বোনার-জশুয়া-জোসেফের ব্যাটে চড়ে উইন্ডিজের ৪০০ পার

বোনার-জশুয়া-জোসেফের ব্যাটে চড়ে উইন্ডিজের ৪০০ পার

দিনের প্রথম সেশন কোন অস্বস্তি ছাড়া কাটিয়ে দেওয়া ক্যারিবিয়ানরা স্বিতীয় সেশনে যেন আরও বেশি সাবলীল। তবে চা বিরতির আগে ২৩ রানের ব্যবধানে শেষ চার উইকেট হারিয়ে ৪০৯ রানেই থামে তাদের রানের চাকা।

৬ উইকেটে ৩৯৫ রান নিয়ে লাঞ্চে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ জশুয়া ডা সিলভা ও আলঝারি জোসেফের ব্যাটে বড় সংগ্রহের পথেই হাঁটছিল। দুজনে মিলে জুটিতে যোগ করেন ১১৮ রান। এনক্রুমাহ বোনারের পর সেঞ্চুরি মিস করেছেন সিলভাও। বোনারের ৯০ এর পর সিলভা থেমেছেন ৯২ রানে, তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে।

উইকেট রক্ষক এই ব্যাটসম্যান দেখেশুনে খেলার চেষ্টা করলেও জোসেফ খেলেছেন অনেকটা ওয়ানডে মেজাজে। পুরো দিনই বল হাতে দারুণ কিছু করতে না পারা তাইজুলের বলে সিলভা বোল্ড হলে ভাঙে দুজনের জুটি। তার আগে করেছেন ১৮৭ বলে ১০ চারে ৯২ রান।

৮৪ বলে ফিফটি করা জোসেফ ফিরেছেন আবু জায়েদ রাহির শিকার হয়ে। তার আগে তিনিও ছুটছিলেন সেঞ্চুরির পথেই। ১০৮ বলে ৮ চার ৫ ছক্কায় খেলেন ৮২ রানের ইনিংস।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

সিলভা-জোসেফের বিদায়ের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংস টিকেছে মাত্র ২৭ বল। জোমেল ওয়ারিক্যানকে (২) রাহি নিজের চতুর্থ শিকারে পরিণত করেন। শ্যানন গ্যাব্রিয়েল (৮) ফিরেছেন তাইজুলের চতুর্থ শিকার হয়ে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলআউট হওয়াতে নির্ধারিত সময়ের ১৫ মিনিট আগেই চা বিরতিতে যায় দুই দল।

ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছে ভুলে যাবার মত। প্রতিবেদন লেখা অব্দি কোন রান না করে আউট হয়েছেন সৌম্য সরকার, ৪ রান করে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন, ২য় সেশন শেষে):

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪০৯/১০ (১৪২.২), ব্র্যাথওয়েট ৪৭, ক্যাম্পবেল ৩৬, মোসলে ৭, বোনার ৯০, মায়ের্স ৫, ব্ল্যাকউড ২৮, জশুয়া ৯২, জোসেফ ৮২, কর্নওয়াল ৪*, ওয়ারিক্যান ২, গ্যাব্রিয়েল ৮; রাহি ২৮-৬-৯৮-৪, মিরাজ ৩৩-৯-৭৫-১, তাইজুল ৪৬.২-৮-১০৮-৪, সৌম্য ১১-১-৪৮-১।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দ্বিতীয় টেস্টের জন্য ইংল্যান্ড দল ঘোষণা

Read Next

ওয়াসিম জাফরের পাশে কুম্বলে, পাঠান, তিওয়ারি

Total
2
Share