সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল মাহমুদউল্লাহ একাদশ

মাহমুদউল্লাহর-পর-ফিরে-গেলেন-মুমিনুলও
Vinkmag ad

গত ১১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ। আজ (১৩ অক্টোবর) দ্বিতীয় ম্যাচে একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে তামিম একাদশ ও মাহমুদউল্লাহ একাদশ। এই ম্যাচের খুটিনাটি হালনাগাদ এই লাইভ রিপোর্টে।

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল মাহমুদউল্লাহ একাদশঃ

লক্ষ্যটা ছোট হওয়াতে শুরুর ব্যাটিং বিপর্যয় সামলেও ৫ উইকেট ও ১২০ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ৭৭ রানে ৫ উইকেট হারানো মাহমুদউল্লাহ একাদশকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন নুরুল হাসান সোহান ও সাব্বির রহমান। সোহান অপরাজিত ছিলেন ৪১ রানে, সাব্বির ৪ রানে। শুরুর বিপর্যয়ের পর হাল ধরা মুমিনুল হকের ব্যাট থেকে আসে ৩৯ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

তামিম একাদশ ১০৩/১০ (২৩.১), তামিম ২, তামিম (২) ২৭, বিজয় ২৫, মিঠুন ০, দিপু ১, মোসাদ্দেক ৫, সাইফউদ্দিন ১২, মেহেদী ১৯, তাইজুল ১, শরিফুল ৪, মুস্তাফিজ ০*; রুবেল ৫-০-১৬-৩, সুমন ৫-০-৩১-৩, মিরাজ ৪১-২-২-২, বিপ্লব ৩-০-১৭-২।

মাহমুদউল্লাহ একাদশ ১০৬/৫ (২৭), লিটন ০, নাইম ০, মুমিনুল ৩৯, ইমরুল ০, মাহমুদউল্লাহ ১০, সোহান ৪১*, সাব্বির ৪*; সাইফউদ্দিন ৪-১-৮-২, মুস্তাফিজ ৭-২-১৪-১, তাইজুল ৬-০-২৭-২

ফলাফলঃ মাহমুদউল্লাহ একাদশ ৫ উইকেটে জয়ী।

সেরা ব্যাটসম্যান- নুরুল হাসান সোহান (মাহমুদউল্লাহ একাদশ)
সেরা বোলার- সুমন খান (মাহমুদউল্লাহ একাদশ)
সেরা ফিল্ডার- নুরুল হাসান সোহান (মাহমুদউল্লাহ একাদশ)
ম্যাচসেরা- রুবেল হোসেন (মাহমুদউল্লাহ একাদশ)

আশা দেখিয়ে ফিরলেন মুমিনুলওঃ

দলীয় ৩৯ রানে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে মাহমুদউল্লাহ ফেরার পরও দলকে জয়ের পথ দেখানোর কাজটা করছিলেন মুমিনুল হক। নুরুল হাসান সোহানকে নিয়ে যোগ করেন ৩৮ রান। কিন্তু তাইজুল ইসলামের করা ২৩ তম ওভারে একবার জীবন পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি মুমিনুল হক। তাইজুলের ঐ ওভারেই ফিরেছেন বোল্ড হয়ে, আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৯ রান। তার বিদায়ে ১০৪ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নামা মাহমুদউল্লাহ একাদশ পরিণত হয় ৫ উইকেটে ৭৭ রানে।

মাহমুদউল্লাহকে ফেরালেন তাইজুলঃ

০ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলা মাহমুদউল্লাহ একাদশ আশা দেখছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-মুমিনুল হক জুটিতে। অভিজ্ঞ দুজন ব্যাটসম্যান দলকে এগিয়েও নিচ্ছিলেন। তবে বেশিদূর এগিয়ে নিতে পারেননি তারা। নিজের করা দ্বিতীয় বলে ৩৯ রানের জুটি ভেঙেছেন তাইজুল ইসলাম। ৩৯ বলে ১ চারে ১০ রান করে তাইজুলের বলে বোল্ড হয়েছেন মাহমুদউল্লাহ।

দুই ওপেনারের ডাকঃ

নিজের করা প্রথম বলেই উইকেট তুলে নিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। গোল্ডেন ডাকের স্বাদ নিয়ে সাজঘরে মোহাম্মদ নাইম শেখ। ৮ বল খেলে রানের খাতা খুলতে না পেরে সাজঘরে ফিরেছেন লিটন দাস। লিটনকে বোল্ড করেছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ঐ ওভারেই কোন রান না করা ইমরুল কায়েস ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন। ০ রানেই নেই মাহমুদউল্লাহ একাদশের ৩ উইকেট।

১০৩ এই শেষ তামিম একাদশ-

ধ্বংসের শুরুটা করেছিলেন মাহমুদউল্লাহ একাদশের দুই পেসার রুবেল হোসেন ও সুমন খান। ৩ টি করে উইকেট তুলে নেন দুজন। পরবর্তীতে মঞ্চে আবীর্ভূত হন দুই স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও মেহেদী হাসান মিরাজ। বাকি থাকা ৪ উইকেট নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেন দুজন।

৪৭ ওভারে নেমে আসা ম্যাচ অর্ধেকও খেলতে পারেনি তামিম একাদশ, ২৩.১ ওভারেই অলআউট তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে)-

তামিম একাদশ ১০৩/১০ (২৩.১), তামিম ২, তামিম (২) ২৭, বিজয় ২৫, মিঠুন ০, দিপু ১, মোসাদ্দেক ৫, সাইফউদ্দিন ১২, মেহেদী ১৯, তাইজুল ১, শরিফুল ৪, মুস্তাফিজ ০*; রুবেল ৫-০-১৬-৩, সুমন ৫-০-৩১-৩, মিরাজ ৪১-২-২-২, বিপ্লব ৩-০-১৭-২।

রুবেলের পর সুমনের ‘৩’:

রুবেল হোসেনের পর আরেক পেসার সুমন খানেরও টানা তিন উইকেট শিকারে বিপাকে তামিম একাদশ। ৬৮ রানেই নেই তামিম একাদশের ৬ উইকেট। ১১ তম ওভারে নিজের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বল ও ১৩ তম ওভারের প্রথম বলে উইকেট তুলে নিয়ে হ্যাটট্রিক সম্ভাবনাও জাগান সুমন খান। অফ স্টাম্পের বাইরের বলে উইকেট রক্ষক নুরুল হাসান সোহানকে ক্যাচ দেন শাহাদাত হোসেন দিপু (১) ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (৫)। ১১ তম ওভারে সুমন খান সাজঘরে ফেরান দলের হাল ধরার চেষ্টায় থাকা এনামুল হক বিজয়কেও। বিজয়ের ব্যাট থেকে আসে ৩৩ বলে ২৫ রান।

রুবেলের তিনে তিনঃ

শুরু থেকেই দাপুটে বোলিং করা রুবেল এক ওভারেই ফেরালেন তানজিদ হাসান তামিম ও মোহাম্মদ মিঠুনকে। মাত্র ২ রান করা তামিম ইকবালকে ফিরিয়েছেন আগেই। ৮ম ওভারের তৃতীয় বলে স্কয়ার লেগে দাঁড়ানো মুমিনুল হকের দুর্দান্ত এক ক্যাচে পরিণত করেন তানজিদ হাসান তামিমকে। ১৮ বলে ৩ চারে ২৭ রান আসে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে। ক্রিজে এসে দুই বলের বেশি টিকেননি (সিলভার ডাক) মোহাম্মদ মিঠুনও। একই ওভারের পঞ্চম বলে মুমিনুল হকের হাতে ধরা পড়েন শর্ট কাভারে।

খেলা শুরু সাড়ে তিনটায়ঃ

বৃষ্টি থামলেও কমেছে ম্যাচের দৈর্ঘ্য। দুই দল খেলবে ৪৭ ওভার করে। প্রথম ইনিংস শেষে বিরতি ৪৫ মিনিটের জায়গায় কমিয়ে ৩০ মিনিট করা হয়েছে।

মিরপুরে বৃষ্টির বাগড়াঃ

বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ ওয়ানডে সিরিজে বৃষ্টি যেন নিয়মিত সঙ্গী। আগের ম্যাচের মত আজ (১৩ অক্টোবর) মাহমুদউল্লাহ একাদশ বনাম তামিম একাদশের মধ্যকার ম্যাচেও তিন ওভার খেলা মাঠে গড়াতেই বৃষ্টির হানা। কাকতালীয়ভাবে আগের ম্যাচেও ইনিংসের ৩ ওভারে শেষে প্রথম বৃষ্টি হানা দেয়। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে টস হেরে ব্যাট করতে নামা তামিম একাদশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১২ রান। ইতোমধ্যে সাজঘরে ফিরেছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল, অপরাজিত আছেন আরেক ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম ও তিনে নামা এনামুল হক বিজয়।

বড় তামিমকে ফেরালেন রুবেলঃ

নিজের প্রথম ও ইনিংসের ২য় ওভারের ৩য় বলেই উইকেটের দেখা পেলেন রুবেল হোসেন। তামিম একাদশের অধিনায়ক তামিম ইকবালকে লেগ বিফোর উইকেটের ফাদে ফেলেন রুবেল। ৮ বলে ২ রান করেন তামিম। বড় তামিম ও ছোট তামিমের উদ্বোধনী জুটি থামে ৪ রানে।

খেলছেন যারাঃ

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের নিয়ম অনুযায়ী (প্লেয়িং কন্ডিশন) এক ম্যাচে প্রতি দলে ১২ জন ক্রিকেটার থাকবে। যদিও মাঠে একসঙ্গে ফিল্ডিং এ নামবে ১১ জন, ব্যাটিং করতে পারবে ১১ জন। উল্লেখ্য, এই টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলো লিস্ট-এ ম্যাচের তকমা পাবে না।

তামিম একাদশে সুযোগ পাননি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের অধিনায়ক আকবর আলি। অন্যদিকে মাহমুদউল্লাহ একাদশে এসেছে দুই পরিবর্তন। সুমন খান ও মেহেদী হাসান মিরাজ ঢুকেছেন একাদশে, বাদ পড়েছেন রাকিবুল হাসান ও আবু হায়দার রনি।

তামিম একাদশ-

তামিম ইকবাল খান (অধিনায়ক), তানজিদ হাসান তামিম, এনামুল হক বিজয় (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, শাহাদাত হোসেন দিপু, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ও মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি।

মাহমুদউল্লাহ একাদশ-

মোহাম্মদ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাইম শেখ, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক সৌরভ, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান রুম্মন, মেহেদী হাসান মিরাজ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, সুমন খান, রুবেল হোসেন, এবাদত হোসেন চৌধুরী।

 

View this post on Instagram

 

Akbar Ali is not playing #bcbpresidentscup #Cricket #MahmudullahxiVTamimxi

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

টস আপডেটঃ

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতেছে মাহমুদউল্লাহ একাদশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টসে জিতে আগে তামিম একাদশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট সূচিতে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

Read Next

বয়সভিত্তিক ক্রিকেটারদের প্রাক বাছাই নির্দেশনা

Total
8
Share