ক্রুনাল পান্ডিয়ার ‘দাদাগিরি’তে দল ছাড়লেন দীপক হুদা

ক্রুনাল পান্ডিয়ার 'দাদাগিরি'তে দল ছাড়লেন দীপক হুদা

সৈয়দ মুশতাক আলি ট্রফি থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে অধিনায়ক ক্রুনাল পান্ডিয়ার আচরণে হতাশ ও বিধ্বস্ত হয়েছেন বলে জানান বারোদা দলের অলরাউন্ডার দীপক হুদা। ২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার ইতোমধ্যে ছেড়েছেন টিম হোটেল এবং জৈব সুরক্ষিত বলয়।

১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের প্রথম দিনেই উত্তরখান্ডের বিপক্ষে মুখোমুখি হয় বারোদা। সি গ্রুপের ম্যাচটিতে ভাদোদারা স্টেডিয়ামে ৫ রানের জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করে ক্রুনাল পান্ডিয়ার দল। অধিনায়ক ক্রুনাল পান্ডিয়া খেলেছেন দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৬ রানের ইনিংস।

তবে সব ছাপিয়ে মুশতাক আলি ট্রফি শুরুর আগেই বিতর্কিত হয়েছেন পান্ডিয়া। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে দল ছেড়েছেন দীপক হুদা। বারোদা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি অজিত লেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফোকে তিনি বলেন,

‘সে (দীপক হুদা) নিজেকে বারোদা স্কোয়াড থেকে সরিয়ে নিয়েছে এবং হোটেলও চেক আউট করেছে। ক্রুনাল পান্ডিয়ার সাথে তার বড়সড় ঝগড়া হয়েছে।’

লেলে জানিয়েছেন দল ছাড়ার আগে দীপক হুদা তাকে একটি মেইল দিয়েছেন। যেখানে লেখা হয় গত সপ্তাহে অনুশীলনের সময় সতীর্থ ও প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের সামনে পান্ডিয়া দীপক হুদাকে উদ্দেশ্য করে বাজে মন্তব্য করে।

দীপক হুদা প্রেরিত ই-মেইলে লেখা হয়,

‘আমি ভেঙে পড়েছি এবং হতাশাগ্রস্থ অবস্থায় আছি। গত সপ্তাহ থেকে বিশেষ করে গত দুইদিন ধরে আমার দলের অধিনায়ক জনাব ক্রুনাল পান্ডিয়া আমার সাথে সতীর্থ ও প্রতিপক্ষের সামনে বাজে ভাষায় কথা বলছে। এমনকি অন্য রাজ্য থেকে আসা দলগুলোর সামনে যারা ভাদোদারা রিলায়েন্স স্টেডিয়ামে এসেছিল অংশগ্রহণ করতে।’

দীপক হুদা বলছেন দলের প্রধান কোচ প্রভাকর বৈয়ারগন্ডের অনুমতি থাকা সত্বেও তাকে অনুশীলনের সুযোগ দেয়নি দলের অধিনায়ক ক্রুনাল পান্ডিয়া।

২৫ বছর বয়সী অলরাউন্ডার দীপক তার ঐ ই-মেইলে আরও লিখেন,

‘আমি তাকে (পান্ডিয়াকে) বলেছিলাম যে প্রধান কোচের অনুমতি আছে আমার অনুশীলনে। সে আমাকে বলে আমি অধিনায়ক, কোচ কে? আমিই বারোদা দলের সবকিছু। এরপরই সে তার দাদাগিরি দেখিয়ে আমার অনুশীলন বন্ধ করে দেয়।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ঘাটতির কথা মানছে বিসিবি, নজর নিয়ন্ত্রণে

Read Next

ড্রাফট শেষে যেমন হল পিএসএলের ৬ দল

Total
1
Share