৫ দল নিয়ে নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি লিগ

বাংলাদেশ বিশ্বকাপ ২০১৯
Vinkmag ad

লম্বা সময় ক্রিকেটের বাইরে থাকার পর ব্যস্ত ক্রিকেট সূচি পাচ্ছে টাইগাররা। দুইটি দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ শেষ হয়েছে আজ (৬ অক্টোবর)। এরপর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন টাইগারদের ব্যস্ত সূচির কথা।

১১ অক্টোবর থেকে তিন দলীয় ওয়ানডে সিরিজ, এরপর নভেম্বরে পাঁচ দলীয় টি-টোয়েন্টি লিগ। যেখানে টাইগারদের স্কিল ক্যাম্পে থাকা ক্রিকেটাররা ছাড়াও খেলবেন অন্যান্যরা।

টি-টোয়েন্টি লিগ নিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘এটার (তিন দলীয় ওয়ানডে সিরিজ) পরপরই আমরা যেটা করছি, আরও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট করতে যাচ্ছি। এটা কর্পোরেট লিগ হবে নাকি বিসিবি স্পন্সর হবে তা এখন পর্যন্ত আমরা চূড়ান্ত করিনি। কিন্তু একটা যে হতে যাচ্ছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।’

এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে বিদেশি ক্রিকেটার থাকবে কিনা তা নিয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করতে পারেনি বিসিবি।

বিসিবি বস বলেন, ‘আজকে বেসিক্যালি একটা জিনিস ছিল বিদেশি ক্রিকেটার এলাউ করবো কি করবো না। এই একটা সিদ্ধান্তই আমি দিতে পারিনি আজকে, আজকের দিনটা সময় নিয়েছি। আমি বলেছি কাল পরশুর মধ্যে ওদেরকে জানাবো।’

‘নভেম্বরের মাঝামাঝিতে (কর্পোরেট লিগ)। এটাই আলোচনা হচ্ছে যেমন ধরেন পুরোটাই কর্পোরেট হবে কীনা অকশনে, বিদেশি ক্রিকেটার থাকলে অকশনে হবে নাকি ওপেন করে দেওয়া হবে যার যার মত নিয়ে আসবে এই জিনিসগুলো চূড়ান্ত হয়নি। তবে অকশনই হবে। বিদেশি প্লেয়ারদের ব্যাপারটা আদৌ হবে কীনা, নিলে কয়জন করে সেটা, এরপর ওপেন থাকবে নাকি আমরা একটা পুল দিয়ে দিব এর মধ্য থেকে নিতে হবে এই সিদ্ধান্তগুলো নেওয়া হয়নি।’

মূলত ৫ টি দল নিয়ে টুর্নামেন্টটি করবে বিসিবি। যেখানে প্রতিটি দলে ১৫ জন করে মোট ৭৫ জন দেশি ক্রিকেটার থাকবে।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এছাড়া মোটামুটি সবই ফাইনাল, আমরা ৫ টা দল নিয়ে টুর্নামেন্টটা করতে ইচ্ছুক। ৫ টা দল হলে আমরা দেখেছি ৭৫ টা প্লেয়ার লোকালি, ৭৫ টা প্লেয়ার হলে ঠিক আছে। আমরা যে ধরণের চিন্তা ভাবনা করেছি ঐ ধরণের একটা টুর্নামেন্ট আমরা করতে পারবো।’

দলগুলো যাতে একই রকমের (শক্তিমত্তায়) হয় সে ব্যবস্থা করবে বিসিবি।

‘মাঝে মাঝে হয় কি দুই একটা দল খুবই শক্ত বাকিগুলো দুর্বল হয়। এমনটা না করে ব্যালেন্স কীভাবে করা যায় সেসব নিয়েই কথাবার্তা হচ্ছিল। এসব আমরা দুই একদিনের মধ্যে ফাইনাল করে ফেলবো।’

কর্পোরেট হাউজ গুলোকে রাজি করানো প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আসলে এই মুহূর্তে বলা কঠিন। তবে তিনজনের সাথে কথা হয়েছে তিনজনই আগ্রহী। আমার কথা হচ্ছে আসলে আমরা যাদের কাছে গিয়েছি তারা কোন না কোনভাবে আমাদের সাথে জড়িত। কাজেই এটা যেহেতু খুব কম বাজেটের, এটা বিপিএলের মত অনেক টাকা বাজেটের করা হয়নি। সুতরাং আমার মনে হয়না সমস্যা হবে।’

এই টুর্নামেন্ট সম্প্রচারের জন্য আলাদা টেন্ডার দেবে বিসিবি।

‘(ব্রডকাস্ট) আলাদা করবো। আলাদা টেন্ডার দিয়ে দিব।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাধা পেয়েও যেকারণে খুশি বিসিবি সভাপতি

Read Next

২৫ সদস্যের এইচপি স্কোয়াড ঘোষণা

Total
22
Share