দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে আক্ষেপ সাকিবের উইকেট

দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে আক্ষেপ সাকিবের উইকেট

টেস্ট মেজাজে খেলতে নিজেকে যতটা নিয়ন্ত্রণের প্রয়োজন ঠিক ততটাই দেখালেন সাকিব আল হাসান। সিরিজ শুরুর আগে নেটে ব্যাটিং অনুশীলনে যা চেষ্টা করেছেন তারই প্রতিফলন পড়ছিল ম্যাচেও। তবে দারুণ এক সেশন কাটাতে যাওয়া সাকিব লাঞ্চের কয়েক ওভার আগেই রাখিম কর্নওয়ালের বলে ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটকে সহজ এক ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন ৬৮ রান করে। দিনের শুরুতেই লিটন দাসের উইকেট হারানো বাংলাদেশ সেশনটি পুরোপুরি নিজেদের করে নিতে পারলোনা।

৫ উইকেটে ২৪২ রান নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুরু করা বাংলাদেশ লাঞ্চে গেল ৭ উইকেটে ৩২৮ রান তুলে। ৪৬ রানে মেহেদী হাসান মিরাজ ও ৫ রানে অপরাজিত আছেন তাইজুল ইসলাম।

আগেরদিন শেষ সেশনে সাকিব-তামিম যেভাবে ব্যাট করছিল তাতে আজ দুজনের কাছে প্রত্যাশা ছিল বেশি। কিন্তু ম্যাচে এখনো পর্যন্ত ক্যারিবিয়ানদের সফল বোলার স্পিনার জোমেল ওয়ারিক্যানের শিকার হয়ে লিটন ফিরেছেন দ্রুতই। দুজনের আগের দিনের ৪৯ রানের জুটিতে যোগ হয়েছে কেবল ৬ রান। ৩৪ রানে দিন শুরু করা লিটন ফিরেছেন ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ওয়ারিক্যানের বলে বোল্ড হয়ে। নিজের নামের পাশে আজ যোগ করতে পেরেছেন কেবল ৪ রান।

লিটনের বিদায়ের পর মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে অবশ্য দারুণ এক জুটি গড়েন সাকিব। আগেরদিন ব্যক্তিগত ৩৯ রানে দিনশেষ করা সাকিব আজ দিনের ৭ম ওভারেই তুলে নেন নিজের ২৫ তম টেস্ট ফিফটি। এক বছরের বেশি সময় পর সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ফিরে দেখিয়েছেন নিয়ন্ত্রণ, বলের গতিবিধি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণের নজির। ১১০ বলে ৫ চারে ফিফটি ছোঁয়া সাকিব আন্তত লাঞ্চের আগে ফিরবেন না এমনটাই মনে হচ্ছিল।

তবে দিনের ১২ তম ওভারে আক্রমণে আসা রাখিম কর্নওয়াল ভালো ভোগাচ্ছিল সাকিব-মিরাজদের। নিজের করা দিনের তৃতীয় বলেও ফেরালেন সাকিবকে। অফ স্টাম্পের বাইরের বল কাট করতে সাকিব ক্যাচ দেন পয়েন্টে দাঁড়ানো ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটকে। সেঞ্চুরির আশা দেখিয়েও টাইগার অলরাউন্ডার ফিরেছেন ১৫০ বলে ৫ চারে ৬৮ রান করে, ভেঙেছে মিরাজের সাথে তার ৬৭ রানের জুটি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

আগেরদিন ওয়ারিক্যান বলেছেন বাংলাদশকে আঁটকে দিতে চান ৩০০ এর নিচে। সাকিব-মিরাজের জুটিতে দিনের ২০ তম ওভারেই বাংলাদেশ পেরিয়ে যায় ৩০০ রানের গন্ডি। সাকিব দেখেশুনে খেলার চেষ্টা করলেও লাঞ্চের আগে ৪৬ রানে অপরাজিত থাকা মিরাজ খেলেছেন খোলস ছেড়ে। নিজের জোনে পাওয়া বলকে চেষ্টা করেছেন বাউন্ডারিতে পাঠাতে। অপরাজিত ইনিংসটি সাজিয়েছেন ৯৩ বলে ৭ চারের সাহায্যে।

যদিও ব্যক্তিগত ২৪ রানে ওয়ারিক্যানের বলে সিলি পয়েন্টে ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান। মিরাজের উইকেটটি নিতে পারলে তখনই টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথম বার ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করে ফেলতেন বাঁহাতি স্পিনার ওয়ারিক্যান। লাঞ্চের সময় মিরাজের সাথে ৫ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন তাইজুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিনের ১ম সেশন শেষে):

বাংলাদেশ ৩২৮/৭ (১২০), সাদমান ৫৯, তামিম ৯, শান্ত ২৫, মুমিনুল ২৬, মুশফিক ৩৮, সাকিব ৬৮, লিটন ৩৮, মিরাজ ৪৬*, তাইজুল ৫*; রোচ ২০-৫-৬০-১, ওয়ারিক্যান ৩৯-৭-১০০-৪, কর্নওয়াল ২৮-৩-৬৮-১।

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বদলে গেল বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফরের সূচি

Read Next

অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা

Total
6
Share