বাংলাদেশের কন্ডিশনে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত ব্ল্যাকউড

বাংলাদেশের কন্ডিশনে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত ব্ল্যাকউড
Vinkmag ad

খর্ব শক্তির দল নিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসা ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট স্কোয়াডে আছে বেশ কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটারও। ব্যাটিং বিভাগে দলকে টেনে নেওয়ার দায়িত্ব সামলাতে হবে ওপেনার জার্মেইন ব্ল্যাকউডকে। তার ক্যারিয়ারের সফল বছর ছিল ২০২০। ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে করেছেন ধারাবাহিকভাবে রান। ফর্মে থাকা এই ব্যাটসম্যান গত বছরের সাফল্য পেছনে ফেলে নতুন বছরে নতুন শুরুর অপেক্ষায়। বাংলাদেশের কন্ডিশনে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত এই ব্যাটসম্যান।

দলের ব্যাটিং ইউনিটের মধ্যে রান করার ক্ষুধা দেখেও ভালো করার প্রত্যাশা ক্যারিবিয়ান টেস্ট দলের সহ অধিনায়কের। বেশিরভাগ সিনিয়র ক্রিকেটার নাম সরিয়ে নিলেও ইতিবাচক থাকতে চান জার্মেইন ব্ল্যাকউড।

৩ ফেব্রুয়ারি থেকে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি। সিরিজ সামনে রেখে ২৭ জানুয়ারি এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে নানা বিষয়ে কথা বলেন ব্ল্যাকউড।

গত বছর ৫ টেস্টে ব্ল্যাকউড রান করেছেন ৪২.৭০ গড়ে ৪২৭ রান। ১ সেঞ্চুরির বিপরীতে ছিল তিন ফিফটি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ী ম্যাচে খেলেছেন ৯৫ রানের ইনিংস। এমন ফর্মে থাকা ২৯ বছর বয়সী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান জানান নিজের রুটিন কাজেই রাখছেন মনোযোগ। বাংলাদেশ সিরিজ সামনে রেখে আছেন ইতিবাচক।

ব্ল্যাকউড বলেন,

‘অনুশীলনে আমি কেবল আমার নিয়মিত কাজগুলোই করছি। শেষ দুইটি সিরিজে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২০২০ সালটা আমার দারুণ কেটেছে। কিন্তু ওটা ২০২১, একটা নতুন বছর। আমাকে ২০২০ সালকে পেছনে ফেলে সামনে কি আসছে সেদিকে মনযোগী হতে হবে।’

‘বাংলাদেশে ভিন্ন কন্ডিশন ও চ্যালেঞ্জ আছে। ভিন্ন কিছু করতে আমিও আমার সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছি নিজেকে প্রস্তুত করতে। আমাদের এখানে বেশ কয়েকজন স্পিন বোলার আছে, যাদের সামলেছি। ফলে আমি এখন সবকিছুর জন্য প্রস্তুত।’

দলের বেশিরভাগ সিনিয়র ক্রিকেটার বাংলাদেশ সফর থেকে নাম সরিয়ে নিলেও ব্ল্যাকউড রাখছেন মানসিকতা,

‘আমার মনে একটা ভালো ফ্রেম আছে। আমি যতটা সম্ভব ইতিবাচক থাকতে চাচ্ছি। আমি এই মুহূর্তে বেশ আত্মবিশ্বাসী। গত কয়েক মাসে যেরকম ক্রিকেট খেলেছি ঠিক সেরকম খেলার দিকেই তাকিয়ে আছি। কিছুটা চাপ তো আছেই, তবে আমি এর সাথে অভ্যস্ত। এটা আমার জন্য খুব বড় কিছুনা।’

জন ক্যাম্পবেল, ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, জশুয়া ডা সিলভা, শ্যাইন মোসেলিদের নিয়ে গড়া ব্যাটিং ইউনিট ভালো করবে বলে আশাবাদী ব্ল্যাকউড। গত দুই সপ্তাহে করা অনুশীলন ও ব্যাটসম্যানদের রান ক্ষুধাই স্বপ্ন দেখাচ্ছে ক্যারিবিয়ান টেস্ট দলের সহ অধিনায়ককে।

তিনি বলেন,

‘আমি মনে করি এটা বেশ ভালো একটা ইউনিট। আমি ক্ষুধার্তদের দেখতে পাচ্ছি। গত দুই সপ্তাহে আমাদের বেশ কঠোর অনুশীলন সেশন হয়েছে। আমি দেখতে পাচ্ছি আমরা নতুন কিছু চেষ্টা করছি, তারা বেশ ভালো কাজ করছে। ব্যাটিং ইউনিট তাদের দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করার ব্যাপারে আমি বেশ আত্মবিশ্বাসী।’

‘জন ক্যাম্পবেল, ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, তরুণ মোসেলি, আমি ও জশুয়া (ডা সিলভা)… আমি মনে করি একটা দারুণ ব্যাটিং লাইন আপ। একবার যদি আমরা আমাদের গেম প্ল্যান ঠিকঠাকভাবে প্রয়োগ করতে পারি আমার মনে হয়না স্কোরবোর্ডে ভালো একটা সংগ্রহ দাঁড় করানো অসম্ভব।’

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলা টাইগার্সে দুই ভূমিকায় আফিফ

Read Next

মালান-আমিরদের অধিনায়ক নাসির

Total
3
Share