ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়ে নিষিদ্ধ আফগানিস্তান কোচ

নুর মোহাম্মদ
Vinkmag ad

দুর্নীতির অভিযোগে ঘরোয়া ক্রিকেটের কোচ নুর মোহাম্মদ লালাইকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। ২০১৯ সালে দেশটির ঘরোয়া টুর্নামেন্ট শাপাগিজা ক্রিকেট লিগে (এসসিএল) জাতীয় দলের ক্রিকেটারকে ফিক্সিং প্রস্তাব দেওয়ার অপরাধে তার এই সাজা।

সবমিলিয়ে চারটি ভিন্ন ভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্ত হন লালাই। যার প্রেক্ষিতে তাকে এই নিষেধাজ্ঞা দেয় আফগান বোর্ড। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ও এসিবির দেওয়া শাস্তি মেনে নেন এই কোচ। ফলে আলাদা কোন শুনানির প্রয়োজন হয়নি।

এ বিষয়ে এসিবির দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বোর্ডের সিনিয়র দুর্নীতি দমন ব্যবস্থাপক সায়েদ আনোয়ার শাহ কুরাইশি বলেন, ‘এটি খুবই হতাশার এবং মারাত্মক অপরাধ যেখানে একজন ঘরোয়া স্তরের জুনিয়র কোচ ২০১৯ সালের এসসিএল এর মত হাই-প্রোফাইল ঘরোয়া টুর্নামেন্টে দুর্নীতির সাথে জড়িত ছিল।’

‘এই কোচ এজেন্ট হিসেবে জাতীয় দলের একজন খেলোয়াড়কে এসসিএল ২০১৯ এ কয়েকটি ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ের সাথে জড়ানোর প্রস্তাব দেয়। ভাগ্যক্রমে প্রতিবেদন অনুসারে সে (খেলোয়াড়) এমন কিছুতে জড়াননি।’

সংশ্লিষ্ট খেলোয়াড়কে ধন্যবাদ দিয়ে কুরাইশি আরও যোগ করেন, ‘আমি তার প্রতি কৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ দিতে চাই যিনি সত্যিকার সাহস ও পেশাদারিত্ব দেখিয়েছেন যখন তাকে প্রস্তাব দেওয়া হয় তখন থেকেই। তিনি বুঝতে পেরেছিলেন কি ছিল, এরপর প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং আমাদের জানিয়েছেন। পরবর্তীতে আমাদের তদন্ত ও ট্রাইব্যুনালকে সমর্থন করেছেন।’

এদিকে অভিযুক্ত কোচ নুর মোহাম্মদ লালাইও তদন্তে সাহায্য করেন এবং অভিযোগ স্বীকার করে নেন। কুরাইশি উল্লেখ করেন এমনটা না হলে তার শাস্তির মেয়াদ আরও দীর্ঘতর হতে পারতো।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভারসাম্য আনতে শেন ওয়ার্নের অভিনব প্রস্তাব

Read Next

ক্রিকেটারদের জন্য গ্রিন জোন, থাকবে অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড

Total
9
Share