বড় জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

বড় জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স
Vinkmag ad

সুরিয়াকুমার যাদবের অনবদ্য ব্যাটিং এবং বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বড় জয় পেল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তারা ৫৭ রানে পরাজিত করে রাজস্থান রয়্যালসকে। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন দল।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। মুম্বাইয়ের দুই ওপেনার কুইন্টন ডি কক এবং অধিনায়ক রোহিত শর্মা উদ্বোধনী জুটিতে ৪৯ রান তোলেন।

অভিষিক্ত কার্তিক তিয়াগির বলে আউট হওয়ার আগে ২৩ রান করেন ডি কক। এরপর তিনে নামা সুরিয়াকুমার যাদবের সাথে জুটিতে আরও ৩৯ রান যোগ করেন রোহিত শর্মা। ৯ম ওভারের ১ম বলে দারুণ খেলতে থাকা রোহিত ব্যক্তিগত ৩৯ রানে শ্রেয়াস গোপালের বলে রাহুল তেওয়াটিয়ার হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন।

ঠিক পরের বলে ইশান কিশানকেও সাজঘরের পথ দেখিয়ে মুম্বাইকে বিপদে ফেলে দেন রাজস্থানের শ্রেয়াস গোপাল। দলীয় ১৪ তম ওভারের শেষ বলে ১১৭ রানের মাথায় ক্রুনাল পান্ডিয়াকে পরাস্ত করেন জফরা আর্চার।

এরপর সুরিয়া এবং হার্দিক পান্ডিয়া রীতিমত ব্যাটিং তান্ডব চালান। বিশেষ করে সেট ব্যাটসম্যান সুরিয়া কুমারকে বেশি আক্রমনাত্মক দেখা যায়। দর্শনীয় কিছু স্কুপ শট খেলে চার-হক্কা হাকান এবং স্কোরবোর্ডের রান আরও ত্বরান্বিত করেন। যোগ্য সহায়তা দেন হার্দিক পান্ডিয়া। শেষ ৬ ওভারে তারা ৭৬ রান যোগ করেন কোন উইকেট না হারিয়ে। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট ১৯৩ রানের বিশাল স্কোর গড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

১১টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৪৭ বলে অপরাজিত ৭৯ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন সুরিয়াকুমার যাদব। হার্দিক পান্ডিয়া ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন। রাজস্থানের পক্ষে শ্রেয়াস গোপাল ২টি উইকেট নেন।

 

View this post on Instagram

 

Entertaining knock from Surya #MIvRR #Dream11IPL #IPL2020

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

১৯৪ রানের লক্ষ্যে রাজস্থান রয়্যালস ব্যাট করতে নেমে ১ম ওভারের ২য় বলে যশস্বী জয়সওয়ালকে বিদায় করেন ট্রেন্ট বোল্ট। পরের ওভারে স্টিভ স্মিথকে আউট করেন জাসপ্রীত বুমরাহ। ৩য় ওভারে সাঞ্জু স্যামসনকে আউট করে রাজস্থানকে চরম বিপদে ফেলে দেন বোল্ট।

সেখান থেকে মাহিপাল লমররকে নিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেন ওপেনার জস বাটলার। দলীয় ৪২ রানের মাথায় অতিরিক্ত খেলোয়াড় অনুকূল রয়ের অবিশ্বাস্য ক্যাচে লমররও বিদায় নেন। এরপর টম কারেন-বাটলার জুটি ৫৬ রান তুললে ১০০ করার সম্ভাবনা জাগে রাজস্থানের। ৪টি চার ও ৫টি ছক্কার সাহায্যে ৪৪ বলে ৭০ রান করা বাটলার পোলার্ডের অসাধারণ ক্যাচে বিদায় নেন।

শেষের দিকে লেজের ব্যাটসম্যানরা নিজেদের ব্যাটিং মেলে ধরতে পারেনি। আর্চার শেষদিকে দ্রুততার সাথে ২৪ রান করলেও তা শুধু রাজস্থানের পরাজয়ের ব্যবধানকে কমিয়েছে। শেষ পর্যন্ত ১৮.১ ওভারে ১৩৬ রানে সবকটি উইকেট হারিয়ে বসে রাজস্থান।

মুম্বাইয়ের পক্ষে বুমরাহ ৪টি, বোল্ট ও জেমস প্যাটিনসন ২টি করে উইকেট নেন। দুর্দান্ত ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরা হন মুম্বাইয়ের সুরিয়াকুমার যাদব।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ১৯৩/৪ (২০ ওভার), সুরিয়া ৭৯*, রোহিত ৩৫; শ্রেয়াস গোপাল ২/২৮, জফরা আর্চার ১/৩৬

রাজস্থান রয়্যালসঃ ১৩৬/১০ (১৮.১ ওভার), বাটলার ৭০, আর্চার ২৪; বুমরাহ ৪/২৪, প্যাটিনসন ২/১৯, বোল্ট ২/২৬

ফলাফলঃ মুম্বাই ইডিয়ান্স ৫৭ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ সুরিয়াকুমার যাদব (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

যেকারণে তিন দলীয় ওয়ানডে সিরিজে নেই মাশরাফি

Read Next

পাকিস্তানি সমর্থকদের চিন্তিত না হতে বললেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী

Total
1
Share