খুলনার সহজ জয়, বরিশালের হারের হ্যাটট্রিক

খুলনার সহজ জয়, বরিশালের হারের হ্যাটট্রিক

আগের চার ম্যাচে ব্যর্থ হওয়া ব্যাটসম্যানদের গড়ে দেওয়া মঞ্চকে কাজে লাগিয়ে শুক্রবার ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে ৪৮ রানের জয় তুলে নিল জেমকন খুলনা। এই নিয়ে টানা তৃতীয় হার সঙ্গী হল তামিম ইকবালের ফরচুন বরিশালের। এদিকে টুর্নামেন্টে তৃতীয় জয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় অবস্থান নিশ্চিত করলো জেমকন খুলনা।

১৭৪ রানের লক্ষ্য তাড়ায় দারুণ শুরু পায় ফরচুন বরিশাল। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও পারভেজ হোসেন ইমন ৭.২ ওভারে তুলে ফেলে ৫৭ রান। কিন্তু আগের ম্যাচে খুলনার জয়ের নায়ক শুভাগত হোম এদিন নিজের দ্বিতীয় ওভারেই দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে দেন। ২১ বলে ৪ চার ১ ছক্কায় ৩২ রান করে তামিম ফিরেছেন জহরুল ইসলামের হাতে ক্যাচ দিয়ে। ইমন ফিরেছেন ২৬ বলে ১৯ রান করে বোল্ড হয়ে।

২ রানের ব্যবধানে আফিফ হোসেনও রান আউটে কাটা পড়লে ৬০ রানেই তিন উইকেট হারিয়ে বসে ফরচুন বরিশাল। সেখান থেকে ইরফান শুক্কুর-তৌহিদ হৃদয়ে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা। সাকিব আল হাসানের বলে ১৬ রান করে বোল্ড হন শুক্কুর। ৩৩ রান করে তৌহিদ হৃদয় বিদায় নিলে বরিশালের শেষ ভরসারও ইতি ঘটে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো বরিশাল গুটিয়ে যায় ১২৫ রানে।

ফরচুন বরিশালকে অলআউট করার পথে জেকমন খুলনার হয়ে সর্বোচ্চ দুইটি করে উইকেট নেন শুভাগত হোম, শহিদুল ইসলাম ও হাসান মাহমুদ। একটি করে শিকার সাকিব আল হাসান ও আল আমিন হোসেন।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্রথম চার ম্যাচে ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে জেমকন খুলনার টপ অর্ডার। তিন ম্যাচে ওপেনিং জুটি পেরোতে পারেনি দুই অঙ্ক। আরেক ম্যাচের জুটিটিও ১৩ রানের! এরপর বাকি ব্যাটসম্যানরাও যথারীতি হয়েছিলেন ব্যর্থ। পাওয়ার প্লে তে চার ম্যাচেই হারিয়েছে ২ থেকে ৪ উইকেট।

আজ ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে ম্যাচের আগে গতকাল দলটির ব্যাটিং কোচ আফতাব আহমেদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন দীর্ঘ বিরতির পর ক্রিকেটে ফেরায় ভুগতে হয়েছে ব্যাটসম্যানদের। তবে পরবর্তী ম্যাচগুলোতে পুশিয়ে দেবে ব্যাটসম্যানরা এমন বার্তাও দিয়েছেন।

টস হেরে ব্যাট করা জেমকন খুলনা ওপেনিং জুটিতে আনেন পরিবর্তন। এনামুল হক বিজয়কে একাদশের বাইরে রেখে প্রথমবারের মত সুযোগ দেন জাকির হোসেনকে। সুযগ পেয়ে নিজের প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের। জহরুল ইসলাম অমির সাথে উদ্বোধনী জুটি ১৯ রানে থামলেও ইমরুল কায়েসকে নিয়ে জেমকন খুলনার টপ অর্ডারের ব্যর্থতার গ্লানি কিছুটা হলেও মুছে দেন।

ইমরুলের সাথে ৬৮ বল স্থায়ী দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে যোগ করেন ৯০ রান। যেখানে ৩৪ বলে ২ চার ১ ছক্কায় ইমরুলের ব্যাট থেকে আসে ৩৭ রান। তার আগেই ৩৩ বলে ৮ চারে নিজের ফিফটি তুলে নেন জাকির। কায়েসের পর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকেননি জাকিরও। তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ফিরেছেন ৪২ বলে ১০ চারে ৬৩ রান করে।

ওপেনিং থেকে ৪ নম্বরে নেমে আসা সাকিব আল হাসান আজও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন। ১০ বলে করতে পারেননি ১৪ রানের বেশি। শেষদিকে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ১৪ বলে ২৪ রানে ভর করে ৬ উইকেতে ১৭৩ রানে থামে জেমকন খুলনা। ফরচুন বরিশালের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট শিকার কামরুল ইসলাম রাব্বির। দুইটি নেন তাসকিন আহমেদ, স্পিনার তানভীর ইসলামের শিকার একটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

জেমকন খুলনা ১৭৩/৬ (২০), জহুরুল ২, জাকির ৬৩, ইমরুল ৩৭, সাকিব ১৪, মাহমুদউল্লাহ ২৪, শামীম ৫, আরিফুল ৬*, শুভাগত ৫*; তাসকিন ৪-০-৪৩-২, রাব্বি ৪-০-৩৩-৩, তানভীর ২-০-১৬-১।

ফরচুন বরিশাল ১২৫/১০ (১৯.৫), তামিম ৩২, ইমন ১৯, আফিফ ৩, হৃদয় ৩৩, শুক্কুর ১৬, অঙ্কন ১০, মিরাজ ১, তাসকিন ০, তানভীর ০, রাব্বি ১, রাহি ০*; সাকিব ৪-০-২২-১, শুভাগত ৩-০-১৮-২, আল আমিন ৪-০-৩১-১, শহিদুল ২.৫-০-১৭-২, হাসান ৪-০-১৮-২

ফলাফলঃ জেমকন খুলনা ৪৮ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ জাকির হাসান (জেমকন খুলনা)।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ফিরে গেছেন নিয়াল ও’ব্রায়েন, আসছেন আনজুম চোপড়া

Read Next

মিরপুরে আগে ব্যাটিংয়ে বেক্সিমকো ঢাকা

Total
2
Share