স্থগিত টুর্নামেন্ট আয়োজনে বিসিবির যত বিকল্প

বিসিবি লোগো

করোনা প্রভাবে মাত্র এক রাউন্ড মাঠে গড়িয়ে স্থগিত হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) আয়োজনে বদ্ধ পরিকর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রয়োজনে আগামী বছর দুইটি ডিপিএল আয়োজনের কথা ভাবছে ক্রিকেট কমিটি অফ ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। সব মিলিয়ে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোতে সম্ভাব্য সব বিকল্প নিয়েই কাজ করছে তারা।

নিজেদের হাতে থাকা বিভিন্ন বিকল্প নিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে কথা বলেছেন সিসিডিএম চেয়ারম্যান কাজী এনাম। আজ (২৮ নভেম্বর) মিরপুরে তিনি জানান প্রয়োজনে ঢাকার বাইরের ভেন্যুতেও দেশের ঐতিহ্যবাহী টুর্নামেন্টটি আয়োজন করতে চান তারা।

এ প্রসঙ্গে কাজী এনাম বলেন, ‘আমরা অবশ্যই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগটা করতে চাই। আমাদের কিন্তু এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি টুর্নামেন্ট। কিভাবে করতে পারে কি অপশন আছে ঢাকাতেই তিনটা চারটা মাঠে দলগুলোকে নির্দিষ্ট পর্যায়ের বায়ো সিকিউরিটি দিয়ে। সেই বিষয়ে আমাদের অনেক চিন্তা হয়েছে আরো কিছু বিকল্প আমাদের মাথায় আছে।’

‘একটা হল ঢাকার বাইরে, এটা নিয়ে আমরা আগেও আলাপ করেছি। আমরা এখনো দেখছি যে কি করা যায়। যদি আমরা ঢাকার ভিতরে করি এখন কিন্তু ডিফরেন্ট হোটেল ব্যবহার করতে হতে পারে।’

এদিকে করোনার ভাইরাসের ভ্যাকসিন আসলে সেটিও ক্রিকেটারদের প্রয়োগের মাধ্যমে সুরক্ষা নিশ্চিত করে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব বলছেন কাজী এনাম, ‘যেহেতু আমরা দেখছি বিশ্বজুড়ে এবং বাংলাদেশের সরকার বলছে একটি ভ্যাকসিন অতি দ্রুত আসার সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো সকল প্লেয়ারকে ভ্যাকসিনের আওতায় এনে এবং তার সাথে যারা জড়িত আছে সবাইকে ভ্যাকসিনেট করে খেলাটাকে পরিচালনা করতে পারি কিনা।’

দেশের অধিকাংশ ক্রিকেটারেরই আয়ের মূল উৎস ডিপিএল। এ বিষয়টি মাথায় রেখেই টুর্নামেন্ট আয়োজনে বাড়তি জোর দিচ্ছে সিসিডিএম। কাজী এনাম বলেন, ‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমাদের অধিকাংশ ক্রিকেটারেরই এটাই কিন্তু উপার্জনের জায়গা। সুতরাং যেহেতু এটা তাদের আয়ের মূল জায়গা সেই বিষয়টাও কিন্তু আমাদের বিবেচনা করতে হবে এবং এই বিষয়েও আমি ক্লাবদের সাথে বারবার কথা বলেছি।’

প্রয়োজনে এক বছরে দুই টুর্নামেন্টও মাঠে গড়াতে পারে বলছেন সিসিডিএম চেয়ারম্যান, ‘যদি একবছরেও দরকার হয় বা আট মাসের ব্যবধানেও দরকার হয়, যদি দুইটা সিঙ্গেল লিগও করা যায় সেরকম বিবেচনাও কিন্তু আমরা করতে পারি। যাতে খেলার মোট সংখ্যা হয়ত কমে যেতে পারে। তবে আমাদের প্লেয়ারদের বিষয়টা দেখতে হবে ক্লাবদের বিষয়টাও দেখতে হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ব্রাভোর পর সাকিবের দারুণ এক ‘ডাবল’

Read Next

তামিমের অধিনায়কোচিত ইনিংস, বরিশালের জয়

Total
2
Share