এখন আর ভেঙে পড়েন না রাব্বি

ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি

ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত পারফর্ম করার ফলে নির্বাচকদের নজরে অনেকদিন ধরেই আছেন ইয়াসির আলি রাব্বি। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকবারই সুযোগ পেয়েছেন জাতীয় দলের প্রাথমিক ও মূল স্কোয়াডেও। কিন্তু আন্তর্জাতিক অভিষেক না হওয়া এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান জাতীয় দলের পরিবেশে অভ্যস্ত হয়ে শিখছেন প্রতিনিয়ত। এ সময়ে মানসিক দৃঢ়তা শক্ত হওয়া ছাড়াও বিদায়ী ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জির সাথে কাজ করে উন্নতি করেছেন ব্যাটিং স্কিলেও।

২০১৯ সালে বিশ্বকাপের আগে ছিলেন আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজের দলে। গত বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের প্রাথমিক স্কোয়াডেও জায়গা হয় ইয়াসির আলি রাব্বির। করোনা পরবর্তী বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রত্যাবর্তন সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দলের প্রাথমিক স্কোয়াডে থেকেও জায়গা মিলেনি চূড়ান্ত স্কোয়াডে।

তবে এখনো আশার আলো হয়ে জ্বলছে টেস্টের মূল স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া। আগামী ৩১ জানুয়ারি ঘোষণা হবে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের দল, রাব্বি আছেন ২০ জনের প্রাথমিক স্কোয়াড ও তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের স্কোয়াডেও। তবে দলে জায়গা পাওয়া না পাওয়াকে একপাশে রেখে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের কাছে ইতিবাচক দিক নিজের মানসিক দৃঢ়তার উন্নতি।

আজ (২৬ জানুয়ারি) এক ভিডিও বার্তায় ২৪ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘আল্লাহর রহমতে গত এক বছর ধরে যে জিনিসিটা বেশি উন্নতি হয়েছে সেটা হচ্ছে মানসিক দৃঢ়তা। অনেক বেশি উন্নতি হয়েছে। আগে দেখা যেত একটা দুইটা ইনিংস খারাপ খেললে বা খারাপ সময় আসলে ভেঙে পড়তাম, কিন্তু এখন আল্লাহর রহমতে ওই রকম না। এখন জানি আমি যদি কষ্ট করি ইন শা আল্লাহ কিভাবে ভালো সময়ে ফেরা যায়। আমি বলব মানসিকভাবে এই জিনিসটা অনেক উন্নতি হয়েছে।’

লিটন দাস, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের স্কিল উন্নতিতে টাইগারদের সাবেক ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জির অবদান ছিল উল্লেখযোগ্য। যা গণমাধ্যমকে তারা নিজেরাই জানিয়েছেন বেশ কয়েকবার। জাতীয় দলের হয়ে এখনো না খেললেও, বিভিন্ন ক্যাম্পে থাকার সুবাধে ইয়াসির আলি রাব্বিরও সুযোগ হয় তার সাথে কাজ করার। ম্যাকেঞ্জির অবদান তুলে ধরে নতুন ব্যাটিং কোচ জন লুইসের সাথে কাজ করতে মুখিয়ে থাকার কথা জানান ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

রাব্বি বলেন, ‘টেকনিক্যালি (উন্নতি) তো অবশ্যই কারণ ম্যাকেঞ্জি ছিল। যখন ঢুকেছি তখন উনার সঙ্গে কাজ করে ব্যাটিংটা টেকনিক্যালি অনেক বেশি উন্নতি হয়েছে। দুই-তিনটা জিনিস আরও বেশি উন্নতি করে দিয়ে গেছে। আমি অবশ্যই বলব যে আল্লাহর রহমতে আমার অনেক উন্নতি হয়েছে। এখন থেকে আমি জাতীয় দলের অধীনে আসলাম দেখি নতুন যে ব্যাটিং কোচ জন লুইস আসলো তো তার সঙ্গে আমি কাজ করার জন্য অনেক আগ্রহী।’

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘সিনিয়রদের যতই দেখেন, ততই অবাক হন ইয়াসির’

Read Next

ব্যাথা কমেছে সাকিবের, স্ক্যান করানো হবে পরশু

Total
3
Share