চট্টগ্রামে সাকিবের অনুশীলনে ফেরা: স্বস্তি-অস্বস্তি

চট্টগ্রামে সাকিবের অনুশীলনে ফেরা: স্বস্তি-অস্বস্তি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে কুঁচকির চোটে পড়া সাকিব আল হাসান আজ (৩০ জানুয়ারি) অনুশীলনে ফিরেছেন। তবে তার ফেরাটা অতটা স্বস্তির মনে হয়নি, বেশ কিছুক্ষণ ব্যাটিং অনুশীলন শেষে ফিজিওর সাথে আলাপের পর উঠে যান মাঠ থেকে।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে হোয়াইট ওয়াশ নিশ্চিতের ম্যাচে গত ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বল করার সময় কুঁচকিতে চোট পান। পরে ব্যথার তীব্রতা বেশি হওয়াতে ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফোতোর সাথে মাঠে ছেড়ে যান, নামতে পারেননি ম্যাচের বাকি অংশে।

এমন চোটের পর টেস্ট সিরিজ সামনে রেখে জাগে সংশয়। তবে দিন দুয়েক পর্যবেক্ষণে থাকার পর গত ২৮ জানুয়ারি চোটের জায়গায় করানো হয় স্ক্যান। স্ক্যান রিপোর্টে খারাপ কিছু ধরা না পড়লেও মাঠে অনুশীলনে ফেরার পর পরিস্থিতি পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছিলেন দলের সাথে থাকা বিসিবি চিকিৎসক।

আজ (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলনে দেখা মেলে সাকিবের। ব্যাট হাতে মাঠের দক্ষিণ-পশ্চিম পাশের নেটে দেখা মেলে সাকিবের, দলের বাকিরা তখন ম্যাচ আবহে সেন্টার উইকেটে অনুশীলন করছিলেন। সাকিব শুরুতে কয়েকজন নেট বোলারের স্পিন সামলান। নেট বোলারদের সাথে একমাত্র স্বীকৃত বোলার হিসেবে ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। কিছুটা জড়তা সারাতে ডেকে আনেন পেসার তাসকিন আহমেদকে।

তবে শুরুতে সামলাতে গিয়েও কিছুটা অস্বস্তিতে ভোগেন সাকিব। নেট বোলারদের করা বেশ কিছু বলেই চেষ্টা করেন সুইপ খেলার। তবে ব্যথার কারণে সহজাত খেলতে না পারায় বোলারদের উদ্দেশ্য করেই নিজেই বলেন সোজা খেলা যায় এমন বলই যেন করা হয়। বেশ কিছুক্ষণ এভাবে অনুশীলনের পর কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর সাথে আলাপ শেষে সেন্টার উইকেটে ব্যাট হাতে নেমে পড়েন। সেখানে তাকে বল করেন নেট বোলার মেহেদী হাসান ও টেস্টের চূড়ান্ত স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া হাসান মাহমুদ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

দুজনের অফ স্টাম্পের বাইরে করা বলগুলোকে কাট করার চেষ্টা করেন টাইগার অলরাউন্ডার। বেশ কয়েকটি বলে পরাস্তও হয়েছেন। তবে সবচেয়ে অস্বস্তির বিষয় খুব বেশিক্ষণ ছিলেন না সেন্টার উইকেটে। দ্রুতই বেরিয়ে ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতোর সাথে আলাপ করেন লম্বা সময় ধরে। মিনিট দশেকের এই আলাপ শেষে গ্লাভস-প্যাড তুলে রেখে চলে যান ড্রেসিং রুমে।

সাকিব মাঠ ছাড়লেও নিয়ম মাফিক জহুর আহমেদের সবুজ গালিচায় বিভিন্ন গ্রুপ হয়ে অনুশীলন করতে দেখা যায় টাইগার ক্রিকেটারদের। দুপুর ১ টা ৪৫ মিনিটে শুরু হওয়া অনুশীলন চলে ৪ টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে এই মাঠেই শুরু হচ্ছে ক্যারিবিয়ায়নদের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য ঘোষিত ১৮ সদস্যের স্কোয়াডে আছেন সাকিব

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশের চূড়ান্ত টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

চট্টগ্রামে ব্যাটে-বলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভালো দিন

Total
18
Share