আইপিএলে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন এক ক্রিকেটার

ড্রিম ইলেভেন আইপিএল ট্রফি
Vinkmag ad

চলতি আইপিএলে জুয়াড়িদের কাছ থেকে ক্রিকেটারদের রক্ষা করতে বিসিসিআই নানা পরিকল্পনা হাতে নেয়। তবে সব বাধা টপকে ইতোমধ্যে একজন খেলোয়াড়ের কাছে প্রস্তাব চলে আসে। বিসিসিআই দুর্নীতি দমন ইউনিটের (এসিইউ) প্রধান অজিত সিং সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট দল ও খেলোয়াড়ের নাম অপ্রকাশিত থাকলেও এতটুকু নিশ্চয়তা পাওয়া গিয়েছে যে দলগুলোর সাথে জৈব সুরক্ষিত বলয়ে থাকা কেউই এই প্রস্তাব দেয়নি। অজিত সিং বলেন, ‘হ্যাঁ (একজন খেলোয়াড় যোগাযোগের কথা জানিয়েছেন)। আমরা তাকে (যে ব্যক্তিটি এপ্রোচ করেছেন) ট্র্যাক করছি। এতে কিছুটা সময় লাগবে।’

দলের সাথে জৈব সুরক্ষিত বলয়ে অবস্থান করা ক্রিকেটারদের ফিক্সিং প্রস্তাবের বিষয়ে অধিকতর জ্ঞান দিতে এই সময়টায় বেশ কিছু সেশন পরিচালনা করেছে বিসিসিআই। আইপিএলে দুর্নীতি বন্ধ করার উদ্দেশ্যে বোর্ডে স্পোর্টসরাডার রাখা হয়েছে। খেলাধুলা সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহ ভিত্তিক একটি বড় প্রতিষ্ঠানকে এ দায়িত্ব দিয়েছে বিসিসিআই।

এই প্রতিষ্ঠান বোর্ডের দুর্নীতি দমন ইউনিটের সাথে স্পোর্টসরাডারের সাহায্যে আইপিএলে দুর্নীতি বিষয়ক কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছে। স্পোর্টসরাডারের বৈশ্বিক পরিচালনা প্রধান টম ম্যাস বলেন, ‘কোম্পানির ফ্রড ডিটেক্টিং সিস্টেম (এফডিএস) ৬০০ এর বেশি বুকমেকারকে পর্যবেক্ষণ করছে এবং তারা বিভিন্ন ধরণের, বিভিন্ন দেশ, বিভিন্ন অঞ্চল বা বিশেষভাবে পরিচিত অবৈধ বাজার থেকে এসেছে।’

এফডিএস এসব অস্বাভাবিক বুকমেকারদের চলাফেরা ট্র্যাক করতে এবং সন্দেহজনকদের ব্যাপারে সতর্ক করতে ব্যবহৃত হয়। এফডিএস কর্মীরা ১৫ ই সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল খেলোয়াড়দের সাথে প্রথম অনলাইন সেশন পরিচালনা করেছিলেন এবং অন্যান্য সেশন পরিচালন সাথে সাথে ফলো আপও করেছে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দাপুটে জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ব্যাঙ্গালোর

Read Next

রানবন্যার ম্যাচে শেষ হাসি দিল্লি ক্যাপিটালসের

Total
5
Share