ইনজামামের চোখে শচীনের যে ইনিংস ‘অন্যতম সেরা’

ইনজামামের চোখে শচীনের যে ইনিংস 'অন্যতম সেরা'

২০০৩ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে শচীন টেন্ডুলকার ৯৮ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল-হক এ ইনিংসকে টেন্ডুলকারের রাজসিক ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ইনিংস বলে অভিহিত করেছেন।

২০০৩ সালের ১ মার্চ দক্ষিণ আফ্রিকার সেঞ্চুরিইয়ানে বিশ্বকাপের গ্রুপ স্টেজের একটি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ২৭৩ রান সংগ্রহ করে। ২৭৪ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শচীন টেন্ডুলকার ৯৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেললে চার ওভার হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত।

‘শচীনের অনেক ইনিংস আমি দেখেছি। কিন্তু সেদিন ও যেভাবে ব্যাটিং করলো, তা আমি আগে কখনো দেখিনি। এমন পেস স্বর্গে সে যেভাবে আমাদের ফাস্ট বোলারদের খেললো, এককথায় অবিশ্বাস্য ছিল। আমার মনে হয় শোয়েব আখতারের বলে আউট হওয়ার আগে সে ৯৮ রান করেছিল,’ রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ইউটিউব প্রোগ্রাম ‘ডিআরএস উইথ অ্যাশ’-এ কথাগুলো বলেন ইনজামাম উল হক।

‘আমি অনুভব করি ঐ ইনিংসটি শচীনের ক্যারিয়ারে অন্যতম সেরা ছিল। সকল চাপ ভেঙ্গে সে তার অস্তিত্ব ধরে রেখেছিল। আমাদের দলের বিশ্বের সেরা ফাস্ট বোলারদের বিপক্ষে সে উঁচুমানের ইনিংস খেলেছিল। সে যেভাবে বাউন্ডারি হাঁকাচ্ছিল, যেকোন চাপই সে দ্রুত নিরসন করছিল। যে কাউকে শচীনের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করুন, ঐ ব্যক্তিও শচীনের ঐ ইনিংসের কথা বলবে,’ ইনজামাম যোগ করেন।

‘২৭৩ রান স্কোরবোর্ডে সংগ্রহ করার পর ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিস এবং শোয়েব আখতারের দুর্দান্ত বোলিং লাইনআপের উপর আমরা নির্ভরশীল ছিলাম। কন্ডিশনও পেসারদের পক্ষে ছিল। সেঞ্চুরিয়নে ম্যাচটি হচ্ছিল। আমরা ভেবেছিলাম স্কোরবোর্ডে আমরা ভালো সংগ্রহ করেছি,’ বলেন ইনজামাম।

এর আগে শোয়েব আখতার বলেন ২০০৩ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে হার তার পুরো ক্যারিয়ারের সবচেয়ে হতাশাজনক ম্যাচ ছিল।

‘সেঞ্চুরিয়ানে ২০০৩ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে হার আমার পুরো ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে ম্যাচ ছিল। আমাদের এত ভালো বোলিং লাইনআপ থাকা সত্ত্বেও ভারতের ২৭৪ রানের টার্গেটে আটকাতে পারিনি,’ আখতার বলেন।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে দুই দশকেরও বেশি সময় ক্রিকেট খেলে টেস্ট ও ওয়ানডেতে রেকর্ড ১০০টি সেঞ্চুরি করেন শচীন টেন্ডুলকার। ৪৬৩টি ওয়ানডেতে ৪৯টি সেঞ্চুরির সহায়তায় ১৮৪২৬ রানের পাশাপাশি ২০০টি টেস্টে ৫১টি সেঞ্চুরির সাহায্যে ১৫৯২১ রান করেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী এ কিংবদন্তী ক্রিকেটার। ২০০৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় একমাত্র টি-টোয়েন্টিতে ১০ রান করেছিলেন শচীন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সিডনি সিক্সার্সকে শাস্তি দিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

Read Next

কপিল দেবের সাফ কথা- ‘এক কোম্পানিতে দুই সিইও থাকতে পারে না’

Total
2
Share