জোহানেসবার্গে ১ম দিনেই চালকের আসনে দক্ষিণ আফ্রিকা

জোহানেসবার্গে ১ম দিনেই চালকের আসনে দক্ষিণ আফ্রিকা

জোহানেসবার্গ টেস্টে পেস বোলিংয়ে উত্তাপ ছড়ালেন প্রোটিয়া পেসার আনরিখ নরকিয়া। তাঁর ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে শ্রীলঙ্কা থেমে গেল ১৫৭ রানেই। এরপর ব্যাটিংয়ে ডিন এলগার দিচ্ছেন বড় লিডের হুংকার। ১ উইকেটে ১৪৮ রান করা দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম দিন শেষে ৯ রানে পিছিয়ে।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা শ্রীলঙ্কা শুরুতেই আনরিখ নরকিয়ার বোলিং তোপে বিপর্যস্ত। লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ২ রান করেই ফিরে যান প্যাভিলিয়েন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে কুশল পেরেরা ও লাহিরু থিরিমান্নের ব্যাট থেকে আসে ৫২ রান। ৬০ রান করা পেরেরাকে ক্যাচ বানিয়ে ফেরান ভিয়ান মুল্ডার। এই ওভারেই কুশল মেন্ডিসকে (০) ফিরিয়ে নিজের দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন মুল্ডার। তাঁর করার পরের ওভারে শ্রীলঙ্কার নেই আরও এক উইকেট। এবার উইকেট গেল ১৭ রানে ব্যাট করা থিরিমান্নের।

ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট খেলতে নামা মিনোদ ভানুকাকে ৫ রানের বেশি করতে দেয়নি নরকিয়া। নরকিয়ার তোপে জোহানসবার্গে এদিন দিশেহারা শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং লাইন। নরকিয়ার বলেই নিরোশান ডিকওয়েলার ক্যাচ নেন ডি কক। ১০০ রান পার হওয়ার আগেই ৬ উইকেট নেই শ্রীলঙ্কার।

এরপর দাসুন শানাকাকে দ্রুত ফিরিয়ে দেন আনরিখ নরকিয়া। ২২ রান করা চামিরাকে ফিরিয়ে ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো পাঁচ উইকেট তুলে নেন আনরিখ নরকিয়া। শেষদিকে ভানিদু হাসারাঙ্গা ২৯ রানের ইনিংস খেলেন। শেষ ব্যাটসম্যান আসিথা ফার্নান্দোকে বোল্ড করে প্রথমবারের মতো ৬ উইকেট দখল করেছেন আনরিখ নরকিয়া। আর তাতেই ১৫৭ রানে থেমে যায় শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। প্রোটিয়া পেসারদের সামনে মাত্র ৪০.৩ ওভার ব্যাটে টিকে রয় লঙ্কানরা।

বল হাতে নিজের ক্যারিয়ার সেরা পারফর্ম্যান্স করেন আনরিখ নরকিয়া। ৫৬ রানে নেন ৬ উইকেট। ভিয়ান মুল্ডারের ঝুলিতে ৩ উইকেট।

নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা উইকেট হারায় শুরুতেই। ওপেনার এইডেন মার্করাম মাত্র ৫ রানেই ফেরত যান সাজঘরে। এই উইকেট হারানোর পর আর কোনো বিপদ দেখেনি প্রোটিয়া শিবির। স্বাচ্ছন্দ্যেই প্রথম দিন শেষ করে ওপেনার ডিন এলগার ও তিনে নামা ভান ডার ডুসেনের ব্যাটে।

প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে এই দুইয়ের ব্যাট আসে ১১৪ রান। ১ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রানে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা। শ্রীলঙ্কার রান থেকে ৯ রানে পিছিয়ে। ১৬ চারের সাহায্যে ১১৯ বলে ৯২ রানে অপরাজিত এলগার। ডুসেন অপরাজিত ৪০ রানে।

দিন শেষে শ্রীলঙ্কার একমাত্র সফল বোলার অভিষিক্ত আসিথা ফার্নান্দো। ১০ ওভার বল করে ৩০ রান খরচে শিকার করেন ১টি উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (প্রথম দিন শেষে)

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংসঃ ১৫৭/১০ (৪০.৩ ওভার) পেরেরা ৬০, থিরিমান্নে ১৭, হাসারাঙ্গা ২৯, চামিরা ২২; নরকিয়া ১৪.৩-১-৫৬-৬, সিপামলা ৯-৩-২৭-১, মুল্ডার ৭-৩-২৫-৩

দক্ষিণ আফ্রিকা ১ম ইনিংসঃ ১৪৮/১ (৩৭ ওভার) এলগার ৯২*, ডুসেন ৪০*; আসিথা ১০-২-৩০-১

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

কর ইস্যুতে ভারতীয় বোর্ডের সামনে দুইটি পথ

Read Next

ভারতের সিদ্ধান্তে হ্যাডিনের বিস্ফোরক মন্তব্য

Total
3
Share