মাহমুদউল্লাহর হার না মানা ফিফটি, দলের সহজ জয়

মাহমুদউল্লাহর হার না মানা ফিফটি, দলের সহজ জয়

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপিতে) অনুষ্ঠিত টাইগারদের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে তামিম একাদশকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। দলের জয়ে অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংস খেলে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য ২৪ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যাদের মধ্যে চোট পেয়ে আগেই ছিটকে যান পারভেজ হোসেন ইমন। অন্যদিকে স্কোয়াড থেকে ছিটকে না গেলেও অনুশীলনে চোট পেয়ে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নিতে পারেননি তাসকিন আহমেদ।

২২ জনে নেমে আসা স্কোয়াড তামিম একাদশ ও মাহমুদউল্লাহ একাদশে ভাগ হয়ে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে ৪০ ওভারের। যেখানে আগে ব্যাট করে হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলামদের তোপে অলআউট হওয়ার আগে তামিম একাদশের সংগ্রহ ১৬১ রান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে আফিফ হোসেন ধ্রুবর ব্যাট থেকে।

এ ছাড়া অধিনায়ক তামিম খেলেন ২৮ রানের ইনিংস। নাজমুল হোসেন শান্ত ২৭ ও সৌম্য সরকার করেন ২৪ রান। মাহমুদউল্লাহ একাদশের হয়ে ২১ রান খরচায় সর্বোচ্চ ৪ উইকেট শিকার হাসান মাহমুদের। দুইটি করে উইকেট নেন আল আমিন হোসেন ও শরিফুল ইসলাম, মিরাজ নেন ১ উইকেট।

১৬২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ওপেনার নাইম শেখ এক পাশ আগলে রাখলেও অন্য প্রান্তে দ্রতই বিদায় নেন ইয়াসির আলি রাব্বি ও সাকিব আল হাসান। রাব্বি মুস্তাফিজের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ার আগে করেন ৩ রান। রান আউটে কাটা পড়া সাকিব ফিরেছেন ৯ রান করে।

ফিফটির আগেই থেমেছেন নাইম শেখও। ৫২ বলে ৭ চারে ৪৩ রান করে লিটন দাসের হাতে সাইফউদ্দিনের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তার বিদায়ে ৬৫ রানে দল তৃতীয় উইকেট হারালেও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে দলের জয়ের পথটা মসৃণ করেন। দুজনে জুটিতে যোগ করেন ৫১ রান। মুশফিক ২৮ রান করে ফিরলেও দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন মাহমুদউল্লাহ।

মাঝে মোসাদ্দেক হোসেন সোইকত ৩ রান করে ফিরলেও মেহেদী হাসান মিরাজকে (১৩*) নিয়ে বাকি পথ অনায়াসেই পাড়ি দেন। তার ৬৪ বলে ৪ চারে সাজানো অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংসে ১৯ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছায় দল। তামিম একাদশের হয়ে একটি করে উইকেট ভাগাভাগি করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, শেখ মেহেদী হাসান ও নাসুম আহমেদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

তামিম একাদশ ১৬১/১০ (৩৭.২), তামিম ২৮, লিটন ২, শান্ত ২৭, মিঠুন ১৬, সৌম্য ২৪, আফিফ ৩৫, মেহেদী ১, সাইফউদ্দিন ৭*, নাসুম ২, রুবেল ০, মুস্তাফিজ ৯; আল আমিন ৮-০-৩২-২, শরিফুল ৭.২-১-২৭-২, হাসান মাহমুদ ৬-১-২১-৪, মিরাজ ৫-১-১৫-১।

মাহমুদউল্লাহ একাদশ ১৬২/৫ (৩৬.৫), নাইম ৪৩, রাব্বি ৩, সাকিব ৯, মুশফিক ২৮, মাহমুদউল্লাহ ৫১*, মোসাদ্দেক ৩, মিরাজ ১৩*; সাইফউদ্দিন ৬-০-২৯-১, মুস্তাফিজ ৮-০-৩৮-১, নাসুম ৮-০-২৯-১, মেহেদী ৬-০-১৬-১

ফলাফলঃ মাহমুদউল্লাহ একাদশ ৫ উইকেটে জয়ী।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

হাসান মাহমুদের ‘৪’, তামিমরা গুটিয়ে গেল ১৬১ তে

Read Next

বাংলাদেশ দলের ‘টিম স্পন্সর’ হল বেক্সিমকো

Total
10
Share