বায়ো-বাবলের কারণে বিগ ব্যাশকে টম ব্যান্টনের ‘না’

টম ব্যান্টন

কোভিড-১৯ এর বায়ো-বাবল ইস্যুতে ক্লান্তির কথা বলে ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি তারকা টম ব্যান্টন অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ লিগ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। টম ব্যান্টন না খেলার সিদ্ধান্ত নেওয়াতে টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ধাক্কা খেল ব্রিসবেন হিট।

বর্তমান পরিস্থিতি বায়ো-বাবল ছাড়া ক্রিকেট আয়োজন করা অসম্ভব। বায়ো-বাবল এক কোথায় গোটা বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে নিজের গণ্ডির মধ্যে থাকা। এই জিনিসটা দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকলে মানসিক ক্লান্তি আসতে বাধ্য ক্রিকেটারদের মধ্যে।

করোনা আবহে নিউ নর্মাল পরিস্থিতিতে জৈব সুরক্ষা বলয় অর্থাৎ বায়ো-বাবলের মধ্যে থেকেই আইপিএল খেলার অভিজ্ঞতা হয়েছে টম ব্যান্টনের। এর আগে নিজ দেশেও সিরিজের আগে বায়ো-বাবলে ছিলেন এই টি-টোয়েন্টি তারকা। রিজার্ভ খেলোয়াড় হিসাবে ব্যান্টন বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ইংল্যান্ড দলের সাথে রয়েছেন। ঘরের মৌসুমে তিনি আয়ারল্যান্ড, পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অংশ নিয়েছিলেন।

বায়ো বাবলে বেশিদিন থাকলে মনের উপর প্রভাব পড়ে। কারণ একই কাজ দিনের পর দিন করে যেতে হয়। একঘেয়ে জীবন। এমন পরিবেশ টম ব্যান্টনের পক্ষে না। তাঁর বক্তব্য,

‘যতটা ভেবেছিলাম, গোটা বিষয়টা তার থেকে অনেক বেশি কঠিন। মনে হচ্ছে এই পরিবেশে থাকাটা আমার জন্য ভাল হচ্ছে না।’

ব্রিসবেন হিটের ওপেনিংয়ে ভরসার নাম ছিলো টম ব্যান্টন। কিন্তু এবার ব্যান্টন না খেলায় ব্রিসবেনকে ভাবতে হবে ভিন্নভাবে। নিজের না খেলার বিষয়টা হিটের কোচ ও ক্যাপ্টেন বুঝবে বলেই বিশ্বাস ব্যান্টনের,

‘ব্রিসবেন হিট আমার ওপর অনেকটাই নির্ভর করেছিল। গত বছর বিবিএল চলাকালীন ব্রিসবেন হিট আমার খুব ভাল দেখাশোনা করেছিল। তবে কোচ ড্যারেন লেহম্যান এবং ক্যাপ্টেন ক্রিস লীনের সঙ্গে কথা বলার সময় আমি জানতাম, ওরা আমার অবস্থাটা বুঝবে।’

আসন্ন বিগ ব্যাশে ব্রিসবেন হিটের প্রথম ম্যাচ ১১ ডিসেম্বর মের্লবোর্ন স্টার্সের বিপক্ষে। টুর্নামেন্টে না খেললেও সমর্থকদের ব্রিসবেন হিটের পাশে থাকার জন্যে বলেছেন ব্যান্টন,

‘আমি ভক্ত ও সমর্থকদের ধন্যবাদ জানাতে চাই যারা টুর্নামেন্টের সময় ব্রিসবেন হিটকে সমর্থন করতে প্রস্তুত আছেন এবং তাদের জন্য আমার আফসোস যে আমি সেখানে থাকব না।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আজ মাশরাফির ফিটনেস টেস্ট

Read Next

ইনিংস ব্যবধানে জিতল নিউজিল্যান্ড

Total
3
Share