ভারতের সিদ্ধান্তে হ্যাডিনের বিস্ফোরক মন্তব্য

ভারতের সিদ্ধান্তে হ্যাডিনের বিস্ফোরক মন্তব্য

চলতি অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারত নতুন করে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে রাজি নয়। চতুর্থ টেস্টের ভেন্যু ব্রিসবেনে যেতে চায় না ভারত, বরং সিডনিতেই তাঁরা খেলতে চায় টানা দুই টেস্ট। রাহানে, রোহিতদের এমন মনোভাব জানার পর কঠোর প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন কুইন্সল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এবার ভারতীয় দলের সিদ্ধান্তের ওপর বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ব্র্যাড হ্যাডিন। তাঁর মতে, অন্য কোন কারণ নেই, পরাজয়ের ভয়েই গ্যাবায় খেলতে অনীহা ভারতের।

ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট অবশ্য পুনরায় কোয়ারেন্টাইনে থাকতে রাজি নয়। কঠোর বায়ো-বাবল ক্রিকেটারদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলতে পারে বলে টিম ম্যানেজমেন্টের আশঙ্কা। সেক্ষেত্রে সিডনিতেই সিরিজের শেষ দু’টি টেস্ট খেলতে অসুবিধা নেই ভারতের। ভারতীয় দলের এমন মানসিকতা জানার পরেই কুইন্সল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছে, চতুর্থ টেস্টের জন্য ভেন্যু পরিবর্তন হবে না এবং তাতে ভারতীয় দলের অসুবিধা থাকলে তারা নাই আসতে পারেন।

ব্র‍্যাড হ্যাডিন মনে করছেন, কোয়ারেন্টাইন নয় গ্যাবায় অস্ট্রেলিয়াকে হারানো কঠিন বলে ভারত সেখানে যেতে চাইছে না। সম্প্রতি ফক্স ক্রিকেটকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হ্যাডিন বলেছেন,

‘কেউই জিততে পারে না গ্যাবায়, অস্ট্রেলিয়া সেখানে খুবই ভালো ক্রিকেট খেলে এবং বহু বছর ধরে সেখানে কেউ জিততে পারেনি। এখানে অনেক কিছু পরিবর্তন হয়। একটি জিনিস বলা যায় যে এই ছেলেরা একটি বলয়ের মধ্যে অনেক অনেক দিন ছিল এবং ধীরে ধীরে ক্লান্ত হতে শুরু করেছেন তারা।’

হ্যাডিনও মেনে নিয়েছেন দীর্ঘ সময় কোয়ারেন্টাইন ক্রিকেটারদের ক্লান্ত করে দেয়। কিন্তু যেখানে অস্ট্রেলিয়া কোয়ারেন্টাইনে থেকে খেলছে, ভারত কেন পারবে না। ভারত তো কঠিন বিধিমালা মেনেয় অস্ট্রেলিয়া সফরে এসেছে, এরপরও এমন করছে হারের ভয়ে। হ্যাডিনের বক্তব্য,

‘কিন্তু আপনি কোনও টেস্ট ম্যাচকে সরাতে পারেন না। যদি কোনও রাজ্যে ভাইরাস না থাকে কারণ আপনি কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। আপনি অস্ট্রেলিয়ায় এসেছে জেনে যে এখানে কি হতে পারে, আপনি জানতেন যে এখানে কড়া নিষেধাজ্ঞা থাকতে পারে, আপনি জানতেন যে এসব হবে। হ্যাঁ, খুবই বেশি সময় ধরে চলছে এটি, প্রথমে আইপিএল এর জন্য কোয়ারেন্টাইন, আর এখন অস্ট্রেলিয়াতে এসে একই জিনিস। কিন্তু একই জিনিস ঘটছে অস্ট্রেলিয়া দলের সাথেও, কিন্তু আমরা তাদের কাছ থেকে কোনোরকম কান্নাকাটি পাইনি আর এই নিয়ে তারা অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছে। আমার মনে হয়, ওনারা (ভারতীয় দল) চেষ্টা করছেন যাতে তাদের গ্যাবায় খেলতে না হয়।’

দুই দলের মধ্যে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচ সিডনিতে ৭ জানুয়ারি থেকে খেলা হবে। সূচি অনুযায়ী চতুর্থ ও শেষ টেস্ট ১৫ জানুয়ারি থেকে ব্রিসবেনে শুরু হবে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জোহানেসবার্গে ১ম দিনেই চালকের আসনে দক্ষিণ আফ্রিকা

Read Next

স্টাম্প মাইকে ধরা পড়া নাসিম-আব্বাসের আলাপ ভাইরাল

Total
2
Share