বে ওভালে ৫ম দিনের রোমাঞ্চ, শেষ হাসি স্বাগতিকদের

বে ওভালে ৫ম দিনের রোমাঞ্চ, শেষ হাসি স্বাগতিকদের
Vinkmag ad

শেষ দিনে জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার ছিল ৩০২ রান, নিউজিল্যান্ডের দরকার ছিল ৭ উইকেট। ৩৪ রান নিয়ে ৪র্থ দিন পার করা আজহার আলি ৫ম দিনে এসে যোগ করেন আর কেবল ৪ রান। দিনের ২য় ওভারেই ৭ উইকেটের ১ টির দেখা পেয়ে যায় স্বাগতিকরা।

তবে এরপর ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তান। লাঞ্চ বিরতির আগে তো বটেই, দ্বিতীয় সেশনেও কোন উইকেট হারায়নি মোহাম্মদ রিজওয়ানের দল। ফাওয়াদ আলম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান মিলে গড়েন দারুণ এক জুটি।

৪ উইকেটে ২১৫ রান নিয়ে চা বিরতিতে যায় পাকিস্তান। জয়ের জন্য সমীকরণটা তখন ছিল শেষ সেশনে পাকিস্তানের দরকার ১৫৮ রান, নিউজিল্যান্ডের ৬ উইকেট।

যেভাবে রিজওয়ান ও ফাওয়াদ ব্যাট করছিলেন, তাতে ম্যাচ ড্র হবার পক্ষে বাজি ধরছিলেন সবাই। তবে চা বিরতির পরে ধস নামে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইন আপে।

১০৩ তম ওভারে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে এলবিডব্লিউয়ের ফাদে ফেলেন কাইল জেমিসন। ১৯১ বলে ৬০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন রিজওয়ান। ৩ ওভার বাদে ফিরে যান সেঞ্চুরি করা ফাওয়াদ আলমও। নেইল ওয়াগনারের বলে উইকেটের পেছনে বিজে ওয়াটলিংকে ক্যাচ দেন তিনি। ২৬৯ বলে ১৪ চারে সাজানো ইনিংসে ১০২ রান করেন তিনি।

এরপর একে একে বিদায় নেন ইয়াসির শাহ (০), ফাহিম আশরাফ (১৯), মোহাম্মদ আব্বাস (১)। আব্বাস যখন ৯ম ব্যাটসম্যান হিসাবে আউট হন তখন ম্যাচ বাঁচাতে পাকিস্তানকে টিকতে হতো আরো ১২ ওভার ২ বল।

শাহীন শাহ আফ্রিদি ও নাসিম শাহ বোল্ট-স্যান্টনারদের সামলে খেলে যাচ্ছিলেন। স্যান্টনারের বলে আউট হওয়া নাসিম মোকাবেলা করেন ২৪ বল, অপরাজিত শাহীন শাহ আফ্রিদি (৮*) খেলেন ৩০ বল। তবে তা যথেষ্ট হয়নি, শেষ হাসি হাসে কেন উইলিয়ামসনের দল।

প্রথম ইনিংসে ১২৯ রান ও দ্বিতীয় ইনিংসে ২১ রান করে ম্যাচ সেরা হন কেন উইলিয়ামসন।

সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টটি মাঠে গড়াবে আগামী ৩ জানুয়ারি, ক্রাইস্টচার্চে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এনওএসি পেতে পারেন কেবল নাসির হোসেন

Read Next

দল থেকে বাদ পড়লেন জো বার্নস

Total
4
Share