ক্রিজে থেকে রিশাদের বোলিং যেমন দেখলেন ব্র্যাথওয়েট

ক্রিজে থেকে রিশাদের বোলিং যেমন দেখলেন ব্র্যাথওয়েট
Vinkmag ad

তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে আজ (২৯ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট খেলেছেন ৮৫ রানের লড়াকু ইনিংস। আগে ব্যাট করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিসিবি একাদশের বিপক্ষে অল আউট হয়েছে ২৫৭ রানে। ব্র্যাথওয়েটের অধিনায়কোচিত ইনিংসের বিপরীতে বিসিবি একাদশের সেরা বোলার লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন। পাঁচ উইকেট নেওয়া এই তরুণ স্পিনারকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ক্যারিবিয়ান দলপতি।

এমনিতে নিয়মিত ক্রিকেট হয়না এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে। বিসিবির প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়া স্থানীয় পর্যায়ের কিছু ম্যাচ কালে ভদ্রে মাঠে গড়ায় বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ের ভেন্যুতে। উইকেটের চরিত্র নিয়ে তাই ছিল সংশয়, তবে খেলা শুরু হতেই বোঝা গিয়েছিল ট্র্যাডিশনাল স্পিনিং উইকেট ছিল না কোনভাবেই। ঘাসে ভরা উইকেটে পেসারদের ছোবল দেওয়া লাফানো বলে বিভ্রান্তও হতে হয়েছে ব্র্যাথওয়েট, ক্যাম্পবেলদের।

তবে সময়ের সাথে সাথে আধিপত্য বিস্তার করেন স্পিনাররাই। লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেনের পাঁচ উইকেটের সাথে পার্ট টাইম স্পিনার শাহাদাত হোসেন দিপু ও সাইফ হাসানের একটি করে উইকেট। কোয়ালিটি স্পিনারদের মোকাবেলা না করেও ক্যারিবিয়ানদের ১০ ব্যাটসম্যানের ৭ জনই ফিরেছে স্পিনে, যা ইঙ্গিত দেয় মুখে যতই প্রস্তুতির কথা বলুক এখনো সফরকারীদের ভয়ের মূল জায়গা স্পিনই।

নিজে পেসার খালেদ আহমেদের বলে আউট হলেও নন স্ট্রাইক প্রান্ত থেকে সতীর্থ ব্যাটসম্যানদের দেখেছেন রিশাদ হোসেনের বলে ফিরতে। দিন শেষে এক ভিডিও বার্তায় ব্র্যাথওয়েট প্রশংসা করেছেন রিশাদের।

ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিলেও অনেক বেশি আনপ্লেবল ডেলিভারি যে করেছেন তা নয়। তবে লাইন লেংথ ঠিক রেখে করে গেছেন টানা বল। যেখানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উইকেট বিলিয়ে এসেছে ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানরা।

রিশাদ সম্পর্কে বলতে গিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলপতি ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট বলেন,

‘আমরা নিশ্চিত করেছি যে আমাদের ডিফেন্স ভালো ছিল এবং বল দেখে খেলেছি। আমি সামনে এগিয়ে খেলেছি কয়েকবার (স্পিনের বিরুদ্ধে)। যেহেতু পিচ একটু লো ছিল তাই আমি তাড়াতাড়ি সামনে এগুচ্ছিলাম না। তাদের লেগ স্পিনার বেশ ভালো করেছে। সে ধারাবাহিক ছিল। খুব বেশি টার্ন এবং বাউন্স ছিল না কিন্তু সে তার লাইন-লেংথ নিয়ে বেশ ধারাবাহিক ছিল। সে ভালো বোলিং করেছে।’

এদিকে সাড়ে চার ঘন্টার বেশি সময় ক্রিজে কাটিয়ে নিজের খেলা ১৮৭ বলে ৮৫ রানের লড়াকু ইনিংসকে মূল্যায়ণ করতে গিয়ে ব্র্যাথওয়েট যোগ করেন,

‘ভালো লাগছে। উইকেটে কাটানো সময় নিয়ে খুশি। বেশ কঠিন ছিল। (কন্ডিশন) কঠিন বলবো না, বোলাররা ভালো বোলিং করেছে। অবশ্যই পিচ একটু ধীর গতির এবং বাউন্স একটু কম ছিল। আমাদের সাবধানে বল দেখতে হয়েছে। কিন্তু আমি বেশ খুশি।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২৫৭ রানের বিপরীতে ৮ ওভার ব্যাট করে বিনা উইকেটে ২৪ রান তুলে দিন শেষ করে বিসিবি একাদশ। ১৫ রানে সাইফ হাসান ও ৩ রানে অপরাজিত আছেন সাদমান ইসলাম।

দ্বিতীয় দিন নিজেদের লক্ষ্য সম্পর্কে জানাতে গিয়ে ক্যারিবিয়ান দলপতি বলেন,

‘দ্বিতীয় দিনে আমরা বোলিং করব। আমরা আমাদের পরিকল্পনাগুলো কাজে লাগানোর চেষ্টা করব এবং তারপর দেখব। আমরা কালকের জন্য মুখিয়ে আছি। অবশ্যই বিসিবি একাদশ এই কন্ডিশনের সঙ্গে পরিচিত। আমরা যদি আমাদের পরিকল্পনাগুলো কাজে লাগাতে পারি তাহলে ভালো একটি দিন কাটাবো।’

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

পাকিস্তানের ৭ উইকেটের জয়, নওমানের ৭

Read Next

মোসাদ্দেকের ব্যাটে ঝড়ো ইনিংস, রান খরচে সেরা মুক্তার

Total
11
Share