শচীন শোনালেন আপার কাট শটের গল্প

শচীন শোনালেন আপার কাট শটের গল্প
Vinkmag ad

ভারতের কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার বলেছেন তিনি কখনও আপার কাট অনুশীলন করেননি কিংবা নির্দিষ্টভাবে কখনও এই শট খেলার পরিকল্পনাও করেননি।

একটি ইউটিউব ভিডিওতে টেন্ডুলকার জানান ২০০২ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে এমন অভুতপূর্ব শট খেলবেন বলে ভাবছিলেন।

ইউটিউবের প্রশ্নোত্তর পর্বে অনুরাজ আন্দে নামের একজন ফ্যান তাকে প্রশ্ন করেন তিনি কী কখনও আপার কাট শট অনুশীলন করেছিলেন কীনা, নাকি খেলার সময় সহজাতভাবে এই শট খেলেছেন। শচীন উত্তরে বলেন এটি এমনিতে সহজাতভাবে চলে এসেছিল।

‘২০০২ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ব্লুমফন্টেইনে টেস্ট খেলার সময় এটি হয়েছিল। আমরা প্রথমে ব্যাটিং করছিলাম এবং মাখায়া এনটিনি অফ স্ট্যাম্প জুড়ে বোলিং করছিল।সাধারণত সে খাটো লেংথের বল দিতে অভ্যস্ত। সে খুব কম লেংথ ডেলিভারি দেয়। যখন সে ক্রিজের প্রশস্ত জায়গাজুড়ে দৌড় দিতো, আমি নিজের জায়গা থেকে সরে দাঁড়াতাম,’ টেন্ডুলকার বলেন।

‘দক্ষিণ আফ্রিকার পিচে যথেষ্ট বাউন্স থাকে। তাই সাধারণত সেখানে বাউন্সার দেওয়ার প্রবণতাই সবচেয়ে বেশি থাকে পেসারদের। যদি আমার দৈর্ঘ্যের স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বাউন্স আসে, তাহলে আমাকেও নিচু হয়ে আক্রমণাত্নক ব্যাট করা দরকার ছিল,’ ৪৭ বছর বয়সী এ সাবেক ব্যাটসম্যান বলেন।

‘এমনটাই আমি অনুভব করছিলাম। উপর হয়ে সব বল মারার চেয়ে কিছুটা নিচু হয়ে বলের গতি বুঝে থার্ড মান অঞ্চল দিয়ে শট খেলাটা যুক্তিযুক্ত মনে হলো আমার কাছে।’

টেন্ডুলকার বলেছেন তার এমন শটে তখনকার সময়ের বোলাররা বিরক্ত বোধ করতো।

‘এমন অদ্ভুত শটে গতিসম্পন্ন বোলাররা বেশ বিরক্ত হতো কেননা তারা ডট বল বা উইকেটের জন্য বাউন্সার দিতো। সেগুলোকে আমি বাউন্ডারিতে রূপান্তর করতাম। আমার আসলে এমন কোন পরিকল্পনা আগে থেকে ছিল না। মাঝে মাঝে আপনি ক্রিজে ব্যাট করতে নামলে নিজস্ব সহজাত শটগুলো খেলতে পারেন। এবং আমি এটাই করেছি,’ টেন্ডুলকার জানান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ: চার ক্যাটাগরিতে পারিশ্রমিক যত

Read Next

অজিদের বিপক্ষে শেষ দুই টেস্ট খেলবেন না কোহলি!

Total
2
Share