিরাজ ফিফটি (ক্যারিয়ারের ৩য়) পূর্ণ করেন ১১২ বলে, সেটা গ্যাব্রিয়েলের বলে স্কয়ার লেগে ফ্লিক করে ৩ রান নিয়ে। সেই ওভারেই দ্বিতীয় বলে শর্ট বলে দারুণ এক শটে বাউন্ডারি আদায় করে নিয়েছিলেন।

৩য় দিনের ২য় সেশন নিজেদের করে নেন লিটন ও মিরাজ। ২৭ ওভারে ৯১ রান তুলে দুজনে স্বস্তিতে যান চা বিরতিতে। এখনো অবশ্য লম্বা পথ বাকি, বাংলাদেশ পিছিয়ে ১৩৭ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (৩য় দিন, চা বিরতি পর্যন্ত):

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪০৯/১০ (১৪২.২), ব্র্যাথওয়েট ৪৭, ক্যাম্পবেল ৩৬, মোসলে ৭, বোনার ৯০, মায়ের্স ৫, ব্ল্যাকউড ২৮, জশুয়া ৯২, জোসেফ ৮২, কর্নওয়াল ৪*, ওয়ারিক্যান ২, গ্যাব্রিয়েল ৮; রাহি ২৮-৬-৯৮-৪, মিরাজ ৩৩-৯-৭৫-১, তাইজুল ৪৬.২-৮-১০৮-৪, সৌম্য ১১-১-৪৮-১।

বাংলাদেশ ২৭২/৬ (৮৮), তামিম ৪৪, সৌম্য ০, শান্ত ৪, মুমিনুল ২১, মুশফিক ৫৪, মিঠুন ১৫, লিটন ৬৬*, মিরাজ ৫৩*; গ্যাব্রিয়েল ১৭-৩-৬১-২, কর্নওয়াল ২৮-৮-৬০-৩, জোসেফ ১৭-৩-৫৯-১

বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ১৩৭ রানে পিছিয়ে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মিরপুরে ধুকছে বাংলাদেশ

Read Next

এখনো ঘোরের মধ্যে আছেন রাজ্জাক

Total
13
Share