যে ভাবনায় জাতীয় দলের স্কোয়াডে শরিফুল-ইমনরা

যে ভাবনায় জাতীয় দলের স্কোয়াডে শরিফুল-ইমনরা
Vinkmag ad

করোনা পরবর্তী সময়ে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ। আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ সামনে রেখে আজ (৪ জানুয়ারি) ঘোষিত হয়েছে ২৪ সদস্যের ওয়ানডে ও ২০ সদস্যের প্রাথমিক টেস্ট স্কোয়াড। ২০২৩ বিশ্বকাপ সামনে রেখেই দল নির্বাচন করেছে নির্বাচকরা।

ঘোষিত প্রাথমিক ওয়ানডে স্কোয়াডে সুযোগ মিলেনি মাশরাফি বিন মর্তুজার। তরুণদের সুযোগ দেওয়ার লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নেয় টিম ম্যানেজমেন্ট ও নির্বাচকরা। দলে যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলের দুই সদস্য শরিফুল ইসলাম ও পারভেজ হোসেন ইমনকে জায়গা দেওয়া হয়।

যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারদের উপর নজর থাকলেও ধাপে ধাপে জাতীয় দলের জন্য বিবেচনা করার পরিকল্পনা নির্বাচকদের।

স্কোয়াড ঘোষণার পর মিরপুরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘অবশ্যই ওদেরকে হাইলি রেট করি। স্পেশালি এইচপি (হাই পারফরম্যান্স দল) তে যে খেলোয়াড়রা আছে ওদেরকে কিন্তু আমরা যে জায়গায় চিন্তা ভাবনা করছিলাম লাল বল, সাদা বলে আলাদা ভাবে ওদেরকের গড়ে তোলার জন্য ঠিক ওভাবেই কিন্তু আমরা গড়ে তুলছি। কিছু খেলোয়াড় যথেষ্ট নজর কেড়েছে।’

“আমরা একটু সময় দিতে চাচ্ছি এখনই জাতীয় দলের জন্য বিবেচনা করছি না। আমার বিশ্বাস এই পাইপলাইন থেকে আমরা ভালো কিছু খেলোয়াড় পাব এবং সামনে আয়ারল্যান্ড আসছে । আয়ারল্যান্ড এ টিম ,হাইপারফরম্যান্স ইউনিট। আমরা আশা করি তখন কিছু খেলোয়াড়কে লাল বল সাদা বলে আলাদা ভাবে তৈরি করবো।’

এদিকে এখন থেকেই ২০২৩ বিশ্বকাপ মাথায় রেখে পরিকল্পনা সাজানো হচ্ছে উল্লেখ করে নান্নু যোগ করেন, ‘অবশ্যই ২০২৩ এর জন্য একটা ফোকাস আমরা রেখেছি। ২০২১ থেকেই কিন্তু প্রচুর ম্যাচ আছে আমাদের।’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

‘টেস্ট ক্রিকেট বলেন, ওয়ানডে বলেন সবকিছু মিলিয়ে এজন্য টেস্ট আর ওয়ানডের দলটা একটু বড় করা হয়েছে। এই ফোকাসটা রেখেই কিন্তু টিম ম্যানেজম্যান্টের যে প্লান আছে এই প্লান অনুসারে আমরা এগোচ্ছি।’

করোনা প্রভাবে সিরিজ বাই সিরিজ পরিকল্পনা করে এগোনোর ভাবনার কথাও জানান প্রধান নির্বাচক, ‘এটা সিরিজ বাই সিরিজ যাবে। প্রতিটা সিরিজে কারণ এখন এই সময়টায় খেলোয়াড়দের সুস্থতাও কিন্তু দেখতে হচ্ছে। একটা খেলোয়াড়কে লম্বা সময় টেনে কিন্তু আপনি বলতে পারবেন না ও কতটুকু ক্যারি করতে পারবে।’

‘কারণ এখনও কিন্তু আমরা মহামারী থেকে বের হতে পারিনি। সুতরাং এজন্য কিন্তু অনেকগুলো খেলোয়াড়কে তৈরি করে রাখা হচ্ছে। তো আমার বিশ্বাস আমাদের পুলে যে খেলোয়াড়েরা আছে ওরা লং টাইম সার্ভিস দেবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মাশরাফিকে স্কোয়াডে না রাখার কারণ জানালেন নান্নু

Read Next

সিনিয়র-জুনিয়র ব্যালেন্স ঠিক রাখতে নির্বাচকদের প্রয়াস

Total
3
Share