পেসাররা অ্যাটাক করবে, যদি…

পেসাররা অ্যাটাক করবে, যদি
Vinkmag ad

২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ঘরের মাঠে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। ৩ ওয়ানডের পর দুইটি টেস্টও খেলবে দুই দল। এই সিরিজের আগে হয়ে যাওয়া দুই টুর্নামেন্টে (বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ ও বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ) দারুণ পারফর্ম করেছেন পেসাররা।

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পিচ স্পিন সহায়ক হবে নাকি পেস সহায়ক তা নির্ভর করবে টিম ম্যানেজমেন্টের ওপর। তবে পেসার আল আমিন মনে করেন গত ১-২ বছরে পেসারদের পারফরম্যান্স দারুণ ছিল। পেসাররা যারাই সুযোগ পাবে তারাই ভাল করবে বলে বিশ্বাস তার।

গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে আল আমিন হোসেন বলেন,’উইকেট স্পিনিং হবে নাকি পেস সহায়ক হবে তা টিম ম্যানেজমেন্টের ব্যাপার। যদি হয় (পেস সহায়ক), তাহলে আমরা পেস বোলিং ইউনিট শেষ ১-২ বছর ধরে খুব ভাল করছি। তো যারাই খেলবে, যারাই সুযোগ পাবে তারা যদি সেরাটা দিতে পারে তাহলে ইন শা আল্লাহ ভাল কিছু হবে।’

উইকেটের ধরণ বুঝে দায়িত্ব বদলাবে ক্রিকেটারদের। পরিস্থিতি আমলে নিয়ে মানিয়ে নেবার তাগিদ আল আমিনের।

‘আসলে সবকিছু টিমের প্ল্যানিংয়ের ব্যাপার। যদি স্লো উইকেট হয়, একটা বা দুইটা পেস বোলার খেলে। তখন আসলে একধরণের প্ল্যান থাকে। যখন স্পিনাররা অ্যাটাক করে, তখন আমাদের ডিফেন্সিভ যেতে হয়। যখন পেস সহায়ক উইকেট হয়, তখন পেসাররা অ্যাটাক করে, স্পিনাররা ডিফেন্সিভ। তো যখন যে সিচুয়েশন আসবে সে সিচুয়েশন অনুযায়ী ক্রিকেটারদের কোপ আপ করতে হবে। এটাই সিস্টেম।’

দলে সুযোগ পাবেন কিনা তা এখনো জানেন না আল আমিন। তবে সুযোগ পেলে জয়ে অবদান রাখতে চান তিনি।

‘সবসময়ই ন্যাশনাল টিমে খেলার টার্গেট থাকে। এমন কিছু করতে চাই যাতে বাংলাদেশের জয়ে অবদান রাখতে পারি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ, প্রস্তুতি যথেষ্ট বলছেন আল আমিন

Read Next

নতুন হেড কোচ পাচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েরা

Total
1
Share