তামিমদের সাফল্যে অনুপ্রাণিত জাহানারা-সালমারা

জাহানারা আলম

চলতি মাসের শুরুর দিকে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে করোনা পরবর্তী প্রথম দলীয় অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করে বাংলাদেশ জাতীয় নারী দল। মাসব্যাপী ক্যাম্পে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি বেশ কয়েকটি ম্যাচও খেলেছেন সালমা-জাহানারারা। এদিকে বাংলাদেশ পুরুষ দল করোনা পরবর্তী প্রথম আন্তর্জাতিক সিরিজও খেলে ফেলল। সদ্য সমাপ্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের ফলাফল অনুপ্রাণিত করছে নারী দলকেও।

কোচ ফয়সাল হোসেন ডিকেন্সের অধীনে সিলেটে শুরু হওয়া নারী দলের ক্যাম্পে নিজেদের প্রস্তুতি ভালো হচ্ছে বলেও জানান পেসার জাহানারা আলম। দলীয় অনুশীলনের আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবির) সহায়তায় ব্যক্তিগত অনুশীলন করেছিল টাইগ্রেসরা। জাহানার বলছেন একক অনুশীলনের পর ধাপে ধাপে দলীয় অনুশীলনে ফেরায় অনুভব করতে পারছেন না লম্বা সময় মাঠে থাকার ব্যাপারটি।

আজ এক ভিডিও বার্তায় জাহানারা আলম বলেন, ‘সব কিছু মিলিয়ে আমার মনে হয় যে লম্বা সময় যে আমরা খেলার বাইরে ছিলাম তা মনেই হচ্ছে না কারণ একটি নির্দিষ্ট সময় পরে বিসিবি কিন্তু আমাদের দারুণ সব সুযোগ সুবিধা দিয়েছিলো যার যার বিভাগেই। তার মধ্যে থেকেই নিজেদের পর্যাপ্ত প্রস্তুত করার সময় পেয়েছি। তাই এখন মনে হয় বেশ ভালো অবস্থানে আছি আর এখান থেকেই সামনে এগিয়ে যেতে পারবো ইন শা আল্লাহ।’

সিলেটে দলীয় অনুশীলনে প্রস্তুতি ভালো হচ্ছে উল্লেখ করে জাহানার যোগ করেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ আমরা অনেক ভালো প্রস্তুতি নিচ্ছি। আর প্রায় ১০ মাস পরে আমরা মাঠে ফেরার সুযোগ হয়েছে আমাদের এজন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি যে এত সুন্দর ভাবে জৈব সুরক্ষা বলয় আয়োজন করেছে। আসলেও আমরা খুব আনন্দিত যে ক্রিকেট আবারো শুরু হয়েছে।’

‘ইন শা আল্লাহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও আবার মাঠে গড়াবে। ইতোমধ্যেই ক্যাম্পের মধ্যে ৩-৪ টি ম্যাচ খেলে ফেলেছি এর সঙ্গে ম্যাচের আবহ তৈরি করেও ২টি ম্যাচ হয়েছে। প্রায় ৬ টি ম্যাচ খেলে ফেলেছি। আগামীতে আরও ৩-৪ টি ম্যাচ আছে।’

মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ নারী দল। তার আগে অবশ্য ফিরতে নারীদের ঘরোয়া ক্রিকেটও।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে মরিয়া জাহানার বলেন, ‘অবশ্যই মুখিয়ে আছি কারণ বেলা শেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটটাই কিন্তু আমাদের কাছে আসল। আমরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করি, দেশের জন্য খেলি। আমার বিশ্বাস এখান থেকে প্রস্তুতি নিয়ে আমরা ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছি। সামনে যে টুর্নামেন্টগুলো আছে সেগুলো আমাদের জন্য খুবই জরুরি বাংলাদেশ নারী দলের জন্য। আমরা চেষ্টা করবো যে ওই টুর্নামেন্ট গুলোতে ভালো ভাবে জয় আনার জন্য।’

এদিকে লম্বা বিরতির পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন সিরিজেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইট ওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। তামিম ইকবালদের সাফল্য অনুপ্রাণিত করছে সালমা খাতুন, জাহানারা আলমদেরও।

২৭ বছর বয়সী নারী পেসার জাহানারা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘অবশ্যই খুবই আনন্দিত (বাংলাদেশের সিরিজ জয়ে) আর তা অনুপ্রাণিতও করে। ভাইয়ারাও প্রায় ১০ মাস ১০ দিন পরে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে। সবাই খুব দারুণ পারফম্যান্সের মধ্যে আছে। তাই এটা আসলেও ইন্সপায়ার করে আমাদেরকে। আমরা খুবই খুশি। আমদের বিশ্বাস আমরা যখন করবো যখন আমরাও আন্তর্জাতিক ম্যাচ শুরু করবো আমরাও দারুণ পারফর্ম করবো।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাবর আজমের অনুপ্রেরণামূলক গল্প, ডি ভিলিয়ার্স বললেন ‘ভেরি স্পেশাল’

Read Next

‘সিনিয়রদের যতই দেখেন, ততই অবাক হন ইয়াসির’

Total
12
Share