আফগানিস্তানের বিপক্ষে হার ভুলে যেতে চান মুমিনুল

আফগানিস্তানের বিপক্ষে হার ভুলে যেতে চান মুমিনুল

চট্টগ্রামে বাংলাদেশের টেস্ট মানেই ২০১৯ সালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বড় ব্যবধানে হারই সবার আগে মনে পড়ে। আগামীকাল (৩ ফেব্রুয়ারি) সাগরপাড়ের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে মাঠে নামার আগে অবশ্য সেই স্মৃতি ভুলে যেতে চান টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক।

অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর চট্টগ্রামে প্রথমবার খেলতে নামবেন মুমিনুল হক। নিজের সবচেয়ে প্রিয় ভেন্যুও সাগরিকার এই স্টেডিয়ামটি। ৯ ম্যাচে ৭৫.৪৩ গড়ে রান করেছেন ১০৫৬। ক্যারিয়ারের ৯ সেঞ্চুরির ৬ টিই এসেছে সাগর কোলের মাঠটিতে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচেও হাঁকিয়েছেন ফিফটি।

তবে দল হিসেবে নিকট অতীতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে এখানে হারাটা এখনো মেনে নিতে কষ্ট হয় দেশের ক্রিকেট ভক্তদের। তবে পেশাদার ক্রিকেটার বলে এসব পেছনে রেখে সামনে এগোনোতেই মনযোগ অধিনায়ক মুমিনুলের। তার মতে অতীত মনে করে প্রকৃতপক্ষে কোন ইতিবাচক কিছু পাওয়া সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, ‘গতকাল আপনি যা করেছেন, তা ভালো হোক বা খারাপ হোক মনে রাখার দরকার নেই। এটা মনে রেখে আপনি কিছু পাবেনও না। আমিও একইভাবে ভাবছি। হয়ত উত্তরটা বুঝতে পেরেছেন। আফগানিস্তানের সাথে কি হয়েছিল মনে রাখতে চাই না। কালকের ম্যাচেই মনোযোগ রাখতে চাচ্ছি।’

এদিকে অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার এবারই প্রথম তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিমকে একসাথে পাচ্ছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তার উপর প্রতিপক্ষ দুর্বল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে এসব ছাপিয়ে স্বাগতিক বলেই নিজেদের ফেভারিট ভাবছে মুমিনুল হক।

তিনি বলেন, ‘ঘরের মাঠে সবসময় স্বাগতিকরা ফেভারিট থাকে। তার মানে এই নয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দুর্বল হিসেবে দেখছি। আমরা আমাদের দিকেই মনোযোগ রাখছি বেশি। আমরা মাদের সেরাটা খেলার চেষ্টা করবো।’

তরুণ অধিনায়ক হিসেবে সিনিয়র ক্রিকেটারদের দলে পাওয়াটা সুবিধা হবে বলেও মনে করেন টাইগারদের টেস্ট কাপ্তান, ‘আমার কাছে মনে হয় তরুণ অধিনায়ক হিসেবে সাকিব ভাই (বা বড় যারা আছে তাদের থাকাটা ভালো আমার জন্য)। সেই হিসেবে আমি মনে করি, আমার জন্য অনেক বেশি সুবিধা হবে (ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে কম্পিটিশন করতে)।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ঘুরে দাঁড়াতে জাদুমন্ত্রের খোঁজে মুমিনুল

Read Next

কর্নওয়ালকে নিয়ে চিন্তা নেই মুমিনুলদের

Total
5
Share