সালমা-জাহানারাদের নিয়ে বিসিবির যত পরিকল্পনা

featured photo1 53
Vinkmag ad

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ নারী দলের স্কিল ক্যাম্প। করোনা পরবর্তী প্রথমবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবির) অধীনে জাহানারা আলম, সালমা খাতুনদের দলীয় ক্যাম্প এটি। চলমান এই ক্যাম্পেই নারী দলের নতুন কোচ যোগ দিবেন। এদিকে নারীদের খেলায় ফেরাতে উড়িয়ে আনা হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলকে, বিসিবির পরিকল্পনায় আছে ত্রিদেশীয় সিরিজও।

৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ক্যাম্পটি চলবে একমাস ধরে। ৩২ সদস্যের স্কোয়াডের এই ক্যাম্পে ফিটনেস ও স্কিল ট্রেনিং হবে, সাথে থাকবে ৫ টি সীমিত ওভারের ক্রিকেটের প্রস্তুতি ম্যাচ।

ভারতীয় আঞ্জু জাইনের বিদায়ের পর দীর্ঘদিন ফাঁকা নারীদের প্রধান কোচের আসন। করোনার কারণেই এই প্রক্রিয়া দীর্ঘায়িত হয়েছে বলে জানান নারী বিভাগের চেয়ারম্যান শফিউল ইসলাম চৌধুরী নাদেল। ইংলিশ কোচ মার্ক রবিনসন চলতি মাসের শেষদিকেই দলের সাথে যোগ দিচ্ছেন বলেও জানান নাদেল। তার আগ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন নারী দলের নির্বাচক মঞ্জুরুল ইসলাম ও গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের বেশ কয়েকজন কোচিং স্টাফ।

আজ (৫ জানুয়ারি) এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘জানুয়ারির শেষভাগে হয়তো আমাদের যে কোচের সাথে কথা হয়েছে সে কথা চূড়ান্ত হলে তিনি এই ক্যাম্প চলাকালীন সময় এসেই মেয়েদের দায়িত্ব নিবেন। আপাতত মঞ্জুরুল ইসলাম আছে, সে আমাদের সাবেক খেলোয়াড় ও বর্তমানে নারী দলের নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গেম ডেভেলেওপমেন্ট বিভাগ থেকে কয়েকজন যোগ দিয়েছেন তাদের অধীনে ক্যাম্পটি পরিচালিত হবে।’

‘কোচ আগামী মাসে আসবেন, ১৫ দিন পরে আসবেন এই কথাগুলো আমাদের অনেকবার বলতে হয়েছে। কারণ করোনা পরিস্থিতিতে বাইরের যাদেরই আমরা নিতে চাচ্ছিলাম তাদের কারোরই সম্মতি পাওয়া যাচ্ছিলনা। আমরা এমন কাউকে খুঁজছিলাম যার অধীনে আমাদের মেয়েরা অন্তত আগামী ২ বছর প্রশিক্ষণ নিবে।’

‘করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই কাজটা অনেকোটাই বিলম্বিত হয়েছে। তবে এখন আমরা যার সাথে কথা বলেছি তিনি বিশ্বের একজন প্রথম শ্রেণির কোচ। ইংল্যান্ডের মত দলের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তার সাথে আমাদের কথাবার্তা প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে। তিনি হয়তো এই মাসের শেষের দিকেই আমাদের সাথে যোগ দিবেন।’

মার্চে বাংলাদেশ সফরে আসবে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং নারী দল। এরপর জুনে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের ভাবনাও রয়েছে বিসিবির।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির নারী বিভাগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দল আসবে। জুন মাসে একটা ত্রিদেশীয় সিরিজ করার পরিকল্পনা রয়েছে। সবকিছু করোনা পরিস্থিতির উপর নির্ভর করছে। এক বছর খেলাধুলার বাইরে থাকায় আমাদের মেয়েরা শারীরিক ও মানসিকভাবেও পিছিয়ে পড়েছে।’

‘যদিও তারা ব্যক্তিগতভাবে আমাদের সুযোগ সুবিধা ব্যবহার করে শারীরিক ও মানসিকভাবে কিছুটা আগের জায়গায় যাওয়ার চেষ্টা করেছে। আমরা এখনো সেটিই চেষ্টা করছি, আশা করি এই ক্যাম্পের মাধ্যমে তারা কিছুটা হলেও পূর্বের জায়গায় ফিরে যেতে পারবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

পাকিস্তান দলের কড়া সমালোচনায় শোয়েব আখতার

Read Next

বিসিসিআইয়ের কোষাগারে সাড়ে ১৪ হাজার কোটি রুপি

Total
10
Share