জাকিরের ফিফটিতে জেমকন খুলনার বড় সংগ্রহ

জাকিরের ফিফটিতে জেমকন খুলনার বড় সংগ্রহ

ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে ৪, মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ৪, গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে ৬, বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে চতুর্থ ম্যাচে ১৩। জেমকন খুলনার উদ্বোধনী জুটি ছিল দলটির দুশ্চিন্তার কারণ। একপ্রান্তে এনামুল হক বিজয় স্থায়ী থাকলেও অপর প্রান্তে প্রথম দুই ম্যাচে ছিলেন ইমরুল কায়েস, পরের দুই ম্যাচে সাকিব আল হাসান।

পঞ্চম ম্যাচে এসে রান খরায় ভুগতে থাকা এনামুল হক বিজয়কে একাদশের বাইরে রাখে জেমকন খুলনা। তার পরিবর্তে একাদশে ঢোকা জাকির হাসান, জহুরুল ইসলামের সঙ্গে ওপেন করতে নামেন। ১০ বলে ২ রান করে জহুরুল ইসলাম আউট হলে ভাঙে ১৯ রানের উদ্বোধনী জুটি।

তবে টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে আলো ছড়ান জাকির। তিনে নামা ইমরুল কায়েসের সঙ্গে গড়েন ৯০ রানের জুটি। ৩য় ব্যাটসম্যান হিসাবে জাকির যখন আউট হন তখন তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ৬৩ রান। ৪২ বলে ১০ চারে সাজানো ইনিংস শেষ হয় তাসকিনের বলে তৌহিদ হৃদয়কে ক্যাচ দিয়ে।

এর আগে ইমরুল কায়েস আউট হন ৩৪ বলে ৩৭ রান করে। ২ টি চার ও ১ টি ছক্কা হাঁকানো ইমরুলকে সাজঘরে ফেরান কামরুল ইসলাম রাব্বি। আজ ব্যাট হাতে শুরুটা মন্দ না করা সাকিব আল হাসান ফেরেন তৌহিদ হৃদয়ের দারুণ এক ক্যাচে। তানভীর ইসলামের বলে সাকিবের ছক্কা হাকানোর প্রয়াস ব্যর্থ হয় শুন্যে ভেসে তৌহিদ হৃদয় দারুণ এক ক্যাচ নিলে।

এরপর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। শেষ ওভারে টানা দুই বলে শামীম হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে ফিরিয়ে দেন কামরুল ইসলাম রাব্বি। যদিও তা খুলনার বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দেবার পথে বাধা হয়নি। উইকেটে এসেই বাউন্ডারি হাঁকান আগের ম্যাচে খুলনার জয়ের নায়ক শুভাগত হোম, ইনিংসের শেষ বলে ছক্কা হাঁকান আরিফুল হক।

২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে জেমকন খুলনা। যা এখন অব্দি এই টুর্নামেন্টে তৃতীয় সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে)-

জেমকন খুলনা ১৭৩/৬ (২০), জহুরুল ২, জাকির ৬৩, ইমরুল ৩৭, সাকিব ১৪, মাহমুদউল্লাহ ২৪, শামীম ৫, আরিফুল ৬*, শুভাগত ৫*; তাসকিন ৪-০-৪৩-২, রাব্বি ৪-০-৩৩-৩, তানভীর ২-০-১৬-১।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আগে ব্যাটিংয়ে খুলনা, বাদ পড়েছেন বিজয়

Read Next

ফিরে গেছেন নিয়াল ও’ব্রায়েন, আসছেন আনজুম চোপড়া

Total
1
Share