‘গত সাড়ে চার মাসে ২২ বার করোনা টেস্ট করিয়েছি’

সৌরভ গাঙ্গুলি বিসিসিআই

কোভিড-১৯ প্রোটোকল মেনে আইপিএল আয়োজন করা কতটা কষ্টসাপেক্ষ ছিলো তা জানিয়েছেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। বোর্ডের কাজের জন্য ভারত-দুবাই ভ্রমণ করতে হয়েছে। কয়েক দফায় থেকেছেন কোয়ারেন্টাইনেও। এর জন্য গত সাড়ে চার মাসে ২২ বার কোভিড-১৯ টেস্ট করিয়েছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। তবে একবারও পজেটিভ হননি। তাতে বেশ স্বস্তিও পেয়েছেন তিনি।

আইপিএলের বিভিন্ন ফ্র‍্যাঞ্চাইজির প্লেয়ার, সাপোর্টিং স্টাফ, বিসিসিআই কর্তাদের অনেক কঠিন পথ অতিক্রম করতে হয়েছে কোভিড-১৯ মহামারীর এই সময়ে। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি জানালেন, এই পরিস্থিতিতে তার অভিজ্ঞতার কথা।

কোভিড-১৯ প্রোটোকল মানতে গিয়ে গত সাড়ে ৪ মাসে তাকে ২২ বার করোনা পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হয়েছে। বিসিসিআই প্রধান সৌরভ মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে বলেছেন,

‘শেষ সাড়ে চার মাসে আমি ২২ বার করোনা পরীক্ষার সম্মুখীন হয়েছি এবং একবারও পজিটিভ হইনি। আমার চারপাশে অনেক করোনা পজিটিভ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সেই কারণে আমায় বারবার এতগুলি পরীক্ষা করতে হয়েছে। আমি বৃদ্ধ বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকি। সেইসময় অনেকবার দুবাইয়ে যেতে হয়েছে। তাই আমি যথেষ্ট চিন্তিত ছিলাম। আমাদের সবার সমাজের প্রতি দায়িত্ব আছে যাতে আমাদের মধ্যে দিয়ে কেউ সংক্রমিত না হয়, সেই কারও আর ও বেশি করে টেস্ট করতে হয়েছে।’

আইপিএলের সময় তাঁকে বার বার দুবাই যেতে হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,

‘আইপিএলের সময় কতবার কোলকাতা ও দুবাই ভ্রমণ করতে হয়েছে। কাজ তো করতেই হবে। যেতেও হবে। কিন্তু ভয় হত। এই ভাইরাস যেহেতু অজান্তেই এক জনের শরীর থেকে অন্যের শরীরে ছড়ায়, তাই ভয় হত। আশঙ্কা হত। তবে একবারও পজেটিভ হয়নি। প্রতিবার নেগেটিভ এসেছে। স্বস্তি পেয়েছি।’

করোনা উদ্বেগের মাঝে দেশের মাটিতে আইপিএল করতে পারেনি বিসিসিআই। বিদেশের মাটিতে সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে আইপিএল। এরপরেও করোনা কালে আইপিএল থেকে বিসিসিআইয়ের আয় হয় ৪ হাজার কোটি টাকা।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আশরাফুলের ব্যাপারে পজিটিভ মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী

Read Next

ম্যারাডোনার মৃত্যুতে ক্রিকেটারদের শোক

Total
1
Share