ডিআরএস ইস্যুতে মুমিনুলের ভাষ্য

ইস্যুতে মুমিনুলের ভাষ্য

চট্টগ্রাম টেস্টে হারের পেছনে বাংলাদেশ যে জায়গায় আক্ষেপ করতে পারে তার একটি নিশ্চিতভাবে পঞ্চম দিন সকালে দুইটি রিভিউ না নেওয়া। মিরপুর টেস্ট শুরুর আগেরদিন টাইগার কাপ্তান মুমিনুল হক বলছেন দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হয় বলে তৈরি হয় দ্বিধা। তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্ত নিতে হয় বলে এসব নিয়ে খুব বেশি আলোচনার কিছু দেখেননা মুমিনুল।

সাগরিকায় রেকর্ড গড়ে জেতা ম্যাচে অভিষিক্ত ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান কাইল মায়ের্স খেলেছেন অপরাজিত ২১০ রানের ইনিংস। তবে মায়ের্স ফিরতে পারতেন ফিফটির আগেই। পঞ্চম দিনে সকালে তার বিপক্ষে এলবিডব্লিউয়ের জোরালো আবেদন করেন তাইজুল ইসলাম ও নাইম হাসান। দুইবারই আম্পায়ার নট আউট দিলেও টিভি রিপ্লে তে দেখা যায় বল হিট করেছে মায়ের্সের স্টাম্প।

তবে দুইবারই রিভিউ নেওয়ার সুযোগ থাকলেও নেয়নি বাংলাদেশ। পরে মায়ের্সের ক্যাচও মিস করে স্লিপে দাঁড়ানো শান্ত। এর আগে নিজেদের ব্যাটিং ইনিংসেও সাদমান ইসলাম যে বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন সেটি উইকেটই মিস করে। রিভিউ নেননি সাদমান কিংবা নন স্টাড়িক প্রান্তে দাঁড়ানো মুশফিক। গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে না নিলেও ম্যাচে বেশ কয়েকটি বাজে রিভিউ নেয় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগেরদিন টাইগার দলপতি মুমিনুল হক এড়িয়ে যেতে চাইলেন বিষয়টি। আজ (১০ ফেব্রুয়ারি) ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্ত নিতে হয় বলেই এসব নিয়ে খুব বেশি কথা বলতে চান না।

মুমিনুল বলেন, ‘এগুলো (রিভিউ) তো তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্ত, এগুলো নিয়ে আসলে অত বেশি কথা বলার কিছু নাই। আমার কাছে মনে হয় তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্তগুলো মাঝে মাঝে কনফিউশন হয়ে যায়। খুব কম সময় থাকে সিদ্ধান্তগুলো নেওয়ার জন্য। তো এগুলা নিয়ে আপনার অত বেশি কথা বলার কিছু নাই। আমার কাছে যেটা মনে হয় যে তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্তগুলো ওভাবেই নিতে হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দলের সঙ্গে জুমে মিটিং করবেন বিসিবি সভাপতি

Read Next

বাংলাদেশের যেসব সিরিজ নিশ্চিতভাবে বাতিল হচ্ছে

Total
3
Share