পারফর্ম করার ‘সিরিয়াস’ মনোভাব ছিল সবারঃ মাহমুদউল্লাহ

পারফর্ম করার 'সিরিয়াস' মনোভাব ছিল সবার-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ
Vinkmag ad

প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্ট কিন্তু এরপরেও ক্রিকেটারদের মধ্যে পজিটিভ মনোভাব ছিলো, পারফর্ম করার চেষ্টা করছিল সবাই; এমন সুরেই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপের অবস্থান জানাচ্ছিলেন। নিজের দল ফাইনাল খেলবে, তাতে বেশ উচ্ছ্বসিতও অধিনায়ক রিয়াদ।

বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপের লিগ পর্বের খেলা শেষ হয়েছে। শেষ ম্যাচে নাজমুল একাদশের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে তামিম একাদশ। ফাইনালে মুখোমুখি হবে নাজমুল একাদশ ও মাহমুদউল্লাহ একাদশ।

কোভিড-১৯ প্রকোপের কারণে প্রায় ৭মাস ক্রিকেট বন্ধ ছিল। এবার মাঠে ফিরেছে ক্রিকেট। সঙ্গে টুর্নামেন্টের ফাইনালে নিজের দল খেলবে তাই সবমিলিয়ে ভালো লাগা কাজ করছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। এই সময়ে বিসিবির এমন আয়োজনেরও প্রশংসা করলেন রিয়াদ,

”ফার্স্ট অফ অল, আলহামদুলিল্লাহ আমরা ফাইনালে উঠেছি। গতকালকের ম্যাচটা অনেক ইম্পরট্যান্ট ছিলো। সো ফরচুনেটলি আমরা ফাইনাল খেলছি। তো একদিক থেকে ভালো লাগছে কারণ অনেক দিন পরে আমরা একটা টুর্নামেন্ট খেলছি। এবং যেহেতু কোভিডের সময় ক্রিকেটও বন্ধ ছিলো এবং আলহামদুলিল্লাহ বিসিবির উদ্যোগে আমরা সবাই ভালো একটা টুর্নামেন্ট খেলছি এবং সেটার ফাইনাল খেলতে পারছি। সো সেদিক থেকে আমরা সবাই মুখিয়ে আছি ভালো ফাইনাল যেন খেলতে পারি।”

মাহমুদউল্লাহর রিয়াদের মতে, বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপে দেশের ক্রিকেটাররা খুব সিরিয়াস মাইন্ড নিয়ে খেলেছে। সবার মধ্যেই একটা লড়াই কাজ করছিল, ভালো পারফর্ম করে এগিয়ে থাকার। সব ক্রিকেটারদের একটা ভালো প্রস্তুতিও হয়েছে এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে। রিয়াদ বলেছেন,

“যদিও এটা প্রস্তুতিমূলক একটা টুর্নামেন্ট বাট আমার মনে হয় প্রতিটা খেলোয়াড়ই খুব সিরিয়াসলি আমরা খেলেছি এবং খুব কম্পেটিটিভনেস নিয়েই আমরা খেলেছি। সবার ভেতরেই ওই প্রতিযোগিতাটা ছিলো যেন আমরা এক জন আরেকজনের চেয়ে ভালো পারফর্ম করতে পারি, এজ এ টিম আমরা ভালো পারফর্ম করতে পারি। সেদিক থেকে আমি বলবো এই টুর্নামেন্টটা আমাদের সব প্লেয়ারদের জন্যই খুব ভালো একটা প্রস্তুতি ছিলো।”

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলা মাহমুদুল হাসান জয়, আফিফ হোসেন ধ্রুব, তৌহিদ হৃদয়দের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

“আর ইয়াং প্লেয়ারদের মধ্যে যদি বলি আমার টিমে জয় খুব ভালো পারফর্ম করেছে লাস্ট ম্যাচে। এছাড়াও অন্যান্য টিমে হৃদয় ভালো করেছে, আফিফ পারফর্মড প্রিটি ওয়েল এবং আন্ডার-১৯ এর বেশ অনেকগুলো প্লেয়ারই সুযোগগুলো কাজে লাগিয়েছেন। এবং আমার মনে হয় এটা তাদের জন্য একটা খুব ভালো ডেভেলপমেন্ট দিক ছিলো। এজ ওয়েল এজ আমাদের সকলের জন্যই। কারণ যেহেতু আমরা অনেকদিন পরে আমরা মাঠে ফিরেছি এবং খুব ভালো একটা টুর্নামেন্ট খেলেছি। সো ওভারল ইট ওয়াজ এ ভেরি গুড এক্সপেরিয়েন্স।”

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

পিছিয়ে গেল বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনাল

Read Next

ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর, অস্ট্রেলিয়া সরকারের সবুজ সংকেত

Total
4
Share