আজও মুখ থুবড়ে পড়ল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আজও মুখ থুবড়ে পড়ল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আগের ম্যাচের ব্যাটিং ব্যর্থতাকে গুরুত্ব দিয়ে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চলমান দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ব্যাটিং অর্ডার লম্বা করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে টাইগার বোলারদের দাপটের দিনে পরিণতিটা হয়েছে একই। স্রোতের বিপরীতে বরম্যান পাওয়েলের লড়াকু ইনিংসে ভর করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ থামে ১৪৮ রানে।

টস জিতে এদিন ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ক্যারিবিয়ান দলপতি জেসন মোহাম্মদ। আগের ম্যাচের তুলনায় উইকেট ব্যাটিং বান্ধব হলেও বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল অবশ্য জানিয়েছেন টস জিতলে তিনি ফিল্ডিং নিতেন। ফলে প্রতিপক্ষ অধিনায়ক টস জিতে ব্যাটিং নিলেও দ্বিধা দ্বন্দ্বে ভুগতে হয়নি তামিমকে।

টাইগার বোলাররাও অধিনায়কের ভাবনাটা পরীষ্কার করে দিলেন ক্যারিবিয়ায়ন ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরে। স্পিন-পেসে দ্বিমুখী আক্রমণে নাকাল করেছে খর্ব শক্তির ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। মেহেদী হাসান মিরাজের ৪ উইকেট শিকারের দিনে (ক্যারিয়ার সেরা) আগের ম্যাচের মত বল হাতে উজ্জ্বল সাকিব, মুস্তাফিজরাও।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

আগের ম্যাচে ক্যারিবিয়ায়নদের ৬ অভিষিক্তের একজন ছিলেন পেসার চিমার হোল্ডার, ব্যাটিং গভীরতা বাড়াতে আজ তাকে সরিয়ে অভিষেক করানো হয় বাঁহাতি ব্যাটসম্যান কেজর্ন ওটলেকে। সুনীল অ্যামব্রিসের সাথে ওপেন করতে নেমে দৃঢ় ব্যাটিংয়ের আভাস দিয়েছিলেন।

কিন্তু ৪৪ বলে ২৪ রানের ইনিংসটি থামে মেহেদী মিরাজের বলে তামিম ইকবালকে ক্যাচ দিলে। তার আগেই মুস্তাফিজ ফিরিয়েছেন অ্যামব্রিসকে (৬)। ৪ ওভারের প্রথম স্পেলে ২ মেডেনে ২ রান খরচায় বাঁহাতি এই পেসারের শিকার ১ উইকেট। উইকেট সংখ্যার চাইতে এদিনও নতুন আয়ত্ব করা ইনসুইংয়ে ব্যাটসম্যানকে বেশি বিভ্রান্ত করেছেন।

এরপর একে একে ফিরে যান জশুয়া ডা সিলভা (৫), আন্দ্রে ম্যাককার্থি (৩) ও আগের ম্যাচের সফল ব্যাটসম্যান কাইল মায়ের্স (০)। সাকিব-মেহেদী তোপে ৪১ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারীরা। আউট হওয়া প্রথম ৫ জনের মধ্যে কেবল অভিষিক্ত ওটলেই ছুঁয়েছেন দুই অঙ্ক। কাইল মায়ের্সকে অবশ্য ফিরতে হয়েছে দুর্ভাগ্যজনক রান আউটে কাটা পড়ে।

ক্রুমাহ বোনার ও অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। তাদের ২৬ রানের জুটি ভাঙে জেসন মোহাম্মদ ১১ রান করে সাকিবের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়লে। ৪ রানের ব্যবধানে পেসার হাসান মাহমুদের অফ স্টাম্পের বাইরের বল খেলতে গিয়ে বোল্ড হন বোনারও। তার ব্যাট থেকে আসে ২৫ বলে ২০ রান। মিরাজের তৃতীয় শিকার হয়ে ২ রান করে ফিরেছেন রেমন রেইফার।

৮৮ রানে ৮ উইকেট হারানো ক্যারিবিয়ায়নদের সম্মানজনক পুঁজি এনে দেওয়ার চেষ্টা রবম্যান পাওয়েলের। ৯ম উইকেট জুটিতে আলঝারি জোসেফকে নিয়ে যোগ করেন ৩২ রান। মুস্তাফিজের শিকার হয়ে জোসেফ ফিরেছেন ১৫ রান করে। শেষ উইকেট জুটিতে আকিল হোসেনকে (১২) নিয়ে স্কোরবোর্ডে তোলেন আরও ২৮ রান।

তবে মিরাজকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে পাওয়েল স্টাম্পিং হলে ক্যারিবিয়ানদের ৪৩.৪ ওভার স্থায়ী ইনিংস থামে ১৪৮ রানেই। আউট হওয়ার আগে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের ব্যাত থেকে আসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৪১ রান। ৬৫ বলে ২ চার ১ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান পাওয়েল। ৯.৪ ওভারের স্পেলে ২৫ রান খরচায় মিরাজের শিকার সর্বোচ্চ ৪ উইকেট। সাকিব, মুস্তাফিজ ভাগাভাগি করেন দুইটি করে উইকেট। হাসান মাহমুদের শিকার এক উইকেট।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে):

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৪৮/১০ (৪৩.৪), অ্যামব্রিস ৬, ওটলে ২৪, জশুয়া ৫, ম্যাককার্থি ৩, জেসন ১১, মায়ের্স ০, বোনার ২০, রবম্যান ৪১, রেমন ২, জোসেফ ১৭, আকিল ১২*; মুস্তাফিজ ৮-৩-১৫-২, হাসান ৯-০-৫৪-১, মিরাজ ৯.৪-০-২৫-৪, সাকিব ১০-০-৩০-২।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মাশরাফিকে ছাড়িয়ে, তার পাশে বসলেন মুশফিক

Read Next

অভিষেকেই আম্পায়ার গাজী সোহেলের এমন ভুল!

Total
29
Share