নিউ নরমালে ক্রিকেট ও পরিবার সামলানো কঠিন হয়ে যাচ্ছে ওয়ার্নারের

featured photo1 25

করোনার প্রভাবে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে ক্রিকেটে ব্যস্ত থাকার কারণে পরিবারকে একদমই সময় দিতে পারছেন না অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। তার লক্ষ্য পরের দুইটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করা।

গত ছয় মাস আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের জন্য খারাপ সময় কেটেছে। ওয়ার্নার বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট এবং পরিবার সামলানোটা বেশ দুঃসাধ্য হয়ে যাচ্ছে। জৈব সুরক্ষা বলয়ের জন্য পরিবারকে সময়ও দেওয়া হচ্ছে না।’

‘প্রত্যেক খেলোয়াড়ের ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতি থাকে। ক্রিকেটের ক্যালেন্ডার দেখলে বোঝা যায় আগামী ১২ মাস আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাধারণত খেলা শেষে অবসরে আমরা পরিবারকে সময় দেই। কিন্তু এখন জৈব সুরক্ষার থাকার কারণে আমরা পরিবারের কাছে যেতে পারি না। স্ত্রী-সন্তান ছাড়া ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকাটাও কষ্টকর,’ ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের অফিসিয়াল ব্রডকাস্টার সনিকে দেওয়া এক ভিডিও সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন ওয়ার্নার।

৩৪ বছর বয়সী এ ওপেনার টি-টোয়েন্টিতে বেশি মনোযোগ দিতে আগ্রহী। লক্ষ্য অজিদের পরবর্তী ২টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রতিনিধিত্ব করা।

‘পরবর্তী ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফরা নিয়মিত কাজ করছে। আমাদের দলও সীমিত ওভারের টুর্নামেন্টগুলোতে ভালো খেলছে।’

‘সামনের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে হতে যাচ্ছে। এরপর ২০২৩ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ আছে। এখনও আমাদের অনেক ক্রিকেট ম্যাচ বাকি এবং সে অনুযায়ী আরও প্রস্তুত হতে হবে।’

বিগ ব্যাশ থেকেও নিজের নাম থেকেও প্রত্যাহার করে নিয়েছেন ওয়ার্নার। যতদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন, বিগ ব্যাশ থেকে দূরে থাকবেন। কারণ হিসেবে পরিবারকে সময় দেওয়ার কথাও উল্লেখ করেছেন।

‘আমার স্ত্রী এবং তিন মেয়ে রয়েছে, তাদেরকে অবসরে সময় দিতে চাই। তিন ফরম্যাটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলার পর বিগ ব্যাশে আপাতত সায় দিচ্ছি না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেই আমার পূর্ণ মনযোগ এখন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ফ্লাইট মিস করলেন আফ্রিদি, মিস দুই ম্যাচ

Read Next

আকাশ চোপড়ার চোখে আইপিএল ও পিএসএলের সেরা একাদশ

Total
1
Share