শেষ দিনে বিপদ ছাড়াই গল টেস্ট জিতল ইংল্যান্ড

শেষ দিনে বিপদ ছাড়াই গল টেস্ট জিতল ইংল্যান্ড

গল টেস্ট সহজেই জিতে নিল ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের সামনে ৭৪ রানের লক্ষ্য ছিল। আগের দিন শেষ সেশনে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া ইংলিশরা আজ ম্যাচের শেষ দিন কোনো উইকেট না হারিয়েই জয়ের বন্দরে পৌঁছায়। ৭ উইকেটের বড় জয়ে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০’তে এগিয়ে গেল সফরকারী ইংল্যান্ড।

দলকে জিতিয়ে প্যাভিলিয়েনে ফেরেন জনি বেয়ারস্টো ও ড্যান লরেন্স। বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে আসে ৩৫* রান, লরেন্স করেন ২১*।

আগের দিন শেষ সেশনে ১৪ রান স্কোরবোর্ডে তুলতেই নেই ইংল্যান্ডের টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান। ২ রান করা ওপেনার ডম সিবলিকে বোল্ড করার পর জ্যাক ক্রলিকে (৮) ক্যাচ বানান লঙ্কান স্পিনার লাসিথ এম্বুলদেনিয়া। প্রথম ইনিংসের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট এদিন ফেরেন রান আউট হয়ে (১)।

লাসিথ এম্বুলদেনিয়া লঙ্কানদের একমাত্র সফল বোলার, নিয়েছেন ২ উইকেট।

এর আগে ম্যাচের চতুর্থ দিন ২ উইকেটে ১৫৬ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। নাইটওয়াচম্যান হিসাবে আগের দিন নামা এম্বুলদেনিয়া কোনো রান করার আগেই আউট। আগের দিন ৭৬ রানে অপরাজিত থাকা লাহিরু থিরিমান্নে এদিন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পান। এরপর উইকেট বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি থিরিমান্নে। ২৫১ বল মোকাবিলায় ১২ চারে ১১১ রান করা ওপেনার থিরিমান্নেকে বল হাতে ফেরান স্যাম কারেন।

অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমালের ব্যাট থাকে আসে কেবল ২০ রান। নিরোশান ডিকওয়েলা ৭৪ বলে ২৯ রান করে ফেরত যান। দাসুন শানাকা ও ভানিদু হাসারাঙ্গাকে দ্রুত ফিরিয়ে দেন লিচ। দিলরুয়ান পেরেরাকে নিজের চতুর্থ শিকার বানান জ্যাক লিচ।

উইকেটে একা দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস আউট হন শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে। ২১৯ বলে ৪ চারে ৭১ রান করে জ্যাক লিচের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়েন যান ম্যাথুস।

সর্বোচ্চ ৫ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার জ্যাক লিচ। এছাড়া ডম বেসের দখলে ৩ উইকেট ও স্যাম কারেন শিকার করেন ২ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংসঃ ১৩৫/১০ (৪৬.১ ওভার)

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংসঃ ৪২১/১০ (১১৭.১ ওভার) লরেন্স ৭৩, বেয়ারস্টো ৪৭, রুট ২২৮, বাটলার ৩০, কারেন ০, ব্রড ১১*; এম্বুলদেনিয়া ৪৫-৪-১৭৬-৩, ফার্নান্দো ১৪-১-৪৪-২, দিলরুয়ান পেরেরা ৩৬.১-২-১০৯-৪

শ্রীলঙ্কা ২য় ইনিংসঃ ১৩৬.৫ ওভারে ৩৫৯ (পেরেরা ৬২, থিরিমান্নে ১১১, ম্যাথুস ৭১, চান্দিমাল ২০, ডিকওয়েলা ২৯, হাসারাঙ্গা ১২, দিলরুয়ান পেরেরা ২৪; কারেন ১১-১-৩৭-২, বেস ৩৩-৪-১০০-৩, লিচ ৪১.৫-৬-১২২-৫)

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংসঃ ২৪.২ ওভারে ৭৬/৩ (ক্রলি ৮, সিবলি ২, রুট ১, বেয়ারস্টো ৩৫*, লরেন্স ২১*; এম্বুলদেনিয়া ১২-৩-২৯-২)

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী

সিরিজঃ ১-০’তে এগিয়ে ইংল্যান্ড

ম্যাচ সেরাঃ জো রুট (ইংল্যান্ড)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

৬ পেসারের চেয়ে ৪ স্পিনার নিয়েই ভাবছে বেশি ওয়েস্ট ইন্ডিজ

Read Next

২০২১ সালের এশিয়া কাপ খেলবে না ভারত!

Total
1
Share