অন্যদের মত ‘জোরাজুরি’ করছেন না লিটন

সৌম্যের সাথে রসায়ন জমে যাওয়ার কারণ জানালেন লিটন

এখন পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের সবচেয়ে সফল দল গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। আর টুর্নামেন্টের সবচেয়ে ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান দলটির ওপেনার লিটন দাস। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহলের তালিকায় শীর্ষে থাকা লিটনের ব্যাট থেকে এসেছে ৪ ম্যাচে দুই ফিফটিতে ২০০ রান। মানসিকতার বদলকে নিজের ধারাবাহিকতার পেছনে মূল কারণ হিসেবে জানিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান।

বুধবার মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর বিপক্ষে খেলেছেন ক্যারিয়ার সেরা ৭৮ রানের ইনিংস। ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতা লিটন বলেন,

‘লাস্ট তিনটা ম্যাচ মোটামুটি ভালো ব্যাটিং করেছি আমি। আমার ক্রিকেট আমি অনেকটা পরিবর্তন করেছি। আমার মনে হয় আমার সম্পূর্ণ মাইন্ড সেটাপ। যেহেতু বল ব্যাটে ভালো আসছিল কুয়াশার কারণে, আমি চেষ্টা করেছি নিজের শটগুলো খেলার ব্যালেন্স রেখে।’

পুরো টুর্নামেন্টে অন্যান্য দলের ওপেনাররা নিয়মিতই হচ্ছেন ব্যর্থ। বড় ইনিংসের দেখা পাচ্ছেন সিনিয়র ও অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরাও। এর পেছনে লিটন দায়ী করেছেন তাড়াহুড়ো আর বাড়তি কিছু করার চেষ্টাকে।

নিজের সাফল্যের উদাহরণ টেনে উইকেট রক্ষক এই ব্যাটসম্যান যোগ করেন,

‘পুরো টুর্নামেন্টটা যদি দেখেন, পাওয়ার প্লে তে খুব কম রান হচ্ছে এবং দ্রুত উইকেট পড়ে যাচ্ছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে অনুভব করছি ব্যাটসম্যানরা হয়তো জোরাজুরি বেশি করছে। যেটা আমি আপাতত এই টুর্নামেন্টে এখনো পর্যন্ত করিনি। আমি শুধু বেসিকে অনড় ছিলাম, বল দেখবো এবং খেলবো। অতিরিক্ত কোন চার্জ করবোনা। মনে হয় এই জিনিসটা আমাকে ফল দিচ্ছে।’

ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের মত দল হিসেবেও লিটনের গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম চার ম্যাচের সবকটিতে জিতে আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। প্রথম তিন ম্যাচে অনায়েসে জয় পাওয়া চট্টগ্রাম রাজশাহীর বিপক্ষে জিতেছে শেষ ওভারের রোমাঞ্চে। ১ রানে পাওয়া এই জয়টি দলের জন্য প্রয়োজন ছিল বলেও মনে করেন চট্টগ্রামের এই ওপেনার।

ম্যাচ শেষে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের ওপেনার লিটন দাস জানান,

‘তিনটা ম্যাচ আমরা নরমালি জিতেছি। আজকের ম্যাচটা আমরা প্রায় হেরেই যাচ্ছিলাম। টি-টোয়েন্টিতে এরকম একটা জয় দরকার দলের জন্য। আমরাতো পারি, আজকে এ জিনিসটাও বুঝলাম যে বোলিং করেও ডিফেন্ড করতে পারবো।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের জয়রথ ছুটছেই

Read Next

দর্শকদের মিস করেছেন লিটন

Total
1
Share