শেষ ঘন্টায় দ্রুত উইকেট হারিয়ে চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা

মোহাম্মদ আব্বাস পাকিস্তান শাদাব খান শান মাসুদ ইয়াসির শাহ

করাচি টেস্টের প্রথম ইনিংসে পাকিস্তান শেষের ব্যাটিংয়ে লিড নিয়ে যায় ১৫৮’তে। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানদের ব্যাটে ভালো শুরু হলেও এক ইয়াসির আলিই শেষ ঘন্টায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপদ বাড়িয়ে দেন। দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে চাপ থাকা সফরকারীরা এখনও পিছিয়ে আছে ২৯ রানে, হাতে ৬ উইকেট।

আগের দিনের করা ৮ উইকেটে ৩০৮ রান নিয়ে করাচি টেস্টের তৃতীয় দিন শুরু করে পাকিস্তান। লোয়ার অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান নওমান আলি ও ইয়াসির আলির ব্যাটিংয়ে লিড যায় ১৫৮তে। এর আগে হাসান আলি করে যান ২১ রান। প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদা হাসান আলিকে বোল্ড করে ২০০ টেস্ট উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছেন। অভিষিক্ত নওমান ২৪ রানে আউট হলে শেষ হয় পাকিস্তানের ইনিংস। ৩৮ রানে অপরাজিত ছিলেন ইয়াসির শাহ। ৩৭৮ রানে অলআউট পাকিস্তান, লিড ১৫৮।

বল হাতে ৩টি করে উইকেট দখলে নেন কাগিসো রাবাদা ও কেশভ মহারাজ। আনরিখ নরকিয়া ও লুঙ্গি এনগিডির শিকার করেন ২টি করে।

ব্যাটিংয়ে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে প্রোটিয়া দুই ওপেনার এইডেন মারর্কাম ও ডিন এলগার যোগ করেন ৪৮ রান। ২৯ রান করে ফিরে যান এলগার ইয়াসির শাহর বলে রিজওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে। তবে এই ক্যাচ বানানোতে বোলার কিংবা ব্যাটসম্যান থেকে উইকেটকিপার মোহাম্মদ রিজওয়ানের ক্রেডিট ছিল পুরোটাই।

এরপর মারর্কাম ফিফটি পূর্ণ করেন ১৫৮ বলে। ১২৩ বলে ফিফটির দেখা পান তিনে নাম ডার ডাসেনও। শেষ সেশনে এসে বড় ধাক্কা খায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ডাসেনকে ৬৪ রানে ফিরিয়ে ওপেনার মারর্কামের সঙ্গে তার ১২৭ রানের জুটি ভাঙেন ইয়াসির শাহ। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি ফাফ ডু প্লেসিও। ইয়াসিরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে ফাফ, রান করেন মাত্র ১০।

করাচি টেস্টের তৃতীয় দিন ধৈর্যের পরীক্ষা দেওয়া প্রোটিয়া ওপেনার এইডেন মারর্কামও দিনের শেষ পর্যন্ত টিকলেন না। ২২৪ বলে ৭৪ রানের ইনিংস শেষ করেন নওমান আলি। এরপর বাকি সময়ে আর কোনো বিপদ হতে দেননি ডি কক ও মহারাজ। ৪ উইকেট হারিয়ে ১৮৭ রানে দিন শেষ করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। কক ০ ও মহারাজ ২ রানে অপরাজিত ছিলেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে বল হাতে পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট স্পিনার ইয়াসির আলির দখলে। অভিষিক্ত নওমান আলি শিকার করেন ১ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (তৃতীয় দিন শেষে)

দক্ষিণ আফ্রিকা ১ম ইনিংসঃ ২২০/১০ (৬৯.২ ওভার) এলগার ৫৮, মারক্রাম ১৩, ফন ডার ডাসেন ১৭, ডু প্লেসি ২৩, কক ১৫, বাভুমা ১৭, লিন্ডে ৩৫, রাবাদা ২১*; আফ্রিদি ১১.২-০-৪৯-২, হাসান আলি ১৪-৫-৬১-১, নওমান ১৭-৪-৩৮-২, ইয়াসির ২২-৬-৫৪-৩

পাকিস্তান ১ম ইনিংসঃ ৩৭৮/১০ (১১৯.২ ওভার) ইমরান ৯, আবিদ ৪, বাবর ৭, আজহার ৫১, ফাওয়াদ ১০৯, রিজওয়ান ৩৩, ফাহিম ৬৪, হাসান ২১, নওমান ২৪, ইয়াসির ৩৮*; রাবাদা ২৭-৭-৭০-৩, নরকিয়া ২৭-৪-১০৫-২, লুঙ্গি ১৭-১-৫৭-২, মহারাজ ৩২.২-৪-৯০-৩

দক্ষিণ আফ্রিকা ২য় ইনিংসঃ ১৮৭/৪ (৭৫ ওভার) মারর্কাম ৭৪, এলগার ২৯, ডাসেন ৬৪, ডু প্লেসি ১০, কক ০*, মহারাজ ২*; ইয়াসির ২৪-৬-৫৩-৩, নওমান ২০-৭-২৭-১

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিবের চোট ইস্যুতে মিলেছে সুখবর

Read Next

প্রস্তুতি ম্যাচে ক্যারিবীয়দের ভাল শুরু

Total
1
Share