শক্তির প্রমাণ মাঠে দিতে চান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

শক্তির প্রমাণ মাঠে দিতে চান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

কাগজে-কলমে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের শক্তিশালী দল জেমকন খুলনা। নাটকীয়ভাবে খুলনার দলে অন্তর্ভূক্ত হয়ে অধিনায়ক হওয়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অবশ্য দেখছেন ভিন্নভাবে। মাঠের ক্রিকেটে ভালো খেলার মাধ্যমেই নিজেদের শক্তির জানান দিতে হবে।

আগামীকাল (২৪ নভেম্বর) পর্দা উঠছে পাঁচ দলের এই টুর্নামেন্টের। দিনের দ্বিতীয় খেলায় তামিম ইকবালের ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে মাঠে নামবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জেমকন খুলনা। সাকিব আল হাসান, ইমরুল কায়েস, আল আমিন হোসেন, শামীম হোসেন পাটোয়ারী, এনামুল হক বিজয়, শফিউল ইসলাম, রিশাদ হোসেনদের নিয়ে দারুণ ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়েছে খুলনা।

দল শক্তিশালী হলেও পারফরম্যান্সকে মূল বিষয় উল্লেখ করে অধিনায়ক রিয়াদ আজ (২৩ নভেম্বর) মিরপুরে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘কাগজে-কলমে হয়তো আমাদের দলকে অনেক শক্তিশালী মনে হচ্ছে। তবে আমি সবসময়ই একটা কথা বিশ্বাস করি যে মাঠের পারফরম্যান্সটা সবসময়ই মুখ্য থাকবে। আপনি যত বড় নামই থাকেন, যত ভালো ক্রিকেটারই হন। দিনশেষে আপনাকে মাঠে এটা প্রমাণ করতে হবে।’

‘ঐ সুনামটা আমরা যারা বহন করি তাদের সবসময়ই প্রমাণের একটা তাগিদ থাকে। এবং এটা থাকাটাই স্বাভাবিক। তো সেক্ষেত্রে বলবো যে, অবশ্যই আমাদের প্রমাণের অনেক কিছু আছে। যেহেতু ডমেস্টিকে বেস্ট প্লেয়ারদের মধ্যে আমাদের প্রতিযোগিতাটা। তো সেটা প্রমাণের লক্ষ্যেই আমরা নামবো ইন শা আল্লাহ।’

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা সাকিব আল হাসানকে প্লেয়ার্স ড্রাফটে নিজের প্রথম ডাকেই টেনে নেয় জেমকন খুলনা। সাকিবকে দলে পাওয়া দলের জন্য দারুণ কিছু উল্লেখ করে রিয়াদ যোগ করেন, ‘অনুভূতি (সাকিবকে দলে পাওয়ার) খুব ভালো। আমরা সবাই জানি সাকিবের গুরুত্ব কতটুকু। সেটা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে হোক বা ঘরোয়াতে হোক। সেক্ষেত্রে অবশ্যই আমরা সবাই খুশি ওর জন্য যে ও ব্যাক করেছে এবং ও আমাদের দলেই খেলছে। তাকে দলে পাওয়া আমদের জন্য অনেক দারুণ ব্যাপার।’

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন মাহমুদউল্লাহ একাদশ। তবে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের ফরম্যাট আলাদা হওয়াতে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের শিরোপা জয়ে আনন্দ পেলেও বাড়তি উচ্ছ্বাস দেখাতে নারাজ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

তিনি বলেন, ‘সন্তুষ্টির কিছু নেই। অবশ্যই ভালো লাগে যখন আপনি কোন দলের জন্য চ্যাম্পিয়ন হতে পারেন। তো আমার মনে হয় এটা এখন অতীত। ওটা ৫০ ওভারের ফরম্যাটে ছিল, এটা ভিন্ন ফরম্যাট। তো শুরুটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমি সবসময় বিশ্বাস করি যেকোন টুর্নামেন্টে শুরুটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ দলীয় ও ব্যক্তিগতভাবে আত্মবিশ্বাস আনার জন্য। দলের মধ্যে সেই আত্মবিশ্বাসটা ছড়িয়ে দেওয়াটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তার জন্য ভালো শুরুটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপে চোখ মুশফিকের

Read Next

ফ্লাইট মিস করলেন আফ্রিদি, মিস দুই ম্যাচ

Total
5
Share