চট্টগ্রামের জয়রথ ছুটছেই

মুস্তাফিজের '৪', ৮৬ তেই অলআউট খুলনা

৫ দলের মোট ৮০ জন বাংলাদেশি ক্রিকেটার নিয়ে ২৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ। টুর্নামেন্টের চতুর্থ দিনের প্রথম ম্যাচে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে ফরচুন বরিশাল ও গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। এই ম্যাচের খুটিনাটি আপডেট এই লাইভ রিপোর্টে।

পুর্নাঙ্গ ম্যাচ রিপোর্ট পড়ুন এখানে

২০ ওভার খেলে ৮ উইকেট হারানো ফরচুন বরিশাল থেমেছে ১৪১ রান করে। ১০ রানে জিতেছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। ৩ টি করে উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামঃ ১৫১/৭ (২০), লিটন ৩৫ , সৌম্য ৫, মিঠুন ১৭, শামসুর ২৬ , মোসাদ্দেক ২৮, জিয়া ২, সৈকত আলি ২৭, নাহিদুল ৮*; সুমন ৪-০-৩১-১, তাসকিন ৪-০-৩০-১, আবু জায়েদ ৪-০-৪২-২, রাব্বি ৪-০-২৩-১, মিরাজ ৪-০-২৫-১

ফরচুন বরিশালঃ ১৪১/৮ (২০), মিরাজ ১৩, তামিম ৩২, ইমন ১১, আফিফ ২৪, হৃদয় ১৭, ইরফান ২, মাহিদুল ১০, তাসকিন ২, রাব্বি ২, সুমন ১৫; নাহিদুল ৪-০-২৬-০, শরিফুল ৪-০-২৭-৩, মোসাদ্দেক ৩-০-১৭-১ , সঞ্জিত ৩-০-২০-০, মুস্তাফিজ ৪-০-২৩-৩, সৌম্য ২-০-২০-১

ফলাফলঃ গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ১০ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ শরিফুল ইসলাম (গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম)।

১২২ এ নেই বরিশালের ৮ উইকেটঃ

প্রথম ওভারের মত দ্বিতীয় ওভারেও উইকেট পেয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৬ নম্বরে নামা ইরফান শুক্কুরকে মোহাম্মদ মিঠুনের ক্যাচ বানিয়ে ফিরিয়েছেন তিনি। পরবর্তী ওভারে আফিফ হোসেন ধ্রুবকে (২৪) বোল্ড করেন শরিফুল ইসলাম। নিজের করা তৃতীয় ওভারে আরো এক উইকেট নেন মুস্তাফিজ। ৮ বলে ১০ রান করে সাজঘরে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন। থেমে থাকেনি শরিফুলও, শেষ ওভারে বোল্ড করে ফেরান তাসকিন আহমেদকে। ১২২ রানে নেই বরিশালের ৮ উইকেট।

তামিমকে ফেরালেন মোসাদ্দেকঃ

মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের বলে সৈকত আলিকে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নিলেন তামিম। ওপেনিংয়ে নেমে ৩২ বলে ৩২ রান করেছেন বরিশালের অধিনায়ক। দলীয় ৬৭ রানে ৩য় উইকেটের পতন বরিশালের।

আক্রমণে এসেই উইকেট নিলেন মুস্তাফিজঃ

নিজের করা প্রথম ওভারেই উইকেট নিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। মুস্তাফিজের বলে লিটনকে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নিলেন ইমন। দলীয় ৫৯ রানে ২য় উইকেটের পতন বরিশালের। ১৬ বলে ১১ রান করেছেন ইমন। ক্রিজে আছেন তামিম ইকবাল এবং আফিফ হোসেন ধ্রুব।

পাওয়ার-প্লেতে বরিশালের ৪১ঃ

১৫২ রানের টার্গেটে ফরচুন বরিশাল ব্যাট করতে নেমে পাওয়ারপ্লের ৬ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৪১ রান করেছে। দলীয় ২৩ রানের মাথায় ফরচুন বরিশালের ১ম উইকেটের পতন হয়। শরিফুলের বলে পুল করতে গিয়ে কট অ্যান্ড বোল্ডের শিকার হন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১৩ বলে ১ টি করে চার ও ছয়ে ১৩ রান করেছেন মিরাজ।

সৈকতের ক্যামিওতে চট্টগ্রামের ১৫০ পারঃ

মুমিনুল হকের ইনজুরিতে দলে সুযোগ পাওয়া সৈকত আলি খেলেছেন কার্যকরী এক ক্যামিও। ৭ নম্বরে নেমে ১১ বলে ১ চার ও ৩ ছয়ে ২৭ রান করে রান আউট হন তিনি। এছাড়া নাহিদুল ইসলাম ৪ বলে ২ চারে ৮ রান করে অপরাজিত থাকলে ১৫০ রানের গন্ডি পার করে চট্টগ্রাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে)-

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামঃ ১৫১/৭ (২০), লিটন ৩৫ , সৌম্য ৫, মিঠুন ১৭, শামসুর ২৬ , মোসাদ্দেক ২৮, জিয়া ২, সৈকত আলি ২৭, নাহিদুল ৮*; সুমন ৪-০-৩১-১, তাসকিন ৪-০-৩০-১, আবু জায়েদ ৪-০-৪২-২, রাব্বি ৪-০-২৩-১, মিরাজ ৪-০-২৫-১

ফিরলেন জিয়াঃ

আবু জায়েদ রাহির বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ডিপ কাভারে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের হাতে ধরা পড়লেন জিয়াউর রহমান। দলীয় ১০২ রানে ৫ম উইকেটের পতন চট্টগ্রামের। ৯ বল খেলে মাত্র ২ রান করেছেন জিয়া। মোসাদ্দেককে সঙ্গ দিতে ক্রিজে এসেছেন সৈকত আলি।

ফিরে গেলেন লিটন, শুভঃ

ভালো খেলতে থাকা লিটনকে ফেরালেন মেহেদী হাসান মিরাজ, দলীয় ৬৮ রানের মাথায় ৩য় উইকেটের পতন গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের। ২৫ বলে ৪ চারে ৩৫ রান করেছেন লিটন।

২৬ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে খোঁচা মারতে গিয়ে উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুরের হাতে ধরা পড়লেন শামসুর রহমান শুভ। দলীয় ৯৬ রানের মাথায় চট্টগ্রামের ৪র্থ উইকেটের পতন।

পাওয়ার-প্লেতে চট্টগ্রামের ৫২ঃ

দলীয় ৫০ রানে ২য় উইকেটের পতন, অধিনায়ক মিঠুনের বিদায়ের। সুমন খানের একই ওভারে স্কয়ার লেগে চার ও ছক্কা হাঁকানোর পর ৪র্থ বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে গিয়ে ডিপ মিড উইকেটে আফিফ হোসেনের হাতে ধরা পড়েন। আউট হওয়ার আগে ১৭ রান করেছেন তিনি। লিটনকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে এসেছেন শামসুর রহমান। পাওয়ারপ্লের ৬ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৫২ রান করেছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।

ফিরে গেলেন সৌম্যঃ

আগের দুই ম্যাচেই লিটন দাস ও সৌম্য সরকারের উদ্বোধনী জুটিতে এসেছে বড় রান। তবে আজ বেশিদূর যেতে পারেনি এই জুটি। দলীয় ২২ রানে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের ১ম উইকেটের পতন। আবু জায়েদ রাহির শর্টবলে পুল করতে গিয়ে মিড অনে ধরা পড়লেন সৌম্য সরকার। মাত্র ৫ রান করে সাজঘরে ফিরে গেলেন। ক্রিজে এসেছেন অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন।

একাদশ আপডেটঃ

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের একাদশে দুই পরিবর্তন। চোটে পড়ে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়া মুমিনুল হকের পরিবর্তে জায়গা পেয়েছেন সৈকত আলি। অন্যদিকে বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের পরিবর্তে সুযোগ পেয়েছেন আরেক স্পিনার সঞ্জিত সাহা। অন্যদিকে অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে ফরচুন বরিশাল।

টস আপডেটঃ

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছে ফরচুন বরিশাল।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কোহলির অধিনায়কত্বের কঠোর সমালোচনায় গম্ভীর

Read Next

হোয়াটমোরের বাছাইকৃত সেরা টেস্ট একাদশ, আছেন সাকিব

Total
1
Share