প্রতি ম্যাচেই শিখছেন তাসকিন, নজর দিচ্ছেন ভুল কমানোতে

প্রতি ম্যাচেই শিখছেন তাসকিন, নজর দিচ্ছেন ভুল কমানোতে

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামকে ১৫১ রানে আঁটকে ফেলার পরেও ১০ রানের পরাজয় বরণ করতে হয় ফরচুন বরিশালকে। দলের পরাজয়ে হতাশ পেসার তাসকিন আহমেদও। স্লগ ওভারের দুর্বলতা এবং ব্যাটিংয়ে ভালো পার্টনারশিপের অভাবকে বড় করে দেখছেন তাসকিন।

‘আসলে উইকেট ভালোই ছিল, রানটা চেজেবল ছিল। যদিও আমরা বোলিংয়ে স্টার্টের পর মাঝখানে ভালোভাবে কামব্যাক করেছিলাম। লাস্টে আসলে ১০-১৫ টা রান বেশি দিয়ে ফেলেছিলাম। তো এটা খেলারই একটা অংশ এবং ম্যাচটার মোমেনটাম এক পর্যায়ে গিয়ে আমাদের দিকেও ছিল। হয়ত শেষ পর্যন্ত গিয়ে যদি দুই একটা পার্টনারশিপ হত, ম্যাচটা আমাদের পক্ষে যেত।’

দলের খেলোয়াড়দের উপর আত্নবিশ্বাস রেখে সামনের ম্যাচগুলোতে ভালো করার প্রত্যয় তাসকিনের।

‘আসলে সত্যি কথা বলতে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবসময় বল টু বল রান করার একটা প্রেসার থাকে এজন্য ব্যাটসম্যানকে চান্স নিতেই হয় আর তাছাড়া যেহেতু একটা সময় আসকিং রান রেট ৯/১০ করে ছিল তাই আমাদের ব্যাটসম্যানদেরও চান্স নিতেই হচ্ছিল। সন্দেহ নাই আমাদের দলে যারা ছিল সবাই অনেক পরীক্ষিত এবং ভালো করার অ্যাবিলিটি আছে। দুর্ভাগ্যবশত হয়নি। তো এই ম্যাচের ভুলগুলো থেকে ইন শা আল্লাহ সামনের ম্যাচগুলোতে ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টা করবো।’

ম্যাচে তাসকিন ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন। তবে বোলিংয়ে আরও ভালো করার তাগিদ অনুভব করছেন তাসকিন।

‘আমার বোলিংটা আরো ভালো করার দরকার ছিল। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এক্সিকিউশন খারাপ হয়েছে কিন্তু প্রতিটা ম্যাচেই শিখছি। তো চেষ্টা করব এই ম্যাচের ভুলগুলো যাতে সামনের ম্যাচে না হয়। ইন শা আল্লাহ ভালো কিছু হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

হতাশার কিছু দেখছেন না নান্নু, বললেন ধৈর্য ধরতে

Read Next

ঢাকার হারের হ্যাটট্রিক, জয়ের ধারায় খুলনা

Total
2
Share