যেকারণে আম্পায়ারিং কোর্স করছেন রবিউল ইসলাম

যেকারণে আম্পায়ারিং কোর্স করছেন রবিউল ইসলাম

রবিউল ইসলাম শিবলু, বাংলাদেশ দলে পেস অ্যাটাকে এক সময়কার সেরা কয়েক পেসারের একজন ছিলেন। পেসের উত্তাপও দেখিয়েছেন বাংলাদেশের জার্সিতে, তবে তিনি হারিয়ে গেছেন মূলস্রোত থেকেই। খেলা থেকে অবসর নিলেও ক্রিকেট ছাড়ছেন না। নিজেকে আম্পায়ার পেশায় জড়িয়েছেন, আম্পায়ারিং সম্পর্কে আরও বিস্তরভাবে জানতে করছেন আম্পায়ার্স ট্রেনিং কোর্স।

দেশের সাবেক ক্রিকেটারদের আম্পায়ারিং পেশায় আনতে বিসিবির আম্পায়ার্স ট্রেনিং কোর্সে অংশ নিয়েছেন সাতক্ষীরার প্রাক্তন পেসার রবিউল ইসলাম শিবলু। নিজেকে আরও দক্ষ করতে বিসিবির এই আম্পায়ারিং কোর্সে এসেছেন রবিউল,

‘আসলে আমাদের এখানে আসার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে আম্পায়ারিংয়ের একটি কোর্স হচ্ছে তো সেই কোর্সের জন্যই আমরা এখানে আসছি। তো বেসিকালি লাইফে ক্রিকেট খেলা করেছি ওভারঅল যদি হিসাব করা হয় ক্রিকেটের বাইরে কোচিং ক্যারিয়ার থাকে, আম্পায়ারিংয়ের ক্যারিয়ার থাকে। তো অলরেডি কোচিং ক্যারিয়ারের একটা ধাপ সম্পূর্ণ করে এখান থেকে চলে গিয়েছিলাম। এটা বিসিবিরই একটা প্রোগ্রাম তো সংবাদটা পাওয়ার পরেই এই কোর্সটা করতে এসেছি।’

বাংলাদেশি আম্পায়ারদের সংখ্যা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অতি সামান্যই। বাংলাদেশি পেসার রবিউল একসময় বাইশগজ দাপিয়েছেন; ক্রিকেট থেকে অবসরের পর পেশা হিসাবে বেছে নিলেন আম্পায়ারিং। নতুন পেশা সম্পর্কে আরও বিস্তরভাবে জানতেই বিসিবির অধীনে আম্পায়ার্স কোচে যোগ দিলেন রবিউল।

‘আসলে আম্পায়ারিং নিয়ে সংকট আছে কিনা এটা আমি  বলতে পারব না। তবে আমার নিজের পার্সোনাল ক্যারিয়ারের কথা যদি হিসাব করা হয় তবে সেক্ষেত্রে একটা দীর্ঘ সময় ধরে ক্রিকেট খেলা করেছি, বাংলাদেশ টিমেও রিপ্রেজেন্ট করছি তো বেসিকালি কোচিং ক্যারিয়ারের সম্মানটা এক রকম প্লেয়ারদের সম্মানটা এক রকম আম্পায়দের সম্মানটা এক রকম। তো বেসিকালি আমার আম্পায়ারিং সম্পর্কে অনেক কিছুই জানার বাকি ছিল। যেগুলা এই কোর্স করার পরে জানতে পারছি।’

বাংলাদেশে প্রায় ৩০ জন আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারি বিসিবির বেতনভুক্ত। তাঁদের বাইরে বাকি সব আম্পায়ার বিসিবির চুক্তিতে যোগ দিতে হলে কয়েক ধাপ পেরিয়ে আসতে হয়। নিজেকে আরও উন্নত করতেই রবিউলের এমন সিদ্ধান্ত।

‘একচুয়ালি এটি কোয়ালিফাইং কোর্স, বাট আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে আমি আম্পায়ারিং সম্পর্কে যা জানতাম তার থেকেও অনেক কিছু জানার আছে এখানে। তো সে কারনেই এখানে আসা। একচুয়ালি ঝুঁকছি এটা বলা ভুল হবে। কোচেস ট্রেনিং কিন্তু আমি লেভেল ওয়ান করছি আমি তো বেসিকালি আম্পায়ারিংয়েও যেটা আমি এখনি ক্লিয়ার করলাম যে আম্পায়িংয়েও অনেক কিছু শেখার আছে জানার আছে তো একচুয়ালি জানার জন্য শেখার জন্যই আমার এখানে আসা। পরিবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেব কোন ক্যারিয়ারে আমি ইনভলভ হব।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ছিটকে গেলেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা

Read Next

লঙ্কানদের জবাব ভালভাবেই দিচ্ছে প্রোটিয়ারা

Total
4
Share