সমালোচনা এড়িয়ে যেতে শিখেছিঃ মাশরাফি

featured photo1 7
Vinkmag ad

253261

যখনই দুই ম্যাচ খারাপ খেলার পর আপনাকে অপসারণের কথা উঠবে তখন খেলা দুঃসহ হয়ে পড়ে।

বাংলাদেশ দলের সাম্প্রতিক সাফল্য এসেছে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার হাত ধরে। তার অধিনায়কত্বেই বাংলাদেশ ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল, ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল অব্দি পৌঁছেছে। বল হাতেও সফল ছিলেন বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ এই পেসার। তবে প্রায়ই সমালোচনা হয়েছে তার ফিটনেস, অধিনায়কত্ব নিয়ে। এরকম সমালোচনা শুনতে শুনতে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়া মাশরাফি অবশ্য কষ্ট হলেও এসব সমালোচনা গায়ে না মাখতে শিখে গিয়েছেন।

মাশরাফি বলেন, ” প্রত্যেক সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ শেষ হবার পরেই আমাকে অপসারণের কথা আসে! এভাবে খেলা কষ্টকর। আমি জানিই প্রতি সিরিজের প্রথম কয়েকটা ম্যাচ শেষেই আমার বিদায়ের কথা কানে আসবে। এটা একটা চ্যালেঞ্জ, যেটা আমি নিয়েছি।”

উদাহরণ টেনে মাশরাফি বলেন, ” উদাহরণস্বরূপ মে মাসে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আমি ৬.৩ ওভারে ৫৮ রান হজম করেছিলাম। আমি বুঝতে পারছিলাম আমার বোলিংয়ে কিছু ত্রুটি ছিলো। পরেরদিন আমি নেটে অনেক বল করেছিলাম। প্রধান কোচ ও বোলিং কোচের সামনেই নেটে বল করেছিলাম। আমার বোলিং নিয়ে তাদের সাথে কথা বলেছিলাম। নেটে উইকেটকিপারের কাছ থেকে শুনে আমি আমার ত্রুটি গুলো সংশোধন করেছিলাম। আমি আমার সাধ্যমত সকল চেষ্টাই করে যায় কিন্তু এরকম পরিস্থিতিতে খেলে যাওয়া কষ্টসাধ্য”।

২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকে মাশরাফি বাংলাদেশ দলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক। পারফরম্যান্স নয় বরং ফিটনেস, বয়স নিয়েই বেশি প্রশ্নের সম্মুখিন হতে হয় মাশরাফির। এই প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, ” এই প্রশ্ন নিয়ে আমি ভাবিনা। সত্যি বলতে কি এটা এড়িয়ে যাওয়া সোজা নয়। তবে আমি এগুলোকে অতো পাত্তা দিই না।”

দলের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের ‘কবে যাচ্ছেন’ প্রশ্নের সম্মুখিন হবার রীতিতে বড্ড ভয় মাশরাফির। তিনি বলেন, ” আমি ভয় পায় এরকম জিনিসে ড্রেসিংরুমে পাজলিং হবার সম্ভাবনা থাকে। আপনি দলে কারো অন্তর্ভূক্তি নিয়ে প্রশ্ন তখনই তুলতে পারেন যখন তার ফিল্ডিং, ফিটনেস সর্বোচ্চ পর্যায়ে থাকে না”।

মাশরাফি যোগ করেন, ” যখন তিনি ভাল বোলিং করছেন না তখন তাকে ড্রপ করার আগে প্লেয়ারের সাথেও কথা বলতে হবে না। কিন্তু মাঝে মধ্যে আমি কোন ইস্যুই খুঁজে পাইনা। আমি একজন খেলোয়াড় এবং আমার ভুল করার প্রবণতা থাকবে। কিন্তু যখনই দুই ম্যাচ খারাপ খেলার পর আপনাকে অপসারণের কথা উঠবে তখন খেলা দুঃসহ হয়ে পড়ে। আমি এটা নিয়ে ওরকম ভাবি না। আমি শুধু নিজেকে প্রস্তুত রাখতে মনযোগী”।

সূত্রঃ ইএসপিএনক্রিকইনফো

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

ভারতীয় কোচ পছন্দ করবেন ভিরাট কোহলি

Read Next

ভাল ফিল্ডিংয়ের জন্য ফিটনেসের সাথে প্রয়োজন দক্ষতাটাও

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share